ঢাকা     সোমবার   ১৫ জুলাই ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

মৌলভীবাজারে বন্য

এক ফুট পানি বাড়লেই বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটি অকেজো হতে পারে

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৫৮, ২০ জুন ২০২৪   আপডেট: ১১:৫৯, ২০ জুন ২০২৪
এক ফুট পানি বাড়লেই বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটি অকেজো হতে পারে

মৌলভীবাজারে বন্যার পানি আর এক ফুট বাড়লেই জুড়ি উপজেলার ৩৩/১১ কেভি উৎপাদনক্ষমতার বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটি অকেজো হতে পারে। এতে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়তে পারেন জুড়ি উপজেলার ১৬ হাজার গ্রাহক।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) জুড়ি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের আবাসিক প্রকৌশলী কবির আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জুড়ি নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এক ফুট পানি বাড়লে বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটি অকেজো হয়ে পড়তে পারে।

এদিকে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও ভারী বৃষ্টিপাতে মৌলভীবাজারের মনু, কুশিয়ারা ও জুড়ি নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। প্লাবিত হয়েছে জেলার সবগুলো উপজেলার নিম্নাঞ্চল। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন প্রায় ৩ লাখ মানুষ।

পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে। হতে পারে স্থায়ী বন্যা। বৃহস্পতিবার মনু নদীর পানি বিপৎসীমার ৪১ সেন্টিমিটার, কুশিয়ারার ১৯ সেন্টিমিটার ও জুড়ি নদীর পানি ২০৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক ডা. ঊর্মি বিনতে সালাম বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০৪টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এ পর্যন্ত আশ্রয়কেন্দ্রে ৬০৫২ জন আশ্রয় নিয়েছেন। তাদের সঙ্গে ১৪৯টি গবাদি পশুও রয়েছে। আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে এখন পর্যন্ত ৪২২ টন জিআর চাল, ৬০ হাজার পানি বিশুদ্ধিকরণ ট্যাবলেট, নগদ ২ লাখ ৮৭ হাজার ৫০০ টাকা, ২০০ প্যাকেট রান্না করা খাবার, ৪৬৫ প্যাকেট শুকনো খাবার ও ১০ লিটার পরিমাপের ২৪০ বোতল বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা হয়েছে।

হামিদ/কেআই

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়