RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৪ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১০ ১৪২৭ ||  ০৬ রবিউস সানি ১৪৪২

ব্যাংকে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা

নাজমুল ইসলাম ফারুক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৩৩, ২৯ অক্টোবর ২০২০  
ব্যাংকে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা

দেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।গত আগস্ট মাসের তুলনায় সেপ্টেম্বরে প্রায় ৬৭ শতাংশ ব্যাংকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ বাড়িয়েছে।  

আগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসের বিনিয়োগ পরিস্থিতি পর্যালোচনায় এমন তথ্য জানা গেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য ব্যাংকগুলোর বিশেষ তহবিল, আমানতে সুদের হার কম থাকা, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা  বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সমন্বয়ের কারণে বাজারে বিনিয়োগের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। 

বাংলাদেশ মার্চন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সভাপতি ছায়েদুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, পুঁজিবাজারে আগে যে তারল্য সংকট ছিল তা এখন নেই। ব্যাংকগুলোকে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য বিশেষ তহবিল গঠন করার বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারের পর থেকে বাজারে ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে। যার ধারাবাহিকতায় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে। ভবিষ্যতে বিনিয়োগ আরও বাড়বে বলে আশা করছেন তিনি।

জানা গেছে, গত ১০ ফেব্রুয়ারি প্রতিটি তফসিলি ব্যাংক পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য সর্বোচ্চ ২০০ কোটি টাকার একটি বিশেষ তহবিল গঠন করতে পারবে বলে সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। সে হিসেবে ৫৯ তফসিলি ব্যাংক পুঁজিবাজারে বিদ্যমান বিনিয়োগের বাইরেও আরও সর্বোচ্চ ১১ হাজার ৮০০ কোটি টাকা নতুন করে বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হয়েছে। ফলে পুঁজিবাজারের ব্যাংকসহ বিভিন্ন খাতে প্রতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বাড়াতে শুরু করেছে। এদিকে, বিশেষ তহবিলের পুঁজিবাজারে সঠিক ব্যবহার, বিনিয়োগে নানা ত্রুটি-বিচ্যুতি রয়েছে কিনা এবং সেগুলো সমাধানে নিয়মিত কাজ করছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। ফলে বাজারে বিনিয়োগ আরও গতিশীল হবে  বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক বা এমটিবি ক্যাপিটাল লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খাইরুল বাসার আবু তাহের মোহাম্মদ রাইজিংবিডিকে বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে বিএসইসির সমন্বয়, ব্যাংকগুলো তাদের বিশেষ তহবিলের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়ানোর উদ্যোগের ফলে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী তাদের বিনিয়োগ বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছে। তাছাড়া ব্যাংকে আমানতের সুদের হার কম থাকায়ও পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে ফিরছে অনেকে। এছাড়া অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের নেতৃাতাধীন নতুন কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার পর বাজারের উন্নয়নে বেশ কিছু পদক্ষেপ দৃশ্যমান হয়েছে। এতে বাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থা তৈরি হয়েছে। এসব কারণে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরাও তাদের বিনিয়োগ বাড়াতে সক্ষম হয়েছে।       

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, পুঁজিাবাজরে ৩০টি ব্যাংক তালিকাভুক্ত রয়েছে। এর মধ্যে ২০টি বা প্রায় ৬৭ শতাংশ ব্যাংকে বিনিয়োগ বাড়িয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। অন্যান্য ব্যাংকগুলো থেকে তারা কিছুটা বিনিয়োগ কমিয়েছে।

প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বর এক মাসের ব্যবধানে সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ বাড়িয়েছে ওয়ান ব্যাংকে। আলোচ্য সময়ের ব্যবধানে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ১০.৮৮ শতাংশ। ওয়ান ব্যাংকে গত সেপ্টেম্বরে প্রতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৮.৫৩ শতাংশ। আগের মাস আগস্টে ছিল ১৭.৬৫ শতাংশ। এছাড়া সবচেয়ে কম বিনিয়োগ বাড়িয়েছে উত্তরা ব্যাংকে। এক মাসের ব্যবধানে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৫ শতাংশ। সেপ্টেম্বরে প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২১.২৭ শতাংশ। আগস্টে ছিল ২১.২২ শতাংশ।

এছাড়া যেসব ব্যাংকে বিনিয়োগ বাড়িয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা সেগুলো হচ্ছে- আল আরাফা ইসলামী ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (এমটিবি), ন্যাশনাল ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, সাউথ ইস্ট ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড।  

এদিকে, যেসব ব্যাংকে বিনিয়োগ কমিয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা সেগুলো হচ্ছে- ট্রাস্ট ব্যাংক, ইউসিবি, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, এবি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড।

ঢাকা/এনএফ/এসএম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়