ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

দুর্নীতির অভিযোগ নাকচ করলেন মেয়র আরিফ

আব্দুল্লাহ আল নোমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-১৯ ৭:৪৯:৫৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-২০ ৮:১৬:১৮ এএম
Walton AC 10% Discount

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ভবন নির্মাণের সময় ঠিকাদারের কাছ থেকে টাকা আত্মসাৎসহ দুর্নীতির যে অভিযোগ উঠেছে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। নগরীর উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে একটি কুচক্রি মহল এমন অপপ্রচার চালাচ্ছে বলেও দাবি তার।

মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন করে মেয়র আরিফুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির  অভিযোগ আনা হয়। ‘প্রদীপ্ত সিলেট’ নামের একটি সংগঠনের ব্যানারে মানববন্ধনে  প্রতিকী আত্মাহুতি দেন দুর্নীতির শিকার বলে দাবি করা ব্যবসায়ী সঞ্জয় রায়।

এর প্রেক্ষিতে সিসিকের কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে বিকেলে নগর ভবনে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে মেয়র আরিফ বলেন, ‘তার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ তোলা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ বানোয়াট ও মিথ্যা। যারা এসব অভিযোগ তুলছে তারা সিসিকের তালিকাভুক্ত কোনো ঠিকাদারও নন।’

মানববন্ধনে সঞ্জয় রায় দাবি করেন, ‘নগর ভবন নির্মাণ কাজের ৫ শতাংশ বাকি থাকাবস্থায় মেয়র আরিফ তার দুই কোটি ৬৬ লাখ টাকার চূড়ান্ত বিল এবং তার জামানতের টাকা আত্মসাত করেন। এছাড়া তাকে নানাভাবে ভয়ভীতিও দেখিয়ে আসছেন মেয়র।’

এমন দাবির প্রেক্ষিতে মেয়র আরিফ বলেন, ‘সঞ্জয় রায় সিসিকের তালিকাভুক্ত কোনো ঠিকাদার নয়। তাই তার এ দাবি অবাস্তব ও মিথ্যা। এছাড়া নগর ভবন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান মাহবুব ব্রাদার্স কাজ শেষ হওয়ার পর তাদের পাওনাসহ সরকারি বিধি অনুসারে জামানতের টাকাও নিয়ে গেছে। এ প্রতিষ্ঠানের কেউ মানববন্ধনে ছিলেন না।’

তিনি আরও দাবি করেন, ‘মানববন্ধনের আয়োজক প্রদীপ্ত সিলেট’ সংগঠনের উদ্যোক্তা সুশান্ত দাস গুপ্ত সিলেট নগরী এমনকি সিলেট জেলারও বাসিন্দা নন।’

মেয়র আরিফ বলেন, নগরীর উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে কুচক্রি মহল আমার ও আমার পরিষদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।  অপপ্রচার রোধে সবার আন্তরিক সহযোগিতার পাশাপাশি গোয়েন্দা সংস্থাসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের সহযোগিতা চান তিনি।



রাইজিংবিডি/সিলেট/১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/আব্দুল্লাহ আল নোমান/শাহেদ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge