Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ১০ ১৪২৮ ||  ০৯ রমজান ১৪৪২

মুন্সীগঞ্জের ‘পয়সা’ এখন ‘জাপানি গ্রাম’

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:২২, ৫ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৯:২৮, ৫ মার্চ ২০২১

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার বৌলতলী ইউনিয়নের একটি গ্রামের নাম ‘পয়সা’। এ গ্রামের প্রায় প্রতিবাড়ি থেকেই একাধিক সদস্য জাপানে থাকেন। 

একই ইউনিয়নের মাইজগাঁও, শুরপাড়া, মাধাইশুর, ধারার হাট, নওপাড়াসহ কয়েকটি গ্রামের লোকজন থাকেন জাপানে। কিন্তু পয়সা গ্রামের লোকজন বেশি পরিমাণে থাকেন জাপানে। আর এ কারণেই লৌহজং উপজেলাবাসীর কাছে এই গ্রামটি নাম পেয়েছে ‘জাপানি গ্রাম’ হিসেবে। 

তবে দিন দিন জাপান প্রবাসীদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে।  বর্তমানে এই গ্রামের লোকসংখ্যা প্রায় ৫০০০।

১৯৯৫ সালের ভয়াবহ টর্নেডো পয়সা, মাইজগাঁও  গ্রামসহ ইউনিয়নের প্রায় প্রতিটি ঘরই গুড়িয়ে দেয়। নিহত হন পয়সা গ্রামের ১০ জন, আর পুরো ইউনিয়নে নিহত হন ২৫ থেকে ২৬ জন।  জাপানি প্রবাসীদের অর্থায়নে কিছুদিনের মধ্যেই আবার ঘুরে দাঁড়ায় গ্রামটি।

পয়সা, মাইজগাঁও ধারার হাট, শুরপাড়ার প্রতিটি বাড়িই তৈরি হয়েছে জাপানি অর্থে। এসব বসতবাড়িগুলো অনেক ব্যয়বহুল এবং দৃষ্টিনন্দন।  ঠিক চোখে তাক লাগানোর মতো। 

পয়সা, মাইজগাঁও গ্রামে জন্ম নেওয়া উজ্জ্বল ও আলোকিতদের মধ্যে রয়েছেন- দানবীর ইয়ানুছ শেখ মাইজভান্ডারি, কালের কণ্ঠ সম্পাদক কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন। এশিয়ান হকি ফেডারেশনের কার্যকরী পরিষদের পরিচালক, বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি ও উষা ক্রীড়াচক্র'র সাধারণ সম্পাদক, লৌহজং আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ শিকদার।

এলাকাবাসীর সঙ্গে আলাপকালে জানা যায়, ১৯৮৭ সালের পয়সা, মাইজগাঁও, শুরপাড়া থেকে প্রথম জাপানে যান ফারুক হোসেন বেপারী, আ. মালেক সারেং। এরপর ফারুক বেপারী, আহসান, মোজাফফর কাজী, বাদল চাকলাদার, বাবুল শেখ ও মালেক  সারেং এর সহযোগিতায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকায় লোকজন জাপানে যাওয়া শুরু করেন। পয়সা মাইজগাঁওসহ ইউনিয়নের প্রায় প্রত্যেকটি গ্রাম থেকে ১৫০০/২০০০ লোক জাপানে যান। 

কথিত আছে, যে লোক কোনদিন ঢাকায় যায়নি তিনিও জাপানে গেছেন। জমি চাষ করার মুহূর্তে ধরে এনে জাপানে পাঠিয়েছেন। এক পরিবার থেকে ৬ থেকে ৭ জন সদস্য জাপান গেছেন।

১৯৯২ সালের পর জাপান সরকারের শর্ত ও ধরপাকড় করার কারণে অনেকে দেশে চলে আসেন।

এখনও বৌলতলী ইউনিয়নের প্রায় চার থেকে পাঁচ শতাধিক লোক জাপানে থাকেন। এর মধ্যে পয়সা গ্রামেরই আছেন প্রায় শতাধিক মানুষ। আবার কেউ কেউ স্থায়ী হয়েছেন জাপানে। তাদের মধ্যে একজন হলেন মো. বাদল চাকলাদার। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাট্রি ইন জাপানের প্রেসিডেন্ট।

শেখ মোহাম্মদ রতন/টিপু

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়