ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৪ ১৪৩১

‘আমি যেহেতু ভয়ংকর মানুষ, সেই মানুষকেই তো বিয়ে করলো, বাচ্চাও নিলো’

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২১, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৫:৩৩, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
‘আমি যেহেতু ভয়ংকর মানুষ, সেই মানুষকেই তো বিয়ে করলো, বাচ্চাও নিলো’

ঢাকাই সিনেমার অভিনয়শিল্পী পরীমণি ও শরিফুল রাজ। ভালোবেসে ঘর বেঁধেছিলেন তারা। এ দম্পতির একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। কিন্তু বেশ কিছু দিন ধরে ভালো যাচ্ছিল না তাদের দাম্পত্য জীবন।

কয়েকবার রাজ-পরীমণির সংসার ভাঙার গুঞ্জন উঠেছে। সর্বশেষ গুঞ্জনকে বাস্তবে রূপ দিলেন পরীমণি। সংসারের ইতি টানতে গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাজকে ডিভোর্স লেটার পাঠান এই অভিনেত্রী। ডিভোর্স লেটার অন্তর্জালে ছড়িয়ে পড়ার পর মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন দুজনেই।

গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে ফেসবুক স্ট্যাটাসে ডিভোর্সের বিষয়টি নিশ্চিত করেন পরীমণি। পাশাপাশি রাজের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ করেন। তাকে ‘ভয়ংকর’ মানুষ বলেও মন্তব্য করেন পরীমণি। অবশেষে এসব বিষয়ে মুখ খুললেন শরিফুল রাজ।

এ অভিনেতা বলেন— ‘আমরা কেউই শিশু নই। আমার স্বার্থটাই বা কিসের? আমি যেহেতু ভয়ংকর মানুষ, সেই ভয়ংকর মানুষকেই তো দেখছি বিয়ে করল, সংসার করে বাচ্চাও নিল! আমাকে ডিভোর্স দিয়েছে ভালো কথা, কিন্তু আমাকে নিয়ে মিথ্যাচার না করলে ভালো হয়। কারণ আমার একটা পরিবার আছে। সেখানে মা–বাবা, আত্মীয়-স্বজন, পাড়া–প্রতিবেশী সবাই আছেন।’

রাজের দাবি পরীমণি মিথ্যাচার করছেন। তার ভাষায়, ‘একটা কথা পরিষ্কার করে বলতে চাই, আমি বিয়ের পর পরী বা বাবুকে ছাড়া অন্য কিছু ভাবিনি। একটা বছর আমি আমার কাজ থেকে দূরে ছিলাম। আশপাশের কারো ফোনকল ধরিনি। কারো সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করিনি। যতটুকু পেরেছি স্ত্রী ও সন্তানের যত্ন করার চেষ্টা করেছি। আমাকে নিয়ে পরীর এ ধরনের মিথ্যাচার করার সুযোগ নেই। আমি এমন কিছু করিনি, যার জন্য প্রশ্নবিদ্ধ হতে হবে। আমি বারবার হেনস্তা হয়েছি। এসব নিয়ে আর বলতেও চাই না। পরী এখন যেটা চাচ্ছে, সেটার প্রতি আমার শ্রদ্ধা আছে। এর বাইরে অন্য অভিযোগ এলে তা প্রশ্রয় দিতে চাই না।’

পরীমণি তার স্ট্যাটাসের এক জায়গায় লিখেছেন, ‘ঘটনার সে পুনরাবৃত্তি করেছে। বারবার। সরি বলা, না খেয়ে থাকা, পা ধরে মাফ করে দাও, আর হবে না— এমনকি সুইসাইডের মতো হুমকিতেও ব্ল্যাকমেলের শিকার হতে হয়েছে আমাকে।’

পরীমণির এসব অভিযোগ অস্বীকার করে রাজ বলেন, ‘আমি এসবের কিছুই করিনি। আমার নামে এসব মিথ্যাচার। এটা পরীমণি, তার সঙ্গে বারবার এ রকম কিছু হবে; বারবার সে ক্ষমা করে দেবে! এটা পরীমণি নয়। আমি স্ট্রংলি বলছি, পরীমণির সঙ্গে এমন কিছু করিনি যে বারবার আমাকে অনুতপ্ত হতে হবে। তালাকের নোটিশের পর পরীমণি যে ধরনের মিথ্যচার করছে, এগুলো ঠিক না। এগুলো বাদে সে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তার প্রতি শ্রদ্ধা–ভক্তি সবই আছে।’

‘পরীমণি আমার এক্স ওয়াইফ, আমার সন্তানের মা, তাকে নিয়ে আমি আসলে এর বাইরে কোনো কথা বলতে চাই না। সন্তানের মা বলেই তো কখনো কোনো কিছু নিয়ে মুখ খুলিনি। আমি আসলে কখনো কিছু বলতে চাইনি বলেই, এটার সুযোগ সবাই সব সময় নিয়েছে। পরীমণি আমার সন্তানের মা, ওকে সেই সম্মান দেওয়া উচিত। পরীমণি যেভাবে এখন ভালো থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেভাবেই থাকুক।’ বলেন রাজ।

পরীমণির পাঠানো ডিভোর্স লেটার হাতে পেয়েছেন রাজ। বাকি যে প্রক্রিয়া তা নিয়ম অনুযায়ী সম্পন্ন হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন চিত্রনায়িকা পরীমণি ও চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ। তবে পারিবারিকভাবে ২০২২ সালের ২২ জানুয়ারি ঘরোয়াভাবে আবার তাদের বিয়ে হয়। ২০২২ সালের ১০ আগস্ট তাদের ছেলে শাহীম মুহাম্মদ রাজ্যের জন্ম হয়।

ঢাকা/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়