RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ২ ১৪২৭ ||  ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বরগুনায় অস্ত্রের কোপে ইউপি চেয়ারম্যানের পায়ের হাড় বিচ্ছিন্ন

বরগুনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৩৯, ২০ নভেম্বর ২০২০  
বরগুনায় অস্ত্রের কোপে ইউপি চেয়ারম্যানের পায়ের হাড় বিচ্ছিন্ন

সরিষামুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইমাম হোসেন শিপন

বরগুনার বেতাগী উপজেলার সরিষামুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইমাম হোসেন শিপনকে (৪৫) কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। 

বিয়ে বাড়ি থেকে ফেরার পথে শুক্রবার (২০ নভেম্বর) বেলা চারটার দিকে ইউনিয়নের কালিকাবাড়ি বাজারে এ ঘটনা ঘটে। তাকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালে পাঠানো হয়েছে। 

ইমাম হাসান শিপন জমাদ্দার জেলা আওয়ামী যুবলীগ ও সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

তার ওপর কারা হামলা চালিয়েছে এখনও পর্যন্ত পুলিশ বা পরিবারের কেউ নিশ্চিত নন। তবে স্বজনদের ধারণা, নির্বাচনকেন্দ্রিক বিরোধীতায় প্রতিপক্ষ শিপনের ওপর হামলা চালাতে পারে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেতাগী উপজেলার সরিষামুড়ী ইউনিয়নের সাতঘর কালিকাবাড়ি বাজার সংলগ্ন কনু মিয়ার মেয়ের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে ফিরছিলেন শিপন। পথে নাপিত বাড়ির সামনে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা ১০/১২ জন দুর্বৃত্ত অতর্কিত দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার ওপর হামলা চালায়। কুপিয়ে যখম করে ফেলে রেখে চলে যায় তারা। এসময় স্থানীয়রা শিপনকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মো. তারেক হাসান বলেন, ‘ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার বাম পায়ের হাড় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এছাড়াও বিচ্ছিন্ন হয়েছে তার ডান পায়ের রগ। ডান হাতের ওপরিভাগে গুরুতর যখম হয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।’ 

পুলিশ এ ঘটনায় ফারুক নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাবেক চেয়ারম্যান ইউসুফ শরীফ ও তার ছেলেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে ফারুক। পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র এ তথ‌্য নিশ্চিত করেছে।

বরগুনার সদর সার্কেলের পুলিশ সুপার মহররম হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। কারা তার ওপর হামলা চালিয়েছে তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে নির্বাচন কেন্দ্রিক প্রতিপক্ষরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে আমাদের ধারণা। এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনবে পুলিশ।

রুদ্র রুহান/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়