ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ৪ ১৪২৯ ||  ১৯ মহরম ১৪৪৪

পঞ্চগড়ে নির্বাচনি সহিংসতায় ২ জনকে ছুরিকাঘাত, আটক ১

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২৩:১১, ২৭ নভেম্বর ২০২১  
পঞ্চগড়ে নির্বাচনি সহিংসতায় ২ জনকে ছুরিকাঘাত, আটক ১

পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির (লাঙ্গল) প্রার্থীর কর্মীর ছুরিকাঘাতে আওয়ামী লীগের (নৌকা) প্রার্থীর দুই কর্মী আহত হয়েছে। এ ঘটনায় মেহেদী হাসান রুবেল (২৫) নামের এক জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে ইউনিয়নের দলুয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত দুই যুবক হলেন, একই এলাকার শাজাহান আলীর ছেলে সাগর ইসলাম (১৯) এবং মন্তাজ আলীর ছেলে লায়ন হোসেন (২২)।

আটককৃত মেহেদী হাসান রুবেল একই ইউনিয়নের ফকিরপাড়া এলাকার ফারাজুল ইসলামের ছেলে। তিনি ছাত্রলীগের সাবেক ইউনিয়ন সভাপতি। চলমান ইউপি নির্বাচনে রুবেল জাতীয় পার্টির মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী ইসমাইল হোসেনের কর্মী হিসেবে কাজ করছেন।

স্থানীয়রা জানান, ভোট কেন্দ্রিক বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে রুবেল এবং তার লোকজন হামলা করে সাগর এবং লায়নের উপর। ধারালো ছুরি দিয়ে তাদের শরীরে এলোপাথারি আঘাত করে পালিয়ে যায় ঘাতকরা। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় সাগর এবং লায়নকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য আহতদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে পাঠান।

তারা আরো জানান, ঘটনার পরপরই আওয়ামী লীগ প্রার্থী গোলাম মূসা কলিমুল্লার লোকজন গিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে একটি বাড়ি থেকে রুবেলকে আটক করে।

ইউনিয়ন আ.লীগের একাংশের সাধারণ সম্পাদক ও নৌকা সমর্থিত কর্মী জাকির হোসেন জুয়েল বলেন, পরিকল্পিতভাবে এই হামলা করা হয়েছে। আমাদের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মিয়া রাইজিংবিডিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আবু নাঈম/ মাসুদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়