ঢাকা     বুধবার   ২৯ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

অবশেষে লিটনের ফিফটি, তাওহীদের ঝড়

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪১, ২২ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৬:৪৫, ২২ এপ্রিল ২০২৪
অবশেষে লিটনের ফিফটি, তাওহীদের ঝড়

রান খরায় ওয়ানডে সিরিজের মাঝপথে বাদ পড়েছিলেন। প্রধান নির্বাচক পরামর্শ দিয়েছিলেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলতে। এক ম্যাচ খেলে আবার যোগ দেন টেস্ট দলে। সেখানেও ব্যর্থ। ঢাকা লিগেও ফিরে রান পাচ্ছিলেন না। এরপর ছুটি নিয়ে বিশ্রামে। সবশেষ দেড় মাস লিটন দাস নিশ্চিতভাবে ভুলে যেতে চাইবেন।

অবশেষে সবধরণের প্রতিযোগগিতামূলক ক্রিকেটে ১১ ইনিংস পর ফিফটির দেখা পেয়েছেন লিটন। সবশেষে ফিফটি ছিল বিপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে, ফেব্রুয়ারির শেষে। লিটনের ফিফটি আর তাওহীদ হৃদয়ের ঝড়ে ভর করে সুপার লিগের প্রথম ম্যাচে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে দাপুটে জয় পেয়েছে আবাহনী লিমিটেড।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ১৭৮ রানে অলআউট হয় প্রাইম ব্যাংক। তাড়া করতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৮.৩ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আবাহনী।

ওপেনিংয়ে নেমে লিটন ১০৬ বলে ৫৬ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। তার ইনিংসটি ছিল ধীরগতির। ফিফটির দেখা পান ৭৬ বলে। ইনিংসে চারের মার ছিল ৭টি। খেলেছেন দেখেশুনে, কোনো অহেতুক শট খেলতে যাননি। দল যখন জয়ের দ্বারপ্রান্তে তখনো লিটন ছিলেন ঠাণ্ডা মেজাজে। 

লিটন ছাড়া ফিফটির দেখা পেয়েছেন তাওহীদ হৃদয়। মাত্র ২৭ বলে ৪টি চার ও ৫টি ছয়ের মারে প্রাইম ব্যাংকের বোলারদের এলোমেলো করে ৫৫ রান করেন হৃদয়। ফিফটি পান মাত্র ২৩ বলে।

এ ছাড়া এনামুল হক বিজয় ও নাজমুল হোসেন শান্ত সমান ২২ ও জাকের আলী অনিক ১২ রান করেন। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে দুটি করে উইকেট নেন সানজামুল ইসলাম ও শেখ মেহেদী হাসান।

এর আগে ব্যাটিং করতে নেমে শরিফুল ইসলাম-তাসকিন আহমেদদের তোপে শুরু থেকে উইকেট হারাতে থাকে প্রাইম ব্যাংক। পারভেজ হোসেন ইমন (০), শাহাদাত হোসেন দিপু (৪) ও তামিম ইকবাল (১) ফেরেন শুরুতে। মাত্র ৫ রানে দলটি ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে। 

এরপর জাকির হাসান-মুশফিকুর রহিম দলের হাল ধরেন। দুজনে জুটি গড়ে এগোতে থাকেন। মুশফিকের আউটে ১১২ রানে ভাঙ্গে জুটি। তার ব্যাট থেকে আসে ৪৪ রান। অপর প্রান্তে থাকা জাকির তুলে নেন ফিফটি। অবশ্য ফিফটির পর বেশিদূর যেতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৬৮ রান আসে তার ব্যাট থেকে। জাকিরের আউটের পর সবমিলিয়ে ৪২ রান করতে পারে প্রাইম ব্যাংক। 

আবাহনীর হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন শরিফুল। ম্যাচসেরার পুরস্কার ওঠে তার হাতে। ২টি করে উইকেট নেন তাসকিন আহমেদ ও তানভীর ইসলাম।

এই জয়ে শিরোপার পথে বর লাফ দিয়েছে আবাহনী। লিগ পর্বে ৬ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে সুপার লিগে পা রাখে ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। সুপার লিগে প্রথম ম্যাচে জয় শিরোপার আরও কাছে গিয়েছে আবাহনী। অন্যদিকে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে সুপার লিগে আসা প্রাইমব্যাংক প্রথম ম্যাচে মাঠ ছেড়েছে প্রাইম ব্যাংক।

রিয়াদ/আমিনুল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়