ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিট পুলিশিংয়ে পাল্টে যাচ্ছে গ্রামের চিত্র

মামুন চৌধুরী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৯ ১১:০০:২৪ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১৯ ১১:০০:২৪ এএম

হবিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন গ্রাম ও পাড়ায় শান্তি রক্ষা ও দাঙ্গা হ্রাস করতে বিট পুলিশিংয়ের ভূমিকা গুরুত্ববহন করছে।

বিট পুলিশিংয়ের ফলে শায়েস্তাগঞ্জ, লাখাই ও হবিগঞ্জ সদরের গ্রামের চিত্র ক্রমেই পাল্টে যাচ্ছে।

হবিগঞ্জ সদর সার্কেল অফিসের আওতাধীন হবিগঞ্জ সদর, শায়েস্তাগঞ্জ ও লাখাই উপজেলার ২১টি ইউনিয়ন এবং পৌরসভায় বিট পুলিশিং কমিটি রয়েছে।

প্রত্যেকটি কমিটির জন্য সংশ্লিষ্ট থানার একজন এসআই দায়িত্ব পালন করছেন। গ্রামে কোন সমস্যা দেখা দিলে বিট পুলিশিংয়ের দায়িত্বে থাকা এসআইকে খবর দেওয়া হয়। তিনি তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

এছাড়া কমপক্ষে মাসে চারবার দায়িত্বরত এসআই কমিটির লোকজনের সাথে আলাপ আলোচনায় বসেন।

জানা গেছে, হবিগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে হবিগঞ্জ সদর, শায়েস্তাগঞ্জ ও লাখাই উপজেলার ২১টি বিট পুলিশিং কমিটি সক্রিয়ভাবে কাজ করছে। 

বিট পুলিশিংয়ের গতিশীল কার্যক্রমে লোকজন আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হচ্ছেন। দাঙ্গা থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন। এলাকায় চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, হত্যাকাণ্ডসহ নানা অপরাধ প্রবণতা হ্রাস পেয়েছে।

সুন্দর দেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে হবিগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘পুলিশ সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ আর পুলিশ হলো জনগণের সেবক। পুলিশের দায়িত্ব নিরাপত্তা দেওয়া। নিরাপদ দেশ গড়ার জন্য নিরাপত্তা দেওয়া একা পুলিশ বাহিনীর পক্ষে সম্ভব না। সমাজের সকল শ্রেণির মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনে তথ্য দিয়ে পুলিশকে যদি সহযোগিতা করে তবে নিরাপদ সমাজ গড়ে তোলা সম্ভব।’

তিনি আরো বলেন, ‘জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বিট পুলিশ কর্মকর্তার দায়িত্ব হলো তার এলাকার সবার সাথে যোগাযোগ রাখা এবং তাদের জননিরাপত্তা বিষয়ক কোন সমস্যা আছে কি না সে সর্ম্পকে অবগত হওয়া। পুলিশ ও জনতা ঐক্যবদ্ধ হলে মাদক, চাঁদাবাজি, ইভটিজিং এবং সন্ত্রাস কোন কিছুই থাকবে না।’

শায়েস্তাগঞ্জের সাবাসপুর গ্রামের বাসিন্দা জামাল আহমেদ দুলাল রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘বিট পুলিশিংয়ের কার্যক্রম থাকায় গ্রামের সামাজিক পরিবেশ পাল্টে গেছে। অপরাধ প্রবণতা হ্রাস পেয়েছে। গ্রামে গ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠা হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে হলে বিট পুলিশিং কার্যক্রমকে আরো এগিয়ে নেওয়া প্রয়োজন।’



হবিগঞ্জ/মো.মামুন চৌধুরী/জেনিস

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন