ঢাকা     শনিবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১২ ১৪৩০

নিজেদের পাতা ফাঁদে বন্দি হলো বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১৯, ৬ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৫:৪৪, ৬ ডিসেম্বর ২০২৩
নিজেদের পাতা ফাঁদে বন্দি হলো বাংলাদেশ

১৪, ৮, ৯ ও ৫! এই সংখ্যাগুলো নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের প্রথম চার ব্যাটারের রান। শুরুতেই চারজনের এমন আউট আভাস দিয়েছিল বাংলাদেশের দিনটা কেমন হতে পারে। শেষ পর্যন্ত তাই হলো। মাঝে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম অবস্ট্র্যাকটিং দ্য ফিল্ড আউটের সাক্ষী হতে হলো। 

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার (৬ ডিসেম্বর) টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৭২ রানে অলআউট হয়। সর্বোচ্চ ৩৫ রান আসে মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে। দিন শেষে তার আউটই হয়ে দাঁড়িয়েছে আলোচ্য বিষয়! 

কাইল জেমিসনের বল ডিফেন্স করলেন ঠিকঠাকভাবে। এরপর মুশফিক যা করলেন তা স্বয়ং মুশফিকই ভুলে যেতে চাইবেন। ডিফেন্সের পর বল চলে যাচ্ছিলো বাইরের দিকে, কিন্তু মুশফিক হাত দিয়ে বল ঠেকান। এতে বাঁধে বিপত্তি। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে অবস্ট্র্যাকটিং দ্য ফিল্ড আউট হয়ে ফেরেন সাজঘরে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১১তম এবং টেস্টে ৮ম ব্যাটার হিসেবে এমন আউট হন মুশফিক। 

অথচ ব্যাটিং ধসের পর শাহাদাত হোসেন দিপুকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন মুশফিক। দুজনের সাবলীল ব্যাটিং দলকে দিচ্ছিলো স্বস্তি। তার আউটে ভেঙে যায় ৫৭ রানের জুটি। মুশফিকের আউটের পর শাহাদাতও আরে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। তার ব্যাট থেকে আসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩১ রান। 

শুরুতে মাহমুদুল হাসান জয়-জাকির হাসানকে নড়বড়ে দেখালেও প্রথম ১০ ওভার কাটিয়ে দিয়েছিলেন। এগারো ওভার থেকে ধসের শুরু। ২৭ বলের ব্যবধানে সাজঘরে ফিরলেন জয় (১৪) জাকির (৮) মুমিনুল হক (৫) ও নাজমুল হোসেন শান্ত (৯)। সেই ধাক্কা সামলে মুশফিক-শাহাদাত লড়াইয়ের আভাস দিলেও, শেষ পর্যন্ত মুশফিকের আউটে আর তা হয়নি। 

মেহেদি হাসান মিরাজ থিতু হয়ে ২০ রানে ফেরেন সাজঘরে। ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন নাইম হাসান। ৭ রানের বেশি আসেনি নুরুল হাসানের ব্যাট থেকে। ১০ রান করেন শরিফুল ইসলাম। 

 বাংলাদেশের একাদশ দেখেই স্পষ্ট ছিল মিরপুরের পিচ বরাবরের মতো হতে যাচ্ছে স্পিন স্বর্গ। শেষ পর্যন্ত তাই হলো এবং নিজেদের ফাঁদে যেন নিজেরাই পড়লো। তিন স্পিনার মিচেল স্যান্টনার-গ্লেন ফিলিপস-অ্যাজাজ প্যাটেলের ঝুলিতে জমা হয় ৮ উইকেট। স্যান্টনার-ফিলিপস নেন সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট।

ঢাকা/রিয়াদ/বিজয়

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়