ঢাকা     সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৬ ১৪২৯

পুঁজিবাজার নিয়ে সংবাদ প্রকাশে সতর্কতার অনুরোধ বিএসইসির

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৩, ৫ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ২২:৩৬, ৫ ডিসেম্বর ২০২২
পুঁজিবাজার নিয়ে সংবাদ প্রকাশে সতর্কতার অনুরোধ বিএসইসির

দেশের পুঁজিবাজারের কল্যাণে বিভ্রান্তিকর ও ত্রুটিপূর্ণ তথ্যসংবলিত সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশে অধিকতর সতর্কতা অবলম্বনের অনুরোধ জানিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এ ক্ষেত্রে কমিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করে তথ্যের যথার্থতা যাচাইপূর্বক সংবাদ প্রতিবেদন করার অনুরোধ জানিয়েছে সংস্থাটি।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) বিএসইসির ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে।

এদিকে ‘সাংবাদিককে তথ্য দিলে জেল! বিএসইসির কর্মকর্তাদের প্রতি সতর্কবার্তা’ শীর্ষক শিরোনামে একটি জাতীয় দৈনিকে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে সোমবার (৪ ডিসেম্বর)। ওই সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে বিএসইসি।

বিএসইসির ফেসবুক পেজে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট সাংবাদিকদের প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহে সদা সচেষ্ট আছে। কমিশন গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের প্রত্যাশা অনুযায়ী কমিশন মুখপাত্রের মাধ্যমে সর্বদা তথ্য সরবরাহ করছে। সর্বোপরি সাংবাদিকদের তথ্য দিয়ে সহায়তা করার মনোভাব রয়েছে কমিশনের। আগামীতেও সাংবাদিকদের ও গণমাধ্যমকে তথ্য প্রদানে কমিশনের আন্তরিকতা অব্যাহত থাকবে। সিকিউরিটিজ সংক্রান্ত আইন অনুযায়ী কমিশন নিয়মিত বিধিবদ্ধভাবে তথ্য সরবরাহ করছে। এছাড়াও তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী যথাযথ প্রক্রিয়ায় আবেদনের প্রেক্ষিতে তথ্য অধিকার আইন মোতাবেক বিভিন্ন ফরমেটে অধিযাচিত তথ্য প্রদান করছে বিএসইসি।

৫ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে একটি জাতীয় দৈনিকের প্রথম পাতায় ‘সাংবাদিককে তথ্য দিলে জেল! বিএসইসির কর্মকর্তাদের প্রতি সতর্কবার্তা’ শীর্ষক শিরোনামে সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

বিএসইসির ফেসবুক পেজে আরো উল্লেখ করা হয়, পুঁজিবাজারকে অর্থনীতিতে অত্যন্ত স্পর্শকাতর খাত হিসেবে বিবেচনা করা হয়। পুঁজিবাজার স্পর্শকাতর ও সংবেদনশীল হওয়ায় পুঁজিবাজারের তথ্যও মূল্যসংবেদনশীল ও স্পর্শকাতর। পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট তথ্য-উপাত্ত প্রকাশে আইন অনুযায়ী বাধ্যবাধকতা রয়েছে এবং আইন মোতাবেক যথাযথ নিয়মে ও সময়ে সেসব তথ্য প্রকাশ করা হয়ে থাকে। এছাড়া যেসকল তথ্য-উপাত্ত প্রকাশের ক্ষেত্রে আইনি বাধা রয়েছে সেসব তথ্য প্রকাশ করা সম্ভব নয়। তথ্য প্রবাহ সংগ্রহাধীন অবস্থায় অসম্পূর্ণ তথ্য কিংবা অপর্যাপ্ত তথ্য প্রায়শ অপরিপূর্ণ ধারণা কিংবা ভুল ধারণার সৃষ্টি করতে পারে। সেজন্য, পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট প্রক্রিয়াধীন তথ্য-উপাত্ত প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ না হওয়ার পূর্বে প্রকাশ করা যায় না।

এতে আরও বলা হয়, পুঁজিবাজারের ইনসাইডার ট্রেডিং এবং লেনদেন সংক্রান্ত তথ্য বিধিবদ্ধভাবে প্রকাশিত হওয়ার পূর্বে জানতে পারলে বাজারে অনেকে লাভবান হয়, আবার না জানায় অনেকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এসকল বিষয় বিবেচনায় পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি সিকিউরিটিজ আইন অনুযায়ী তথ্য প্রকাশ করছে এবং যেসকল তথ্য প্রকাশে আইন অনুযায়ী বাধা রয়েছে তা আইন মোতাবেক পরিপালন করছে। 


 

ঢাকা/এনটি/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়