ঢাকা     সোমবার   ১১ ডিসেম্বর ২০২৩ ||  অগ্রহায়ণ ২৬ ১৪৩০

‘পুঁজিবাজারে কম ঝুঁকির বিনিয়োগে দীর্ঘমেয়াদে ভালো মুনাফা’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৪০, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩  
‘পুঁজিবাজারে কম ঝুঁকির বিনিয়োগে দীর্ঘমেয়াদে ভালো মুনাফা’

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার অধ্যাপক ড. রুমানা ইসলাম বলেন, সব ধরনের ব্যবসায় ঝুঁকি রয়েছে। কে কতটুকু ঝুঁকি নেবে এটি তার নিজস্ব একটি বিষয়। তবে পুঁজিবাজারের ক্ষেত্রে কম ঝুঁকি নিয়ে বিনিয়োগ করলে দীর্ঘমেয়াদে ভালো মুনাফা পাওয়া যায়।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত এক প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ডিএসইর জনসংযোগ বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. শফিকুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ডিএসই ট্রেনিং একাডেমি আয়োজিত প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মোতাহার হোসেন ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ড. এটিএম তারিকুজ্জামান অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ছিলেন। এছাড়া, উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম৷

রুমানা ইসলাম বলেন, পুঁজিবাজার বিষয়ে প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য দুইটি। একটি হলো পুঁজিবাজার সম্পর্কে ভুল ধারণা দূর করা, আর অপরটি হলো সচেতনতা বৃদ্ধি করা। পুঁজিবাজারে আমাদের সঞ্চয়ের এমন অংশ বিনিয়োগ করতে হবে যা আমাদের আগামী এক বছর কোনো প্রয়োজন নেই। কিন্তু আমাদের দেশের বিনিয়োয়াগকারীগণ অনেক ক্ষেত্রে জমিজমা ও গহনা বিক্রি করে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করে। সেটি করা যাবে না। আমাদের দেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত হওয়ার ক্ষেত্রে পুঁজিবাজার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

সঞ্চয়ের কিছু অংশ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করতে হবে উল্লেখ করে ড. রুমানা ইসলাম শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, এখনই আপনাদের ভবিষ্যত গড়ার সময়। তাই আগে সঞ্চয় করতে হবে, পরে খরচ করতে হবে। পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কী কী ঝুঁকি নেবেন এবং কী পরিমাণ বিনিয়োগ করবেন সে সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করা আজকের অনুষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্য। একজন সচেতন বিনিয়োগকারী পুঁজিবাজারের সম্পদ। তিনি শুধু নিজের নন, তার দ্বারা সমগ্র বাজারের উপকৃত হয়।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এটিএম তারিকুজ্জামান বলেন, আইনি কাঠামো হলো পুঁজিবাজারের মেরুদণ্ড। এটির মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা হয়ে থাকে। বিনিয়োগকারীদের সুরক্ষা প্রদান হলো আমাদের প্রাথমিক দায়িত্ব। যে কোনো ধরনের কারসাজি দূর করার জন্য শক্তিশালী আইনি কাঠামো প্রয়োজন। আর এই বিষয়ে আমাদের কাজ চলমান আছে৷

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, আপনারা আগামী দিনের ভবিষ্যত। পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করার পাশাপাশি পুঁজিবাজারের আইনি কাঠামো ঠিক রাখার ক্ষেত্রে আইন বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা অবদান রাখতে পারে। এক্ষেত্রে আপনাদের গবেষণা ও পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। আমি আশা করি, আগামীতে ডিএসই ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ এই বিষয়ে গবেষণামূলক কাজ করবে।

ঢাকা/এনটি/ইভা 

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়