ঢাকা     রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭ ||  ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ঈদের বাজারে নতুন ১২ স্মার্টফোন

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৫১, ২৭ জুলাই ২০২০  

ঈদের আর বেশিদিন বাকি নেই। ফলে অনলাইনে কিংবা অফলাইনে ঈদের কেনাকাটায় এখন ব্যস্ত সবাই। আর ঈদের কেনাকাটায় বর্তমানে অন্যতম চাহিদা নতুন স্মার্টফোনের। নিজের জন্য কিংবা প্রিয়জনের জন্য অনেকেই নতুন স্মার্টফোনের খোঁজখবর নিচ্ছেন। চলতি মাসে বাজারে আসা কয়েকটি নতুন স্মার্টফোন নিয়ে এ আয়োজন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩১: ঈদের বাজারে গ্যালাক্সি এম৩১ স্মার্টফোনের নতুন সংস্করণ (৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ) এনেছে স্যামসাং। অ্যান্ড্রয়েড ১০ চালিত এই ফোনে রয়েছে স্যামসাংয়ের নিজস্ব ওয়ান ইউআই ২.০ ইন্টারফেস। প্রসেসর হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে এক্সিনোজ ৯৬১১ অক্টা কোর এবং ডিসপ্লে ৬.৪ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ফুল এইচডি+, যার রেজ্যুলেশন ২৩৪০ বাই ১০৮০ পিক্সেল। স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৪.১ শতাংশ। কোয়াড রিয়ার ক্যামেরার এই ফোনের পেছনে ৬৪ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরাসহ রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা, যার ফিল্ড অব ভিউ ১২৩ ডিগ্রি। এর পাশাপাশি রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরাসহ ৫ মেগাপিক্সেল ডেপথ ক্যামেরা। সেলফির জন্য সামনে রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ডিভাইসটিতে ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ আছে এবং এ স্টোরেজ মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে বৃদ্ধি করা যাবে। ৬,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারির এ ফোনটি দ্রুতগতিতে চার্জের জন্য রয়েছে ১৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং। গ্যালাক্সি এম৩১-এর দাম ২৭ হাজার ৯৯৯ টাকা।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম২১: ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরার এই ফোনটিতে রয়েছে ৬০০০ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। দুটি সংস্করণে স্মার্টফোনটি নিয়ে এসেছে স্যামসাং। ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের সংস্করণটির দাম ১৮ হাজার ৯৯৯ টাকা এবং ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের সংস্করণের দাম ২০ হাজার ৯৯৯ টাকা। দ্রুত চার্জ নিশ্চিতে ফোনটির সঙ্গে থাকছে ১৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার। গ্যালাক্সি এম২১ ফোনে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড এফইচডি+ ডিসপ্লে, যার রেজ্যুলেশন ২৩৪০ বাই ১০৮০ পিক্সেল এবং স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৪.২ শতাংশ। ফটোগ্রাফির জন্য ট্রিপল ক্যামেরা সিস্টেমের মধ্যে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা এবং ৫ মেগাপিক্সেলের ডেপথ ক্যামেরা। সেলফির জন্য সামনে রয়েছে ২০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ডিভাইসটিতে প্রসেসর হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে এক্সিনোজ ৯৬১১ অক্টাকোর প্রসেসর। রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক স্যামসাংয়ের নিজস্ব ওয়ান ইউআই ২.০ ইন্টারফেস। ফোনটি মিডনাইট ব্লু ও র্যাভেন ব্ল্যাক রঙে পাওয়া যাচ্ছে।

ওয়ালটন প্রিমো এসসেভেন প্রো: বাংলাদেশে তৈরি দুর্দান্ত ফিচারসমৃদ্ধ নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোন ‘প্রিমো এসসেভেন প্রো’। এটি ব্ল্যাক এবং ব্লু দুটি ভিন্ন রঙে পাওয়া যাচ্ছে। ঈদ উপলক্ষে নতুন এই ফোনটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ইভ্যালির মাধ্যমে বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। ইভ্যালিতে এর দাম রাখা হয়েছে ২০ হাজার ৫০০ টাকা। প্রতিষ্ঠানটির ঈদ ধামাকা অফারে ফোনটি ১০০ শতাংশ ক্যাশব্যাকে কেনা যাচ্ছে। ৬.৩ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস আইপিএস ডিসপ্লের প্রিমো এসসেভেন প্রো ফোনের পর্দার রেজ্যুলেশন ২৩৪০ বাই ১০৮০ পিক্সেল। স্কিন টু বডি রেশিও ৯০ দশমিক ৭ শতাংশ। অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেমে চালিত এই ফোনে ব্যবহৃত হয়েছে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ২.১ গিগাহার্জের হেলিও পি৭০ অক্টা কোর প্রসেসর। সঙ্গে রয়েছে দ্রুতগতির ৬ জিবি র‌্যাম। এর ইন্টারনাল স্টোরেজ ১২৮ জিবি এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত মাইক্রো এসডি কার্ড সাপোর্ট করবে। এই স্মার্টফোনের পেছনে ব্যবহৃত হয়েছে ট্রিপল ক্যামেরা। যাতে রয়েছে ৩০এক্স জুমসহ ১০৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা পিক্সেল মোড। ৪৮ মেগাপিক্সেলের প্রধান রিয়ার কামেরায় ছবি হবে নিখুঁত উজ্জ্বল ও রঙিন। ৮ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি ক্যামেরা দেবে ১২০ ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেলে ছবি তোলার সুবিধা। ২ মেগাপিক্সেলের তৃতীয় ক্যামেরা নিশ্চিত করবে ছবি ডেফথ অব ফিল্ড। সেলফির জন্য এই ফোনের সামনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফ্ল্যাগশিপ ফোনটির প্রয়োজনীয় পাওয়ার ব্যাকআপ দিতে আছে ৩৯৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। টাইপ সি পোর্টযুক্ত ফোনটিতে ১০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিংসহ ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা রয়েছে।

ওয়ালটন প্রিমো এনফোর: বাংলাদেশে তৈরি সাশ্রয়ী মূল্যের বড় পর্দার নতুন স্মার্টফোন ‘প্রিমো এনফোর’। ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি রমের পর এবার ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি রমে আরেকটি ভার্সনে ফোনটি বাজারে এসেছে। রেইনবো ব্ল্যাক এবং সি গ্রিন-দুটি ভিন্ন রঙে বাজারে ছাড়া হয়েছে। ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি রমের নতুন ভার্সনটি পাওয়া যাচ্ছে ১৩ হাজার ১৯৯ টাকায়। আর ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি রমের ভার্সনটির দাম ১১ হাজার ৬৯৯ টাকা। ‘এনফোর’ মডেলের এই স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৬.৫ ইঞ্চির ইন-সেল এইচডি প্লাস আইপিএস ডিসপ্লে। পর্দার রেজ্যুলেশন ১৬০০ বাই ৭২০ পিক্সেল। অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত ফোনটির উচ্চগতি নিশ্চিত করতে রয়েছে ২.০ গিগাহার্জ গতির অক্টা কোর এআরএম কোর্টেক্স-এ৫৩ প্রসেসর। এই স্মার্টফোনের পেছনে রয়েছে ১৬, ৮ এবং ২ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা। ১৬ মেগাপিক্সেলের প্রধান কামেরায় ছবি হবে নিখুঁত উজ্জ্বল ও রঙিন। ৮ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি ক্যামেরা দেবে ১২০ ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেলে ছবি তোলার সুবিধা। আর ২ মেগাপিক্সেলের তৃতীয় ক্যামেরা নিশ্চিত করবে ছবি ডেফথ অব ফিল্ড। সেলফির জন্য সামনে আছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। স্মার্টফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।

অপো এ৯২: অপো এ সিরিজের নতুন এই ফোনে রয়েছে পাঞ্চহোল ডিসপ্লে এবং সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ডিসপ্লের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে নিও-ডিজাইনের পাতলা ডিসপ্লে। ২৪০০ বাই ১০৮০ পিক্সেল রেজ্যুলশনের ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি+ ডিসপ্লেতে আছে বিশেষ আই কেয়ার মোড, যা অ্যাম্বিয়েন্সের ওপর ভিত্তি করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্ক্রিনের আলো সামঞ্জস্য করবে। স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৩ দশমিক ৪ শতাংশ। স্মার্টফোনটির পেছনে এআই প্রযুক্তির কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের ১১৯ ডিগ্রি আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের দুটি পোর্ট্রেট স্টাইল লেন্স। সেলফি তোলার জন্য সামনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের পাঞ্চহোল ক্যামেরা। ফোনটি সারাদিন ব্যবহারের সুবিধার্থে রয়েছে ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। পাশাপাশি ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং থাকায় দ্রুত ফোন চার্জ দেওয়া যাবে। কোয়ালকমের ১১ ন্যানোমিটারের স্নাপড্রাগন ৬৬৫ চিপসেট এবং 8 জিবি র‌্যামের সঙ্গে অক্টা কোর জিপিইউ দেবে সর্বোচ্চ ২.০ গিগাহার্জ গতি। ফোনটিতে আছে ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। অপো এ৯২ স্মার্টফোনটি কেনা যাবে ২২ হাজার ৯৯০ টাকায়। পাওয়া যাচ্ছে অরোরা পার্পল ও টোয়াইলাইট ব্ল্যাক-এই দুটি রঙে।

অপো এ১২: অপোর সাশ্রয়ী দামের নতুন এই ফোনে রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং মিডিয়াটেকের ১২ ন্যানোমিটারের শক্তিশালী পি৩৫ চিপসেট। অক্টা কোর প্রসেসরের এই ফোন সর্বোচ্চ ২.৩৫ গিগাহার্জ গতিতে ডাটা প্রসেস করতে সক্ষম। রয়েছে ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, যা মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে ২৫৬ জিবিতে উন্নীত করা যাবে। ফোনটির পেছনে ডুয়াল ক্যামেরায় রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের মূল সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর। সেলফির জন্য সামনে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৬.২২ ইঞ্চির স্ক্রিনের এই ফোনে রয়েছে ৪,২৩০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি। অপো এ১২ ফোনটি কেনা যাবে ১৩ হাজার ৯৯০ টাকায়।

রিয়েলমি সিক্স: এবারের ঈদে টেক-ট্রেন্ডসেটার ব্র্যান্ড রিয়েলমির নতুন স্মার্টফোন ‘রিয়েলমি সিক্স’। মিডিয়াটেকের দ্রুতগতিসম্পন্ন জি৯০টি অক্টা কোর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে এই ফোনে। ২৪০০ বাই ১০৮০ পিক্সেল রেজ্যুলশনের ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চির আইপিএস ডিসপ্লেতে গেমিংয়ে স্বাচ্ছন্দের জন্য রয়েছে ৯০ হার্জের রিফ্রেশ রেট। স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৪.১ শতাংশ। স্মার্টফোনটির পেছনে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে আছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ ক্যামেরা। সেলফি তোলার জন্য সামনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের পাঞ্চহোল ক্যামেরা। সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর সুবিধার এই ফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৪৩০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি। দ্রুত চার্জ সুবিধা নিশ্চিত করবে ৩০ ওয়াটের ভোক ফ্ল্যাশ চার্জ। ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রমের রিয়েলমি সিক্স পাওয়া যাচ্ছে কমেট হোয়াইট ও কমেট ব্লু- এই দুটি রঙে। দাম ২২ হাজার ৯৯০ টাকা।

রিয়েলমি সি ইলেভেন: রিয়েলমির এন্ট্রি লেভেলের নতুন এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি৩৫ প্রসেসর ও ২ জিবি র‌্যাম। স্মার্টফোনটি সর্বোচ্চ ২.৩ গিগাহার্জ গতিতে কাজ করবে। রয়েছে ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির পাশাপাশি রিভার্স চার্জিং সুবিধা থাকায় মাইক্রো ইউএসবি ওটিজি দিয়ে অন্যান্য ফোনও চার্জ করা যাবে। ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চির এইচডি+ ডিসপ্লের এই ফোনে রয়েছে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা (১৩ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা ও ২ মেগাপিক্সেলের পোর্ট্রেট লেন্স)। সেলফির জন্য ফ্রন্টে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। মিন্ট গ্রিন ও পেপার গ্রে- এই দুটি রঙে রিয়েলমি সি ইলেভেন ৮ হাজার ৯৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

ভিভো ওয়াই৩০: ভিভোর নতুন এই ফোনের র‌্যাম ও রম, ৪ ও ৬৪ জিবি। ব্যাটারি ৫০০০ এমএএইচ। ফোনটির সামনে একটি এবং পেছনে চারটি ক্যামেরা রয়েছে। ফ্রন্ট ক্যামেরাটি ৮ মেগাপিক্সেলের এবং রিয়ার ক্যামেরাগুলো যথাক্রমে ১৩, ৮, ২ এবং ২ মেগাপিক্সেলের। অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস১০ অপারেটিং সিস্টেম চালিত এই ফোনের ডিসপ্লে ৬ দশমিক ৪৭ ইঞ্চির এবং রেজ্যুলেশন ১৫৬০ বাই ৭২০। ফোনটির দাম ১৭ হাজার ৯৯০ টাকা। পাওয়া যাচ্ছে ইমারাল্ড ব্ল্যাক এবং মুনস্টোন হোয়াইট রঙে।

হুয়াওয়ে নোভা সেভেন আই: ঈদ উপলক্ষে হুয়াওয়ে নিয়ে এসেছে জনপ্রিয় নোভা সিরিজের নতুন স্মার্টফোন ‘নোভা সেভেন আই’। দাম ২৯ হাজার ৯৯৯ টাকা। হুয়াওয়ে অ্যাপগ্যালারি সমর্থিত এই ফোনে প্রয়োজনীয় যেকোনো অ্যাপস পেতে নিজস্ব অ্যাপগ্যালারি ছাড়া ‘পেটাল সার্চ উইজেট-ফাইন্ড অ্যাপস’ দিয়ে অ্যাপ খুঁজে ডাউনলোড করা যাবে। ফোনটিতে ৭ ন্যানোমিটারের কিরিন ৮১০ এআই চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেমসহ নিজস্ব ইএমইউআই ১০.০.১ এ চলবে ফোনটি। রয়েছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম। মোবাইল ফটোগ্রাফির জন্য কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ ক্যামেরা। সেলফির জন্য সামনে রয়েছে ৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৪০ ওয়াটের সুপারচার্জিং সুবিধাসহ ফোনটিতে রয়েছে ৪২০০ এমএএইচের ব্যাটারি।

শাওমি রেডমি ৯: শাওমির এন্ট্রি লেভেলের রেডমি সিরিজের এই স্মার্টফোনে প্রথমবারের মতো কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে। ১৩ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরাসহ রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, ৫ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর ক্যামেরা। সেলফির জন্য ফ্রন্টে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ৬.৫৩ ইঞ্চি ফুলএইচডি প্লাস ডিসপ্লের এই ফোনের পারফরম্যান্স নিশ্চিতে ব্যবহৃত হয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০ প্রসেসর। এছাড়া এতে আছে শক্তিশালী ৫০২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি এবং ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি ও মাইক্রো এসডি কার্ড সাপোর্ট সুবিধা। রিয়ার ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি বিশেষ ডিজাইনে ক্যামেরার পাশে দেওয়া হয়েছে। রেডমি ৯ কার্বন গ্রে, ওসান গ্রিন এবং সানসেট পার্পেল– এই তিনটি ভিন্ন রঙে পাওয়া যাচ্ছে। ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের এই ফোনের দাম ১৪ হাজার ৯৯৯ টাকা।

শাওমি রেডমি ৯এ: শাওমির এন্ট্রি লেভেলের নতুন এই স্মার্টফোনে রয়েছে ৬ দশমিক ৫৩ ইঞ্চির বড় ডিসপ্লে এবং ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার শক্তিশালী ব্যাটারি। পারফরম্যান্স নিশ্চিতে রয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি২৫ অক্টা-কোর গেমিং চিপসেট। ফোনটির এআই-অপ্টিমাইজড ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরায় পরিষ্কার ছবি তোলা যাবে। আর সেলফির জন্য ফ্রন্টে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। রেডমি ৯এ গ্রানাইট গ্রে, পিকক গ্রিন, স্কাই ব্লু- এই তিনটি ভিন্ন রঙে পাওয়া যাচ্ছে। ২ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের এই ফোনের দাম ৯ হাজার ৯৯৯ টাকা।

 

 

ঢাকা/ফিরোজ

রাইজিং বিডি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়