ঢাকা     বুধবার   ২৫ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯ ||  ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩

অসুস্থ শিশুর পরিবর্তে স্কুলে ক্লাস করছে রোবট

প্রকাশিত: ১৯:৩৭, ১৮ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৯:৩৮, ১৮ জানুয়ারি ২০২২
অসুস্থ শিশুর পরিবর্তে স্কুলে ক্লাস করছে রোবট

জোশুয়া মার্টিনজেলি নামের ৭ বছর বয়সি এক শিশু গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তার হয়ে স্কুলে ক্লাস করছে রোবট। এমন অভিনব ঘটনা জার্মানির এক স্কুলের। সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে রোবটের দুর্দান্ত এ কাজের কথা।

বার্লিনের পুসটেব্লুম গ্রান্ডশুলে স্কুলের শিক্ষার্থী ছোট্ট জোশুয়া। কিন্তু ফুসফুসের একটি গুরুতর রোগ ধরা পড়ায় বর্তমানে গলায় সবসময় একটি টিউব পড়তে হয় তাকে। এ কারণে সে আর স্কুলে যেতে পারে না। কিন্তু স্কুলের পড়া মিস করলে তো চলবে না। তাই তার বদলে ক্লাস করছে একটি অ্যাভাটার রোবট।

স্কুলে জোশুয়া যে বেঞ্চে বসতো সেখানে বসেই নিয়মিত ক্লাস করছে অ্যাভাটার রোবটটি। রোবটটির সামনে রয়েছে ক্যামেরা ও মাইক্রোফোন। যার মাধ্যমে ক্লাসের দৃশ্য ও আলোচনা অনলাইনে বাড়ি বসে ভিডিও কলে দেখতে পায় জোশুয়া। কথা বলার জন্য রয়েছে স্পিকারও। জোশুয়ার হয়ে শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে রোবটটি।

স্কুলটির প্রধান শিক্ষিকা উটে উইন্টারবার্গ রয়টার্সকে জানান, ক্লাসের অন্য শিক্ষার্থীরা এই অ্যাভাটার রোবটের সঙ্গে কথা বলে, একসঙ্গেই ওরা হাসাহাসি করে, কখনও কখনও পড়াশোনার সময় খুনসুটিও করে একসঙ্গেই। এই সব কাজগুলো জোশুয়া করতো। রোবটটির মাধ্যমে তার পড়াশোনাও ভালোভাবেই চলছে।

বার্লিনের মারজাহান-হেলারসডর্ফের স্থানীয় কাউন্সিলের ব্যক্তিগত উদ্যোগে এ প্রকল্পটি চালু করা হয়েছে। অ্যাভাটার রোবটের খরচ বহন করে স্থানীয় কাউন্সিল।

জেলা শিক্ষা কাউন্সিলর টর্সটেন কুয়েহনে বলেন, আমরাই বার্লিনের একমাত্র জেলা যেখানে স্কুলগুলোর জন্য চারটি অ্যাভাটার রোবট কেনা হয়েছে। মূলত কোভিড-১৯ মহামারির বিষয়টি প্রাধান্য দিয়েই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আমার মনে হয়, এটি মহামারির পরেও ভবিষ্যত কাজে লাগবে। 

তিনি জানান, বিভিন্ন কারণে অনেক শিক্ষার্থী সশরীরে ক্লাসে যেতে পারে না। এমন পরিস্থিতিতে এই অ্যাভাটার স্কুলের অংশ হওয়ার সুযোগ দিতে পারে। অন্যান্য রাজ্যের স্কুলগুলোতেও এ প্রকল্প চালুর বিষয়ে রাজনৈতিক পর্যায়ে তিনি কথাবার্তা বলছেন বলেও জানান।

ঢাকা/ফিরোজ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়