ঢাকা, রবিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, ২০ আগস্ট ২০১৭
Risingbd
শোকাবহ অগাস্ট
সর্বশেষ:

সিনেমা হল বন্ধের হুঁশিয়ারি

রাহাত সাইফুল : রাইজিংবিডি ডট কম
প্রকাশ: ২০১৭-০৬-১৯ ১:৫৮:৪৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৬-১৯ ৭:৩৫:৫২ পিএম
সংবাদ সম্মেলনের দৃশ্য

বিনোদন প্রতিবেদক : ঈদুল ফিতরে সিনেমা হল বন্ধের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন হল মালিক সমিতি, প্রদর্শক সমিতি ও বুকিং এজেন্ট নেতারা। রোববার (১৮ জুন) রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি দেন।

ঈদে মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘বস-২’ ও ‘নবাব’ সিনেমার মুক্তি নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। এ সিনেমা দুটি যৌথ প্রযোজনার সঠিক নিয়ম নীতি না মেনে নির্মাণ করা হয়েছে বলে চলচ্চিত্র ঐক্যজোট সিনেমা দুটি মুক্তির বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামে। এর প্রতিবাদে গতকাল সংবাদ সম্মেলন করেন হল মালিক সমিতি, প্রদর্শক সমিতি ও বুকিং এজেন্ট নেতারা।

চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা সুদীপ্ত জানান, গত কয়েক বছর ধরে ঈদে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত বেশ কিছু সিনেমা ব্যবসা সফল হয়েছে। এছাড়া গত ঈদে এ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ‘শিকারি’ ও ‘বাদশা- দ্য ডন’ যৌথ প্রযোজনার সিনেমা দু'টো দেখার জন্য হলে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড় ছিল। সারা বছর ব্যবসায়িক ক্ষতির মধ্যে দিয়েই ব্যবসা করতে হচ্ছে। ঈদ এলে এই ক্ষতির পরিমাণ কমিয়ে আনার একটা সুযোগ তৈরি হয়।

তিনি আরো জানান, আমাদের প্রত্যাশা এবার ঈদেও যৌথ প্রযোজনার 'নবাব' ও 'বস টু' সিনেমা ভালো ব্যবসা করবে। যে কারণে আমরা সিনেমা দুটিতে টাকাও লগ্নি করেছি। কিন্তু অনিয়মের অভিযোগ এনে সিনেমা দুটি মুক্তিতে বাধা দেয়ার চেষ্টা করছে একটি মহল। যদি এ সিনেমা দুটি মুক্তি না দেয়া হয়- দরকার হলে ঈদে আমরা সিনেমা হল বন্ধ রাখব।

এ সময় জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ বলেন, ‘ঈদে জাজের দুটি সিনেমাই মুক্তি পাবে। ১টি সিনেমা আমরা মুক্তি দেব না, দিলে দুটিই মুক্তি দেব। আর যদি ‘নবাব’, ‘বস টু’ মুক্তি দিতে না পারি তাহলে আমার ১২টি সিনেমা হল রয়েছে তা বন্ধ করে দেব।’

তিনি আরো বলেন, ‘এ দুটি সিনেমায় ক্যামেরাম্যান, কাহিনিকার, অভিনয়শিল্পী সবকিছুতেই দুই দেশের শিল্পীদের সমানভাবে রাখা হয়েছে। তাহলে এ আন্দোলন কেন?’

শাকিব খান বলেন, ‘যৌথ প্রযোজনার সব নিয়ম মেনেই ‘নবাব’ সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে। তাহলে কেন নবাব সিনেমার মুক্তি বন্ধের দাবিতে আন্দোলন করছেন। আমার প্রশ্ন হলো- তারা কিসের ভিত্তিতে আন্দোলন করছেন। অযথা এসব আন্দোলন না করে কাজে মনোযোগ দিন।’

সংবাদ সম্মেলনে বুকিং এজেন্ট নেতা ও প্রদর্শক সমিতির নেতাদের প্রশ্ন করা হয় 'নবাব' এবং 'বস টু'র বাইরে ঈদে মুক্তি প্রতীক্ষিত 'রাজনীতি' ও 'রংবাজ' সিনেমার নায়কও শাকিব খান। দু'টো সিনেমাই বিগ বাজেটের। যদি 'নবাব' ও 'বস টু' মুক্তি না পায় আপনারা সিনেমা হল বন্ধ রাখবেন বলছেন। তাহলে বাকি যে সিনেমা রয়েছে ওই সিনেমাগুলোর ক্ষতির ভার কে নেবে? এ প্রশ্ন শোনে বুকিং এজেন্ট ও প্রদর্শক সমিতির নেতারা চটে যান। সংবাদকর্মীরাও প্রশ্নের সঠিক জবাব না পেয়ে একের পর এক প্রশ্ন করতে থাকেন। এ সময় অনুষ্ঠানস্থলে সাময়িক উত্তেজনা তৈরি হয়। এমন পরিস্থিতিতে জাজের কর্ণধার আবদুল আজিজ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার নওশাদ, উপদেষ্টা সুদীপ্ত,  বুকিং এজেন্ট সমিতির সভাপতি সরয়ার আলী দিপু, চলচ্চিত্র প্রযোজক মোহাম্মাদ ইকবাল, নায়ক শাকিব খান, আরিফিন শুভ, ফেরদৌস, নায়িকা পিয়া বিপাশা, বিপাশা কবির, মিষ্টি জান্নাত, মেঘলা, অভিনেতা নাদের চৌধুরী, শিবা, অমিত হাসান, জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ, জাজের সিইও আলিমুল্লাহ খোকনসহ অনেকে।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ জুন ২০১৭/রাহাত/শান্ত

Walton Laptop