ঢাকা     শুক্রবার   ৩১ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪৩১

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ৪ সিদ্ধান্ত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৩০, ১৬ এপ্রিল ২০২৪  
বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ৪ সিদ্ধান্ত

গতকাল সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাত ১০টায় বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে এতে যুক্ত ছিলেন জাতীয় স্থায়ী কমিটির ১০ সদস্য। সেখানে চারটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় বলে জানা গেছে।

সভার শুরুতে গত ২৫ মার্চ অনুষ্ঠিত জাতীয় স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নের অগ্রগতি সম্পর্কে মহাসচিব জাতীয় স্থায়ী কমিটির সভাকে অবহিত করেন। এরপর বিস্তারিত আলোচনা শেষে সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তগুলো হলো-

১. বান্দরবান জেলায় কুকিচিন এর হামলায় ব্যাংক ও অস্ত্র লুট এবং পাবর্ত্য এলাকায় বিরাট অংশে স্বায়ত্বশাসন দাবি নিয়ে আলোচনা হয়। বিএনপি মনে করে এই ধরনের দাবি বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের উপর সরাসরি আঘাত। সভা মনে করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সেনাবাহিনী প্রধানের বক্তব্য প্রমাণ করে যে, এ সশস্ত্র গোষ্ঠির সঙ্গে সরকারের প্রত্যক্ষ সম্পর্ক রয়েছে এবং পরবর্তীকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে বিষয়টি আরও রহস্যময় হয়ে উঠেছে। এ ধরনের আক্রমণ এবং পরবর্তীকালে সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের বক্তব্য এটাই প্রমাণ করে যে, বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌত্ব কতটা বিপন্ন হয়ে পড়েছে। সরকার এখন পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনো বক্তব্য দেয়নি। যা জনমনে আরও উদ্বেগের সৃষ্টি করেছে। সভা মনে করে, বিডিআর হত্যাকাণ্ড, সীমান্তে বাংলাদেশি নাগরিককে হত্যা এবং এ ধরনের আক্রমণের ঘটনা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। এটা বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে ক্ষুন্ন করার একটি পরিকল্পিত চক্রান্ত। সরকারের সীমাহীন ব্যর্থতার কারণে আজ বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব বিপন্ন হয়ে পড়ছে। সভা মনে করে, অবিলম্বে বিষয়টি নিয়ে সরকারের সুস্পষ্ট বক্তব্য জনগণের সামনে উপস্থাপন করা প্রয়োজন।

২. ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইসরাইল থেকে দুটি কার্গো বিমানের অবতরণ সর্বমহলে উদ্বেগ ও সমালোচনার সৃষ্টি করেছে। বিষয়টি নিয়ে সর্বত্র আলোচনা হয়েছে। ইসরাইলের সঙ্গে বাংলাদেশে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কোনো চুক্তি না থাকার পরেও বিমানগুলি তেলআবিব থেকে ঢাকা বিমানবন্দরে সরাসরি অবতরণ এবং তা নিয়ে পরবর্তীকালে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃক প্রদত্ত বক্তব্য গ্রহণযোগ্য নয়। উপরন্ত বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের দাবি অনুযায়ী বাংলাদেশের গার্মেন্টস ইউরোপে পরিবহনের বিষয়টি বিজেএমই অস্বীকার করায় জনমনে আরও বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। যখন ইসরাইল কর্তৃক গাজায় ভয়াবহ আক্রমণ, প্যালেস্টাইনিদের নির্বিচারে হত্যা সারা বিশ্বে নিন্দার ঝড় বইছে, সে সময় ইসরাইল থেকে ঢাকায় বিমান অবতরণ রহস্য সৃষ্টি করেছে। সভা অবিলম্বে এ বিষয়ে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করবার দাবি জানায়।

৩. সভায় আগামী ১ মে আন্তর্জাতিক শ্রম দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। জাতীয় স্থায়ী কমিটির সম্মানিত সদস্য নজরুল ইসলাম খানকে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবার অনুরোধ জানানো হয়।

৪. নির্বাচন কমিশন ঘোষিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচনের বিষয়ে আলোচনা হয়। সভা মনে করে, ইতোপূর্বে জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও স্থানীয় সরকার নির্বাচন বিষয়ে দলের যে সিদ্ধান্ত সেটা পরিবর্তনের কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। এ অবৈধ সরকরের অধীনে কোনো নির্বাচনে সুষ্ঠ ও অবাধ হতে পারে না। সুতরাং এই উপজেলা নির্বাচনে দলীয়ভাবে অংশগ্রহণের কোনো সুযোগ নাই।

শেষে সভাপতি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার মুলতবী ঘোষণা করেন।

সভায় উপস্থিত জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা হলেন- ব্যরিষ্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সালাহ উদ্দিন আহমেদ, বেগম সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

/ঢাকা/মেয়া/মেহেদী/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়