ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

পুঁজিবাজার সংকট উত্তোরণে কাজ করবে দুই এক্সচেঞ্জ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১১, ২২ মার্চ ২০২৩  
পুঁজিবাজার সংকট উত্তোরণে কাজ করবে দুই এক্সচেঞ্জ

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবুর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) পুনঃনির্বাচিত চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহিম।

এ সময় পুঁজিবাজারের বর্তমান সংকট উত্তোরণের লক্ষ্যে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের পক্ষ থেকে একত্রে কাজ করার আশ্বাস ব্যক্ত করা হয়।

বুধবার (২২ মার্চ) সকালে রাজধানীর নিকুঞ্জে ডিএসই টাওয়ারে দুইপক্ষের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় ডিএসইর নবনিযুক্ত পরিচালক অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, শেয়ারহোল্ডার পরিচালক শরীফ আনোয়ার হোসেন, ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এম. সাইফুর রহমান মজুমদার এবং সিএসই’র ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম ফারুক উপস্থিত ছিলেন৷

ডিএসইর নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু সিএসইর চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহিমকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, আপনার নিয়োগ নিঃসন্দেহে আপনার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা নিয়ে সরকারের যে আস্থা রয়েছে তারই বহিঃপ্রকাশ। আমি আশা করি আপনার নেতৃত্বে দেশের পুঁজিবাজার আগামীতে আরও বেশি সাফল্য অর্জন করবে এবং পুঁজিবাজারের গতিশীলতা আনবে।

তিনি আরও বলেন, পুঁজিবাজার বর্তমানে এক সংকটময় সময় পার করছে৷ এই সংকট থেকে উত্তোরণের জন জন্য উভয় স্টক এক্সচেঞ্জকে একসাথে কাজ করতে হবে। আমাদের দিকে তাকিয়ে আছে লাখ লাখ বিনিয়োগকারী৷ বর্তমানে বিনিয়োগকারীদের মাঝে যে আস্থার সংকট চলছে, সে অবস্থা থেকে উওোরণ ঘটাতে হবে৷ এজন্য আমাদের একটি কর্মপরিকল্পনা নিতে হবে৷ যেকোনো মূল্যেই হোক বিনিয়োগকারী তথা পুঁজিবাজার সংশিষ্ট সব পক্ষকেই সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের চালিকা শক্তি পুঁজিবাজারকে গতিময় করে তুলতে হবে৷ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য শিল্পায়ন প্রয়োজন। আর শিল্পায়নে দীর্ঘমেয়াদি অর্থ সংগ্রহের উৎস হলো পুঁজিবাজার। তাই পুঁজিবাজারকে প্রাণবন্ত করার জন্য ভালো কোম্পানি আনার পাশাপাশি ভালো বিনিয়োগকারী আনার ব্যাপারে যৌথভাবে উদ্যোগ নিয়ে সাধারণ মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের একসাথে কাজ করতে হবে।

এদিকে সিএসইর চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহিম বলেন, ডিএসইর নবনিযুক্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গে আজকে অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ আলোচনা হয়েছে৷ মূলতঃ কিছু নির্দিষ্ট লক্ষ্য নির্ধারণ করতে চাই, যে জায়গায় ডিএসই এবং সিএসই একসঙ্গে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার উন্নয়নে কাজ করবে৷ তার মধ্যে আমরা যে বিষয়ে কথা বলেছি সেটা হচ্ছে পুঁজিবাজারে আরও বেশি পরিমাণে ভালো সিকিউরিটিজ লিস্টেড করতে হবে এবং আরও প্রডাক্ট চালু করতে হবে৷ তথ্য, প্রযুক্তির ওপর আমাদের যথেষ্ট জোর দিতে হবে, যাতে আমরা পুঁজিবাজারকে আরও অনেক বিকশিত করতে পারি৷ আমরা এ বিষয়ে একমত হয়েছি উভয় স্টক এক্সচেঞ্জই একসঙ্গে পরামর্শমূলক মেকানিজম ও আলোচনার মাধ্যমে বিভিন্ন সুপারিশ নিয়ে রেগুলেটরের কাছে যাব যাতে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে ভালো একটা পরিবর্তন আনতে পারি৷

/এনটি/এসবি/

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়