ঢাকা     সোমবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ৩ ১৪২৮ ||  ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় মামলা, আটক ১২

মাগুরা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১৭, ১ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ২০:২১, ১ ডিসেম্বর ২০২১
নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় মামলা, আটক ১২

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় ২৮ জনের নামে মামলা করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ১২ জনকে আটক করা হয়েছে।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) রাতে মহম্মদপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও মামলা বিবরণে জানা যায়, নির্বাচন পরবর্তী সময়ে ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই মেম্বার প্রার্থী আকরাম হোসেন মোল্যা ও আছাদুজ্জামান মোল্যার লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পাল্টাপাল্টি হামলা চালান। এসময় কয়েকটি বসত ঘরে হামলা ও ভাংচুর চালানো হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় সেখান থেকে বেশকিছু ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কয়েকজন আহত হয়েছে দাবি করা হলেও তাদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজন ১২ জনকে আটক করেছে।

আটককৃতরা হলেন- আসাদুজ্জামান মোল্লা, তারিকুল মোল্লা, আলী আকবর মোল্লা, মহাদ আলী, নজরুল ইসলাম, জহুরুল ইসলাম, আজাদুল মোল্লা, আ: আহাদ, পবিত্র কুমার রাজবংশী, ইস্রাফিল মোল্যা, রফিকুল মোল্যা ও আলী রেজা মৃধা। আটককৃতদের সবার বাড়ি গোপিনাথপুর, মৌলি ও আশপাশের গ্রামে।

মহম্মদপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মহম্মদপুর থানায় একটি মামলা করেছে। সংঘর্ষে জড়িত সন্দেহে ১২ জনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, তৃতীয় তফসিলে গত ২৮ নভেম্বর মহম্মদপুর উপজেলার আট ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

শাহীন/কেআই

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়