ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২০ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলবাগান নিয়ে কী ঘটছে!

মেহেদী হাসান ডালিম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-০৫ ২:২৭:০৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-১৫ ৯:১০:১৮ এএম

রাবি সংবাদদাতা: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আম ও লিচু বাগানের ৭টির মধ্যে ৩টিই প্রভাবশালী ছাত্রনেতাদের দখলে। এসব বাগানের ফল তারা বাজারে বিক্রি করে দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগের তদন্তে রাবি উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহাকে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটিও গঠন করা করেছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সহকারী প্রক্টর ড. মো. হাসানুর রহমান, ড. মো. রওশন জাহিদ ও মো. হুমায়ুন কবির। ঈদের পরেই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাস্পাসকে ৭ ভাগে ভাগ করে প্রতি বছর আম, লিচু ও কাঁঠাল গাছগুলো ফলের মৌসুমে টেন্ডার দেওয়া হয়। চলতি বছর বিনোদপুর গেট, প্রশাসন ভবনের পেছনে, পশ্চিমপাড়া এবং গোরস্থান এলাকার চারটি ব্লক টেন্ডার হয়। অন্য তিনটি ব্লকের টেন্ডার আহ্বান করা হলেও তা জমা দিতে ঠিকাদারদের বাধা দেয় ছাত্রলীগ নেতারা। ফলে টেন্ডারবিহীন থাকে মমতাজ উদ্দিন ভবন, শহীদুল্লাহ কলা ভবন এবং রাকসু ভবনের সামনের বাগানগুলো। এই তিনটি বাগান দখলে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে ছাত্রলীগের তিন নেতার বিরুদ্ধে।

জানা যায়, গত ২১ মে তদন্ত কমিটি অভিযুক্ত দুই নেতাকে নোটিশ পাঠান। ৭ দিনের মধ্যে তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের জবাব দিতে বলা হয়। ২৯ মে ছাত্রলীগের ওই দুই নেতা তদন্ত কমিটিকে লিখিত জবাবও দিয়েছেন। জবাবে নেতারা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তারা দাবি করেন, আনীত অভিযোগগুলোর সঙ্গে তারা কোনোভাবে জড়িত নয়।




রাইজিংবিডি/রাবি/৫ জুন ২০১৮/মেহেদী হাসান/টিপু

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC