ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৮ ১৪৩১

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি

রংপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১৬, ১৯ জুন ২০২৪  
বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি

ছবি: আমিরুল ইসলাম

ভারি বর্ষণ আর উজানের ঢলে রংপুরের তিস্তা নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। বুধবার (১৯ জুন) সকাল ৯টায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেওয়া তথ্য বলছে, তিস্তার কাউনিয়া পয়েন্টে পানিপ্রবাহ বিপৎসীমার ২০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 

এতে করে নদীর তীরবর্তী নিম্নাঞ্চল, চর ও দ্বীপ চরের কিছু ফসলি জমি ও ঘরবাড়িতে পানি উঠেছে। বন্যা মোকাবিলায় পানি উন্নয়ন বোর্ড ও উপজেলা প্রশাসন প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

রংপুরের কাউনিয়া পয়েন্টে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক বাড়ছে। এরই মধ্যে উজানের পানির চাপের কারণে তিস্তা নদীর ডালিয়া ব্যারেজের সবকটি জলকপাট খুলে দেওয়া হয়েছে।

বর্ষার শুরুতেই তিস্তায় পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তীরবর্তী ও চরাঞ্চলের মানুষদের মাঝে বন্যার আতঙ্ক বিরাজ করছে। বিশেষ করে গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেওয়া তথ্যমতে, আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চলের দুধকুমার, তিস্তা ও ধরলা নদীসমূহের পানি বৃদ্ধি পেতে পারে। কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, রংপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদী বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে।

টেপামধুপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম বলেন, বন্যা হলে মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। পাশাপাশি নদীর তীরবর্তী আবাদি জমিগুলো তলিয়ে গিয়ে উৎপাদনের সময় বাদাম ও শাক-সবজিসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হবে। এমন আশঙ্কার কথা জানান বালাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনছার আলী।

রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, উজানের ঢল আর গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তার পানি বাড়তে থাকে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গত বৃহস্পতিবার ব্যারাজের ৪৪টি গেট খুলে রাখা হয়েছে। তবে আজ ভোর থেকে ভাটির দিকে রংপুর জেলার কাউনিয়া পয়েন্টে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 

/আমিরুল/সাইফ/

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়