ঢাকা     বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৯ ||  ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

বাংলাদেশের সামনে কঠিন পথ পাড়ি দেওয়ার চ‌্যালেঞ্জ

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:০০, ১৭ জুন ২০২২   আপডেট: ০৪:২৪, ১৮ জুন ২০২২
বাংলাদেশের সামনে কঠিন পথ পাড়ি দেওয়ার চ‌্যালেঞ্জ

ফাইল ছবি

অস্বস্তিতে দিন শেষ করলো বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৫০ রান। এখনো পিছিয়ে ১১২ রানে। 

দ্বিতীয় ইনিংসে ১৬২ রানের লিড সামনে রেখে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। শুরুটা হয়েছিল সতর্ক। তামিম-জয়ের ব্যাট ছিল সাবধানী। দশম ওভারে আলঝারি জোসেফের শিকার হয়ে তামিম ফিরলে মাঠে আসেন নাইটওয়াচম্যান মিরাজ। তিনিও সুবিধা করতে পারেননি। তামিম ২২ রান করেন। আর মিরাজ ফেরেন ৬ বলে ২ রান করে। দুটি উইকেটই নেন জোসেফ। ৬০ বলে ১৮ রান করে অপরাজিত আছেন মাহমুদুল হাসান জয়। আর শান্ত ২৩ বলে ৮ রান করে অপরাজিত আছেন। শেষ দিকে পায়ের ব্যথায় কাতরাতে দেখা যায় শান্তকে। ফিজিও এসে দেখেন। পরে ব্যাটিং করলেও অস্বস্তি দেখা যায় তার মাঝে। তৃতীয় দিনের শুরুটা বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। দ্রুত উইকেট হারালেই বাড়বে বিপদ। আজ সারাদিনে খেলা হয়েছে ৮৪.৫ ওভার। উইকেট পড়েছে ১০টি। ৮টি ওয়েস্ট ইন্ডিজের আর ২টি বাংলাদেশের। এখনো চালকের আসনে স্বাগতিকরা। 

প্রথম ইনিংসে- বাংলাদেশ: ১০৩/১০ (৩২.৫ ওভার) ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২৬৫/১০ (১১২.৫ ওভার) উইন্ডিজের লিড: ১৬২

দ্বিতীয় ইনিংসে- বাংলাদেশ: ৫০/২ (২০ ওভার)

তামিমের পর আউট নাইটওয়াচম্যান মিরাজ

নাইটওয়াচম্যান হিসেবে শেষ বিকেলে মেহেদি হাসান মিরাজকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু দলের হাল ধরতে পারেননি, উলটো বিপদ বাড়িয়ে ফেরেন সাজঘরে। জোসেফের আউটসাইড অফের এক্সটা বাউন্সে অফে খেলতে চেয়েছিলেন মিরাজ। ব্যাটে বলে ঠিকমতো সংযোগ হয়নি। বল যায় স্লিপে দাঁড়ানো কাইল মায়ার্সের হাতে। ৬ বলে ২ রান করেন মিরাজ। ক্রিজে আসেন নাজমুল হোসেন শান্ত। 

সিলভার দুর্দান্ত ক্যাচে আউট তামিম, নাইটওয়াচম্যান মিরাজ

দলের ৩৩ রানের মধ্যে ২২ ছিল তামিম ইকবালের। মাহমুদুল হাসান জয়ের সঙ্গে দারুণ শুরুর আভাস দিয়েছিলেন। কিন্তু আলঝারি জোসেফের বলে জশুয়া ডি সিলভার দারুণ ক্যাচে থামতে হয় তাকে। জোসেফ এসে প্রথম ওভারেই তামিমকে ফেরান। তার লেন্থ ডেলিভারি ডিফেন্স করতে চেয়েছিলেন তামিম, কিন্তু বল সুইং করে তামিমের ব্যাট ছুঁয়ে যায় উইকেটের পেছনে। বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে বাঁ হাতে তালুবন্দি করেন সিলভা। ৪ চারে ৩১ বলে ২২ রান করেন তামিম। নাইটওয়াচম্যান হিসেবে তিনে ব্যাটিংয়ে আসেন মেহেদি হাসান মিরাজ।

 

তামিম-জয়ে সতর্ক শুরু

অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম ইনিংসে শুরুতে ব্যাটিং করতে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ষোলো রানে পড়ে যায় তিন উইকেট। মাহমুদুল হাসান জয়সহ নাজমুল হাসান-মুমিনুল হক ফেরেন শূন্য রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে তাই সতর্ক শুরু করে বাংলাদেশ। তামিম-জয় খেলতে থাকেন সাবধানে। বল ছাড়ছেন কিংবা ডট দিচ্ছেন। তবে জয় থেকে তামিম কিছুটা মারার চেষ্টাও করছেন। সুযোগ পেলেই পাঠাচ্ছেন বাউন্ডারির বাইরে। দুজনের সতর্ক শুরুতে বাংলাদেশ প্রথম ৯ ওভারে কোনো উইকেট হারায়নি। 

২৬৫ রানে অলআউট উইন্ডিজ, বাংলাদেশের সামনে লিড 

২৬৫ রানে অলআউট  ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশের সামনে লিড দাঁড়ালো ১৬২ রান। ২ উইকেটে ৯৫ রানে দিন শুরু করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আজ দিনে তারা যোগ করে ১৭০ রান। সর্বোচ্চ ৯৪ রান করেন ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। এ ছাড়া ৬৩ রান করেন ব্ল্যাকউড। ২১ বলে ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন অভিষিক্ত গুদাকেশ মোতি। তার এ রান না হলে উইন্ডিজ আড়াইশ রানের আগেই অলআউট হতো। দ্বিতীয় ও তৃতীয় সেশনে বাংলাদেশ দারুণ বোলিং করে। মেহেদি হসান মিরাজ একাই নেন ৪ উইকেট। ২ উইকেট করে নেন খালেদ আহমেদ ও ইবাদত হোসেন। ১টি করে নেন সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান। সাকিব চেয়েছিলেন উইন্ডিজকে আড়াইশ রানের মধ্যে আটকে রাখতে। তার থেকে ১৫ রান বেশি করে স্বাগতিকরা। এবার ব্যাট হাতে বাংলাদেশ লড়াই করতে পারবে? বোলাররা তাদের কাজ করেছেন, এবার দায়িত্ব ব্যাটসম্যানদের। 

সিলসকে ফিরিয়ে মিরাজের চার 

সিলসকে ফিরিয়ে অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম ইনিংসে চতুর্থ উইকেট নিলেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ২২.৫ ওভারে ৫৯ রান দিয়ে এই উইকেটগুলো নেন তিনি। বাংলাদেশের সফল বোলার এই অলরাউন্ডার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বরাবরই দারুণ মিরাজ। এই ৭ টেস্টে নিয়েছেন ৩৯ উইকেট। এ ছাড়া কোনো দলের বিপক্ষে বিশের ঘর পার করেননি। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ১০ উইকেট নিয়েছেন ১ বার আর ৫ উইকেট ৩ বার।

খালেদের বলে মিরাজের দুর্দান্ত ক্যাচে ফিরলেন ব্ল্যাকউড

খালেদ আহমেদের দুর্দান্ত বলে মেহেদি হাসান মিরাজের দুর্দান্ত ক্যাচে সাজঘরে ফিরলেন ব্ল্যাকউড।  তার আউটসাইড অফের লেন্থ ডেলিভারিতে এক্সট্রা কাভারে খেলেন ব্ল্যাকউড। বাঁ দিকে ডাইভ দিয়ে বল তালুবন্দি করেন মিরাজ। ৬৩ রান করেন ব্ল্যাকউড। এটি উইন্ডিজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান। ব্র্যাথওয়েট ফেরার পর ব্ল্যাকউড ছিলেন পটের কাঁটা হয়ে। তাকে ফিরিয়ে স্বস্তি এনে দিলেন খালেদ। 

এসেই আক্রমণাত্বক গুদাকেশ, উইন্ডিজের লিড দেড়শ 

মেহেদি হাসান মিরাজকে চার মেরে টেস্ট ক্রিকেটে রানের খাতা খোলেন গুদাকেশ মোতি। পরের ওভারে ইবাদতকে আবার দুই চার। মাঠে এসেই আক্রমণাত্বক খেলছেন লেজের ব্যাটসম্যান গুদাকেশ। তাতে উইন্ডিজের রান আড়াইশ পার হয়, লিড হয় দেড়শ। ব্ল্যাকউড ৬৩ ও গুদাকেশ ১৫ রানে অপরাজিত আছেন। বাংলাদেশের প্রয়োজন আর ২ উইকেট। 

মিরাজের ঘূর্ণিতে এবার পরাস্ত জোসেফ

মেহেদি হাসান মিরাজের ঘূর্ণিতে এবার পরাস্ত হলেন আলঝারি জোসেফ। মিরাজের লেন্থ ডেলিভারি টার্ন করে যায় আউটসাইড অফের দিকে। বলের লাইন বুঝতে না পেরে আড়াআড়ি ভাবে খেলতে গিয়ে ভুল করলেন জোসেফ। বল ব্যাট ছুঁয়ে যায় সোহানের গ্লাভসে। ১৫ বল খেলে কোনো রান করতে পারেননি জোসেফ। মিরাজের এটি তৃতীয় শিকার। 

মিরাজ-খালেদে বাংলাদেশের দারুণ সেশন

অ্যান্টিগা টেস্টের দ্বিতীয় দিন দ্বিতীয় সেশন বাংলাদেশের দারুণ কেটেছে। এই সেশনে উইন্ডিজের তিন উইকেট নেয় সাকিব আল হাসানের দল। ক্যারিবিয়ানরা রান করে ৭২টি। উইকেটের মধ্যে ছিলেন দারুণ খেলতে থাকা উইন্ডিজ অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটও। ২ উইকেট নেন মিরাজ আর ১ উইকেট নেন খালেদ আহমেদ। দ্বিতীয় সেশন শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৩১ রান। বাংলাদেশের সামনে লিড ১২৮। ৫৩ রানে ব্ল্যাকউড ও শূন্যরানে আলঝারি জোসেফ অপরাজিত আছেন। তৃতীয় সেশনে দ্রুত ব্ল্যাকউডকে ফেরাতে পারলে কম রানে আটকানো যাবে স্বাগতিকদের। এর আগে যাওয়া ৪টি সেশন বাংলাদেশের ভালো যায়নি। ব্যাটিং কিংবা বোলিং ক্রিকেটাররা ছিলেন ব্যর্থ। আজ দিনের প্রথম সেশনেও বাংলাদেশ ভুল করেছিল ৩টি! 

মায়ার্সের পর মিরাজের শিকার সিলভা

কাইল মায়ার্সের পর নতুন ব্যাটসম্যান জশুয়া ডি সিলভাকেও সাজঘরে পাঠালেন মিরাজ।  আউটসাইড অফের বল বুঝে উঠতে পারেননি সিলভা। বলের লাইন মিস করায় তার ব্যাট ছুঁয়ে যায় উইকেটের পেছনে। ক্যাচ ধরতে ভুল করেননি সোহান। ৯ বলে ১ রান করেন সিলভা।  পরপর দুই ওভারে দুই উইকেট নিলেন মিরাজ। 

ব্ল্যাকউডের ষোলোতম ফিফটি 

ইবাদত হোসেনের আউট সাইড অফে করা ফুলার লেন্থ ডেলিভারিকে দারুণ শটে কাভার দিয়ে বাউন্ডারির বাইরে পাঠান ব্ল্যাকউড। তাতে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান দেখা পান টেস্ট ক্রিকেটের ষোলো তম ফিফটি। ১২১ বলে এই ফিফটি করেন ব্ল্যাকউড। 

মায়ার্সকে ফেরালেন মিরাজ

কাইল মায়ার্সকে এলবিডব্লিউ করে সাজঘরে পাঠালেন মেহেদি হসান মিরাজ। যদিও আম্পায়ার শুরুতে আউট দেননি। বাংলাদেশ রিভিউ নিলে সেটি পক্ষে আসে। এই প্রথম রিভিউ থেকে সফলতা পেল বাংলাদেশ। ২৪ বলে ৭ রান করেন মায়ার্স। ব্ল্যাকউডের সঙ্গী জশুয়া সিলভা। 

৬ রানের আক্ষেপ ব্র্যাথওয়েটের, শতরান পেরিয়ে উইন্ডিজের লিড 

৬ রানের জন্য ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট সেঞ্চুরির দেখা পাননি। তাকে ফেরান খালেদ আহমেদ। তার লেন্থ ডেলিভারিতে ব্যাকে গিয়ে অনসাইডে খেলতে চেয়েছিলেন উইন্ডিজ অধিনায়ক। কিন্তু বল ব্যাট মিস করে লাগে প্যাডে। জোরালো আবেদনে সাড়া দেন আম্পায়ার। ব্র্যাথওয়েট রিভিউ নেওয়ার চেষ্টা করেননি। প্রথম দিন থেকে বাংলাদেশকে ভোগানো ব্র্যাথওয়েট থামেন ৯৪ রানে। ২৬৮ বলে ৯ চারে এই ইনিংসটি সাজিয়েছেন তিনি।  ব্র্যাথওয়েটের আউটের পর উইন্ডিজের লিড শতরান পার হয়। ৯০.২ ওভারে দলটি দুইশ পার করে।  ক্রিজে ব্ল্যাকউডের নতুন সঙ্গী কাইল মায়ার্স।

 উইন্ডিজের লিড বাড়ছে, উইকেটের খোঁজে বাংলাদেশ

প্রথম সেশনে মাত্র ১টি উইকেট নিতে পেরেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত উইকেটের দেখা পাচ্ছে না সফরকারীরা। দিনের তেত্রিশতম ওভারে নতুন বল পায় বাংলাদেশ। মোস্তাফিজকে দিয়ে শুরু করেন সাকিব। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। সাইডলাইনে এসে খালেদকে টিপস দিতে দেখা গেছে অ্যালান ডোনাল্ডকে। দিনের একমাত্র উইকেট স্পিনারের দখলে। এদিকে ব্র্যাথওয়েট আছেন সেঞ্চুরির পথে। এখন পর্যন্ত উইন্ডিজের লিড দাঁড়িয়েছ ৮৯। 

প্রথম সেশনে মিসের মহড়া, উইন্ডিজের লিড ৫৬

প্রথমে সেশনে সাকিব আল হাসানের উইকেট ছাড়া বাংলাদেশের জন্য স্বস্তির কিছু নেই। এ ছাড়া আছেন তিনটি মিস। দুটি ক্যাচ মিসের সঙ্গে একটি ক্যাচের আবেদনই করেনি বাংলাদেশ। প্রথম সেশন শেষে উইন্ডিজের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৫৯ রান। বাংলাদেশের সামনে লিড ৫৬। এই সেশনে উইন্ডিজ করে ৬৪ রান। ব্র্যাথওয়েট ৭৫ ও ব্ল্যাকউড ৯ রানে অপরাজিত আছেন। ১টি উইকেট নেন সাকিব। 

এবার মিস ব্র্যাথওয়েটের ক্যাচ

মিরাজের করা ৬৮তম ওভারের তৃতীয় বলে ব্যাকফুটে ফ্লিক করতে চেয়েছিলেন ব্র্যাথওয়েট। শর্ট লেগে ক্যাচ উঠলেও সময়মতো হাত দিয়ে পারেননি ফিল্ডার মাহমুদুল হাসান জয়। ২ রান নেন ব্র্যাথওয়েট। ৬৩ রানে আবার জীবন পেলেন উইন্ডিজ অধিনায়ক। 

সেই বোনারকে ফেরালেন সাকিব 

দ্বিতীয় দিনে এসে প্রথম উইকেটের দেখা পেলেন সাকিব আল হাসান। ৬৩তম ওভারের শেষ বলে এনক্রুমা বোনারকে বোল্ড করলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। ২২ রানেই জীবন পেয়েছিলেন বোনার। সেই বোনার এবার সাকিবের বলে পরাস্ত হলেন। অফ সাইডে পিচ করা বল বুঝতে পারেননি এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। বল ব্যাট ছুঁয়ে চলে যায় স্ট্যাম্পে। ৯৬ বলে ৩৩ রান করেন বোনার। ক্রিজে ব্র্যাথওয়েটের সঙ্গী ব্ল্যাকউড। 

ক্যাচ ধরার কোনো চেষ্টাই করেননি শান্ত!

এমনিতেই উইকেটের দেখা পাচ্ছে না বাংলাদেশ। তার মধ্যে নিশ্চিত ক্যাচের আবেদন না করা এবং ফিল্ডিং মিস হয়েই চলছে। এবার নাজমুল হোসেন শান্ত যা করলেন তা অবিশ্বাস্য। খালেদ আহমেদের করা ৫৮তম ওভারের চতুর্থ বল।  শর্ট অব লেন্থের বল বোনারের ব্যাট ছুঁয়ে যায় প্রথম স্লিপের দিকে। সেখানে থাকা শান্ত নড়াচড়াই করেননি, তাকিয়ে থাকেন বলের দিকে। বল চলে যায় বাউন্ডারির বাইরে। ২২ রানে জীবন পান বোনার। 

ব্র্যাথওয়েটের ফিফটি

দিনের ১১তম ওভারে ফিফটির দেখা পেলেন ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। সাকিবের বলে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ঠেলে সিঙ্গেল নিয়ে ১৭৪ বলে ফিফটি হাঁকান উইন্ডিজ অধিনায়ক। ৪৩ রানে দিন শুরু করেছিলেন তিনি। 

নিশ্চিত আউটের রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ, উইন্ডিজের লিড

ইবাদত হোসেনের করা দিনের পঞ্চম ওভারের শেষ বল। আউট সাইড অফের বল বোনারের ব্যাট ছুঁয়ে যায় উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান সোহানের গ্লাভসে। বল ব্যাটে লাগলেও বাংলাদেশ কোনো আবেদনই করেনি। টিভি ধারাবাষ্যকাররা এতে আশ্চর্য হন। এর ১ ওভার পরেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ লিড নেয়। ইবাদতকে চার মেরে বাংলাদেশের ১০৩ টপকে যায় ক্যারিবিয়ানরা। ৮ রানে পিছিয়ে থেকে দিন শুরু করেছিল তারা। 

উইন্ডিজকে আড়াইশ রানে আটকে দেওয়ার লক্ষ্যে মাঠে বাংলাদেশ 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অ্যান্টিগা টেস্টের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার (১৭ জুন) মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। ৮ রানে পিছিয়ে থেকে দিন শুরু করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্র্যাথওয়েট ৪৩ ও বোনার ১২ রানে অপরাজিত আছেন। বাংলাদেশের লক্ষ্য স্বাগতিকদের আড়াইশ রানে আটকে দেওয়া। 

লক্ষ্য আড়াইশ রানে আটকে দেওয়া

ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ভরাডুবি। ছয় ব্যাটসম্যানের শূন্যের মাঝে কেবল ঝলমলে ইনিংস খেলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। লাঞ্চের কিছুর সময় পর ১০৩ রানে অলআউট হয় তারা। তবে বাংলাদেশের পেসাররাও মন্দ করছে না। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক সাকিব জানালেন আশাবাদী প্রত্যয়।

প্রথম দিনের পর সাকিব সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘টিমের দুইটা অপশন আছে। আমরা ছেড়ে দিয়ে খেললাম, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ওদের মতো যত ইচ্ছা রান করলো। আর আমরা দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করে শেষ হয়ে গেলো।’ কিন্তু প্রতিপক্ষকে আড়াইশর মধ্যে থামানোর লক্ষ্য জানালেন অধিনায়ক, ‘আরেকটা অপশন হচ্ছে, একশ-দেড়শ-দুইশ, এমনকি আড়াইশ রানের মধ্যে তাদের যদি প্রথম ইনিংসে অলআউট করতে পারি। তখন আমরা দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো ব্যাটিং করি, তাহলে শেষ ইনিংসে কী হতে পারে তা আমরা জানি না। প্রতিদিনই নতুন। সেই একটা সুযোগ আমাদের কাছে আছে।’

হতাশার প্রথম দিন 

অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম দিন কেটেছে হতাশায়। দেড় সেশনে ১০৩ রানে অলআউটের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২ উইকেটে বেশি নিতে পারেনি। অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম দিন শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৯৫ রানে। ৮ রানে পিছিয়ে দিন শেষ করে তারা। দারুণ অবস্থায় প্রথম দিনের ইতি টেনেছে স্বাগতিকরা। স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা খেলছেন পূর্ণ টেস্ট মেজাজে। কোনো তাড়াহুড়ো নেই তাদের। একের পর এক ডট বল দিয়েছেন, বল ছেড়েছেন। তারই পুরষ্কার স্বরূপ দিন শেষে স্বস্তিতে তারা। ১৪৯ বলে ৪২ রানে ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ও ৪৩ বলে এনক্রুমা বোনার ১২ রানে অপরাজিত আছেন। যদিও ব্র্যাথওয়েট শূন্য রানে ফিরতে পারতেন মুমিনুল ক্যাচ মিস না করলে। জন ক্যাম্পবেল ২৪ ও রেইফার ১১ রান করে আউট হন। বাংলাদেশের হয়ে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন ইবাদত হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান। উইন্ডিজের রান পাহাড়ে চাপা পড়তে না চাইলে বাংলাদেশের বোলারদের দ্বিতীয় দিনের শুরুতে দ্রুত উইকেট নিতে হবে। এ ছাড়া নেই কোনো বিকল্প। 

ঢাকা/রিয়াদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়