ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

ঢাকা লিগ থেকে অনেক অভিজ্ঞতা নিয়ে যাচ্ছি

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৩৫, ৩০ এপ্রিল ২০২২  
ঢাকা লিগ থেকে অনেক অভিজ্ঞতা নিয়ে যাচ্ছি

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ব্যাটে-বলে দারুণ খেলেছেন ভারতীয় অলরাউন্ডার চিরাগ জানি। দল লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে রয়েছে তার বড় ভূমিকা। ব্যাট হাতে ১৫ ম্যাচে ৪৯.৭৫ গড়ে করেছেন ৫৯৭ রান। আর বল হাতে নিয়েছে ২৭ উইকেট। চিরাগ টুর্নামেন্টের তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক আর রানে পঞ্চম। দলটির অধিনায়ক মাশরাফিও বলেছেন, তরুণদের চিরাগের মতো ক্রিকেটারদের কাছ থেকে শেখার আছে। 

রাইজিংবিডির সঙ্গে খোলামেলা আলাপনে চিরাগ জানিয়েছেন ঢাকা লিগে খেলার অভিজ্ঞতা। তরুণদের পরামর্শ দিয়েছেন, সিনিয়রদের থেকে শেখার জন্য। পাঠকদের জন্য সাক্ষাতকারটি তুলে ধরা হল-  

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ কেমন কাটল?

চিরাগ জানি: ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এটি আমার দ্বিতীয় মৌসুম। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ অনেক ভালো করেছে, রানার্সআপ হয়েছে। আমি এই দলের সদস্য ছিলাম। দলকে জেতানোর জন্য ভালো পারফরম্যান্স করার চেষ্টা করেছি আমিও। এজন্য অনেক খুশি। 

চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে নিশ্চয় আরো ভালো লাগতো…

চিরাগ জানি: এটা খেলারই অংশ। কখনো জিতব আবার কখনো হারব। কিন্তু পুরো আসরজুড়ে আমরা ভালো খেলার চেষ্টা করেছি। ইতিবাচক খেলার চেষ্টা করেছি। টুর্নামেন্টের এক ম্যাচ বাকি থাকতে মূলত আমরা ছিটকে গেছি। এর আগে দলটি রেলিগেশনে ছিল, এবার সরাসরি রানার্সআপ। এটা দারুণ কিছু।

উইকেট কেমন মনে হয়েছে এবার?

চিরাগ জানি: ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে দুই ধরনের উইকেট দেখা যায় সাধারণত। ব্যাটিং উইকেট ও স্লো উইকেট। সকালে একটু কঠিন থাকে, এরপর ধীরে ধীরে উইকেট ভালো আচরণ করতে থাকে। টুর্নামেন্টটি আরো চ্যালেঞ্জিং করতে হলে আরো ভালো উইকেট বানাতে হবে। এটাও সম্ভব। যদি স্পিনারদের সঙ্গে উইকেটে মিডিয়াম পেসাররাও সহযোগিতা পায়, তাহলে সব দৃষ্টিকোণ থেকেই ভালো হবে।

তার মানে এবার যেমন উইকেট ছিল তা চ্যালেঞ্জিং ছিল না?

চিরাগ জানি: এটাও চ্যালেঞ্জিং, কিন্তু রান কম হচ্ছে। দুইশর আশপাশই রান হচ্ছে বেশি। উইকেট আরো ভালো করলে ২৫০- এর বেশি নিয়মিত রান হবে, খেলাও চ্যালেঞ্জিং হবে। মোট কথা হলো ভালো উইকেট হলে সবসময়ই ভালো স্কোর হবে।

মাশরাফি-সাকিবের ড্রেসিং রুম শেয়ার করেছেন। কেমন ছিল মুহূর্ত?

চিরাগ জানি: আমি অনেক কৃতজ্ঞ মাশরাফি ভাই ও সাকিব ভাইদের সঙ্গে খেলতে পেরে। তাদের সঙ্গে খেলাটা আমার জন্য একটা বড় সুযোগও বটে। দারুণ মুহূর্ত ছিল। ঢাকা লিগ থেকে অনেক অভিজ্ঞতা নিয়ে যাচ্ছি। ভবিষ্যতেও যদি সুযোগ থাকে, আমি যদি ফ্রি থাকি অবশ্যই খেলব। 

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের সম্ভাবনা কেমন দেখেছেন?

চিরাগ জানি: অনেক ক্রিকেটারই আছে। যাদের কোয়ালিটি ভালো, প্রতিভা আছে। সাধারণত লিস্ট ‘এ’তে বাংলাদেশের ভালো ভালো ক্রিকেটার রয়েছে। গত পাঁচ ছয় বছর ধরে বাংলাদেশ খুব ভালো ক্রিকেটই খেলছে। 

তরুণ ক্রিকেটারদের উদ্দেশে কোনো উপদেশ…

চিরাগ জানি: অনেক তরুণ ক্রিকেটার আসছে, খেলছে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপও জিতেছে বাংলাদেশ। তরুণরাও ভালো খেলছে। আমি আশা করব, তরুণ ক্রিকেটাররা সিনিয়র-অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের কাছ থেকে শিখবে। তাহলে ভবিষ্যতে আরো ভালো ক্রিকেট খেলতে পারবে।

ঢাকা/এনএইচ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়