ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ১ ১৪৩১

নেটিজেনদের ‘নোংরা’ মন্তব্য, আলোচনায় শেহতাজ

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:২৩, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১০:৪৬, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩
নেটিজেনদের ‘নোংরা’ মন্তব্য, আলোচনায় শেহতাজ

মডেল-অভিনেত্রী-গায়িকা শেহতাজ মুনিরা হাশেম। মডেলিংয়ের মাধ্যমে শোবিজ অঙ্গনে পা রাখেন তিনি। ‘আমি যা দেখি, তুমি তাই দেখ’ শিরোনামে একটি বিজ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে আলোচনায় আসেন। পাশাপাশি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করে নজর কাড়েন তিনি।

পরবর্তীতে শেহতাজ নাম লেখান টিভি নাটকে। বেশ কিছু একক নাটকে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়ান তিনি। তবে ধারাবাহি নাটকে বরাবরই আপত্তি ছিল তার। ২০২১ সালে প্রকাশিত হয় গায়িকা শেহতাজের প্রথম একক গান। এ গানের সংগীতায়োজন করেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী গায়ক মুজা।

 

ইউটিউবে কাজ করার কারণে সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে নাম জড়িয়েছিল শেহতাজের। যদিও এটি মিথ্যা বলে দাবি করেন তিনি। এক সাক্ষাৎকারে এ অভিনেত্রী বলেছিলেন— ‘আমরা একই সময়ে ইন্ডাস্ট্রিতে আসি। এসব কারণে হয়তো মানুষ এমনটা চিন্তা করেছেন। কারো সঙ্গে কাজ করলেই মানুষ সম্পর্কে জড়ায় না।’

 

২০১৭ সালে গায়ক প্রীতম হাসানের ‘জাদুকর’ গানের মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেন শেহতাজ। এ গানে একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে তাদের পরিচয়। শুটিংয়ের ফাঁকে তাদের আলাপ হতো। ধীরে ধীরে তাদের মাঝে ভালো লাগার সম্পর্ক তৈরি হয়।

 

এ গানের শুটিং শেষে শেহতাজকে বিয়ের প্রস্তাব দেন প্রীতম। শেহতাজ প্রীতমকে ভালোবাসলেও শুরুতে বিয়েতে রাজি হননি। কারণ মায়ের অনুমতি ছাড়া তিনি কোনো কথা দিতে চাননি। মায়ের কাছে বিস্তারিত বলার পর প্রীতমকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে বলেন। সর্বশেষ প্রীতম তা করে দেখান।

 

সব সংকট কাটিয়ে ২০২২ সালের ২৯ অক্টোবর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শেহতাজ-প্রীতম। ঢাকা থেকে দূরে পাহাড় আর চা–পাতায় ঘেরা শহর শ্রীমঙ্গলে বসেছিল এ তারকা জুটির বিয়ের আসর। বিয়ের পর নিজেদের মতো করে সময় কাটাচ্ছেন এই দম্পতি।

 

কয়েক দিন আগে একটি অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন শেহতাজ-প্রীতম। অনুষ্ঠানের বেশ কিছু স্থিরচিত্র ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছেন নেটদুনিয়ায়। তারপর থেকে আলোচনায় শেহতাজ। শেহতাজের ওজন বেড়ে যাওয়ায় তাকে নিয়ে ‘নোংরা’ মন্তব্য করছেন নেটিজেনরা।

 

শেহতাজের পোশাক নিয়েও জোর চর্চা চলছে নেটদুনিয়ায়। মাহফুজা নামে একজন লিখেছেন, ‘এটা কি পোশাক। এরকম পোশাক পরা কি উচিত হয়েছে?’ নাজনীন নামে একজন লিখেছেন, ‘কেমন লাগছে দেখতে, ছি ছি।’ কেউ কেউ তাকে সানাই মাহবুবের সঙ্গে তুলনা করেছেন। এমন অনেক মন্তব্য রয়েছে যা প্রকাশের অযোগ্য।

ঢাকা/শান্ত

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়