ঢাকা     সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৯ ||  ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

গলায় সাড়ে তিন কেজির টিউমার

অন্য দুনিয়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৩৫, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ১২:৫৪, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
গলায় সাড়ে তিন কেজির টিউমার

প্রতীকী ছবি

আজমিরা খাতুন। ভারতের বিহারের এই কিশোরী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সম্প্রতি তার গলা থেকে অপসারণ হয়েছে সাড়ে তিন কেজির একটি টিউমার।

বছর দুয়েক আগে কথা। হঠাৎ করেই তার গলার একটি অংশে লেবুর মতো ফোলা দেখা দিয়েছিল। শুরুতে বিষয়টিকে ততটা গুরুত্ব দেয়নি পরিবারের লোকজন। স্থানীয় হোমিওপ্যাথি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা করানো হয়। কিন্তু ধীরে ধীরে তা খারাপ হতে থাকে। গলার বাঁ দিক ফুলে যায়। আজমিরার মুখও এক দিকে বেঁকে যেতে থাকে।

দিন দিন পরিস্থিতি জটিল হতে থাকলে আজমিরাকে বিহারের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। কিন্তু কেউ-ই কোনো কূল কিনারা করতে পারছিলেন না। কয়েক মাস আগে আজমিরার প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। তখন তাকে কলকাতার ইনস্টিটিউট অব পোস্ট গ্র্যাজুয়েট মেডিক্যাল অ্যান্ড রিসার্চ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে নাক-কান-গলা বিভাগে আজমিরার গলায় ট্র্যাকিয়োস্টোমি করে স্বাভাবিক শ্বাসপ্রশ্বাস নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। পরীক্ষা করে দেখা যায়, এটি স্নায়ুর টিউমার। পরবর্তী সময়ে ছয় ঘণ্টা ধরে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে গলার একাংশ কেটে সফলভাবে সাড়ে তিন কেজি ওজনের টিউমারটি অপসারণ করেন চিকিৎসকরা।

হাসপাতালের চিকিৎসক অরুণাভ সেনগুপ্ত বলেন, ‘মারাত্মক বিপজ্জনকভাবে টিউমারটি গলা ও ঘাড়ের অংশে ছিল। অস্ত্রোপচার খুব ঝুঁকির ছিল। কিন্তু না করে উপায়ও ছিল না।’

অপর এক চিকিৎসক সৌরভ দত্ত বলেন, ‘টিউমারটি শ্বাসনালিকে এক পাশে ঠেলে দিয়েছিল। মেরুদণ্ডের সঙ্গেও লেগে ছিল। হৃৎপিণ্ড থেকে যে ধমনীর মাধ্যমে মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালিত হয়, সেটি ঘিরে রেখেছিল। কোনোভাবে ওই ধমনী ক্ষতিগ্রস্ত হলে মস্তিষ্কে রক্ত সরবরাহ ব্যাহত হয়ে বড় বিপদ ঘটতে পারত।’

/মারুফ/

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়