RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ২ ১৪২৭ ||  ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

‘আমার সঙ্গে শত্রুতা আছে, কলার সঙ্গে তো নেই’

মেহেরপুর সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২২, ১০ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ০৯:১৩, ১১ অক্টোবর ২০২০
‘আমার সঙ্গে শত্রুতা আছে, কলার সঙ্গে তো নেই’

মেহেরপুর সদর উপজেলার আমদহ ইউনিয়নের আশরাফপুর শিশির মাঠে তিন বিঘা জমির অপরিপক্ব কলার কাঁদি কেটে মাটিতে ফেলে রেখে গেছে। শুক্রবার (৯ সেপ্টম্বর) দিবাগত রাতের কোন এক সময় এ তাণ্ডব চালানো হয়। সকালে ক্ষেতে গিয়ে এ ঘটনা দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন কৃষক আশরাফুল হক। এ বিষয়ে মামলা হলেও শনিবার নাগাদ কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। 

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক কথা বলতে পারছিলেন না, শুধু বললেন, ‘আমার সঙ্গে শত্রুতা আছে, কলার সঙ্গে তো নেই। আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি। তারপরও কলাগুলো পাকলে না হয় চুরি করতো, বাজারে বিক্রি করতো। আমার লাগানো কলা মানুষ খেতো, তবু মনটা মানতো। আমার টাকার ক্ষতি কয়েক লাখ টাকার, মনের ক্ষতি তার চেয়েও বেশি।’

আমদহ ইউপি চেয়ারম্যান আনারুল ইসলাম জানান, ‘আশরাপুর গ্রামের শাফায়েতের ছেলে কৃষক আশরাফুল হক। তিনি তিন বিঘা জমি লিজ নিয়ে ওই জমিতে এক হাজার তিন শত কলার চারা রোপণ করেন। কিছুদিন আগে থেকে কলার গাছে কাঁদি আসতে শুরু করেছে। কাঁদি আসার পরপর ওই রাতে প্রতিপক্ষরা শত্রুতা করে ক্ষেতের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত প্রায় সব কলার কাঁদি কেটে ফেলে রেখে যায়। 
তিনি আরও জানান, এতে তার প্রায় চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক একই গ্রামের ফরোজ আলীর ছেলে আরোজ আলী ও আকমল হোসেনের ছেলে মাইকেলসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করে মেহেরপুর সদর থানায় মামলা করেছেন।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহ দারা খান বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আজ দুপুরে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মহাসিন/সাজেদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়