Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১ ||  শ্রাবণ ২০ ১৪২৮ ||  ২৩ জিলহজ ১৪৪২

সবচেয়ে হালকা-পাতলা ফোন আনল শাওমি

প্রকাশিত: ১৮:৪০, ১৮ জুলাই ২০২১   আপডেট: ১৮:৪০, ১৮ জুলাই ২০২১
সবচেয়ে হালকা-পাতলা ফোন আনল শাওমি

গ্লোবাল টেকনোলজি লিডার শাওমি ১৮ জুলাই (রোববার) দেশের বাজারে উন্মোচন করেছে ২০২১ সালের সবচেয়ে পাতলা ও হালকা ওজনের স্মার্টফোন মি ১১ লাইট। নজরকাড়া ডিজাইনের এই ডিভাইসটি ফ্ল্যাগশিপ লেভেলের পারফরম্যান্স দেবে।

স্মার্টফোনটির উন্মোচন উপলক্ষে শাওমি বাংলাদেশের কান্ট্রি জেনারেল ম্যানেজার জিয়াউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘মি সিরিজের মাধ্যমে আমাদের লক্ষ্য অর্থবহ উদ্ভাবন ও সেরা প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রাহকদের সকল চাহিদা পরিপূর্ণ করা। তারই ধারাবাহিকতায় হালকা-পাতলা ডিজাইন ও ফ্ল্যাগশিপ লেভেলের পারফরম্যান্স উপভোগের সুবিধা দিতে আমরা নিয়ে এসেছি মি ১১ লাইট।’ 

এই স্মার্টফোনের পুরুত্ব মাত্র ৬.৮মিমি এবং ওজন মাত্র ১৫৭ গ্রাম। হাতে ধরে ব্যবহারে বেশ স্বাচ্ছন্দ্য মিলবে। ফোনটির সামনে পাঞ্চ-হোল ডিজাইনের ক্যামেরা ও বেজেলহীন ডিসপ্লে রয়েছে। যারা বড় স্ক্রিন চান তাদের জন্যই ডিভাইসটি ডিজাইন করা হয়েছে। ফোনটির পাশে দেয়া হয়েছে কার্ভড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, যা খুব দ্রুত ও মসৃণভাবে ফোন আনলক করার অভিজ্ঞতা দেবে।

মি ১১ লাইট ফোনটিতে দেয়া হয়েছে স্পোর্টস ৬.৫৫ ইঞ্চির ১০-বিট অ্যামোলেড ডট-ডিসপ্লে। ডিভাইসটি আসছে ১.০৭ বিলিয়ন অন স্ক্রিন কালারে, যা এর পূর্বসূরিদের থেকে ৬৪ গুণ বেশি (৮-বিট ডিসপ্লে)। ফোনটির ডিসপ্লেতে চমৎকার কালার গ্রাডিয়েশন থাকায় ফোনটি দিয়ে যেকোনো অ্যাঙ্গেল থেকে ছবি দেখার ক্ষেত্রে মিলবে উন্নত অভিজ্ঞতা। ডিসপ্লেতে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ও ২৪০ হার্জ টাচ-স্যাম্পল রেট থাকায় টাচ হবে দুর্দান্ত। ডিসপ্লের স্থায়িত্ব বাড়াতে সামনে ও পিছনে দেয়া হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ এর সুরক্ষা।

ছবি তোলার জন্য রয়েছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এর প্রাইমারি ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেলের, আছে ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স এবং তার সঙ্গে একটি ৫ মেগাপিক্সেলের টেলিম্যাক্রো ক্যামেরা। খুব সহজেই ফোনটি দিয়ে ব্যবহারকারীরা প্রফেশনাল গ্রেডের ছবি তুলতে পারবেন। এছাড়া ফোনটির সামনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। এই ক্যামেরা দিয়ে দিন ও রাতের যেকোনো সময় স্পষ্ট ও আকর্ষণীয় সেলফি তোলা যাবে। প্রাকৃতিক কালার ও গতিশীল ইমেজ প্রসেসিংসহ ৩০ এফপিএস-এ ফোরকে ভিডিও শুট করা যাবে।  

ফ্ল্যাগশিপ পারফরম্যান্স দিতে মি ১১ লাইট ফোনটিতে দেওয়া আছে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২ জি প্রসেসর। প্রসেসরটি তৈরি করা হয়েছে গেমিং পারফরম্যান্সের জন্য, এ জন্য দেয়া হয়েছে আল্ট্রা-লাইট লিকুইড-কুল প্রযুক্তি, যা স্মার্টফোনটিকে গরম হতে দেয় না। এছাড়া মাল্টিটাস্কিং এ পাওয়া যাবে দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা। থাকছে এলপিডিডিআর৪এক্স র‍্যাম এবং ইউএফএস ২.২, এটি ফোনটির পারফরম্যান্সকে আরও বাড়িয়ে দেয়।

স্মার্টফোনে শক্তিশালী পারফরম্যান্স দিতে প্রয়োজন শক্তিশালী ব্যাটারি। তাই এই ফোনে দেয়া হয়েছে শক্তিশালী ৪,২৫০ এমএএইচের ব্যাটারি। ফোনটি সাপোর্ট করবে ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং। শক্তিশালী ব্যাটারি যেকোনো ভারী কাজ করার পরও সারাদিন ব্যাকআপ দেবে। হালকা ও পাতলা ফোন হিসেবে এটাই প্রথম যেখানে এতো শক্তিশালী ব্যাটারি দেয়া হয়েছে।

মি ১১ লাইট স্মার্টফোনটি দেশের বাজারে জ্যাজ ব্লু, স্ক্যানি কোরাল এবং ভিনিল ব্ল্যাক তিনটি কালার ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে। অচিরেই দেশের অথোরাইজড মি স্টোর, পার্টনার স্টোর ও রিটেইল চ্যানেলে পাওয়া যাবে ফোনটি। ফোনটির ৬+১২৮ জিবি ও ৮+১২৮ জিবি ভ্যারিয়েন্টের দাম যথাক্রমে ২৯,৯৯৯ ও ৩১,৯৯৯ টাকা।

ঢাকা/ফিরোজ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়