ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

যমজ সন্তানের গ্রাম

মুজাহিদ বিল্লাহ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:২১, ২১ আগস্ট ২০২৩  
যমজ সন্তানের গ্রাম

একটি গ্রামে গিয়েছেন। সেখানকার বেশিরভাগ বাসিন্দাদের যমজ দেখাচ্ছে! কাউকেই আলাদাভাবে শনাক্ত করতে পারছেন না। তখন নিশ্চয়ই চমকে যাবেন। ভাবছেন, এও কী সম্ভব! কোথাও আছে এমন গ্রাম?

ভারতের কেরালা রাজ্যের একটি গ্রামের নাম কোদিনহি। এই গ্রামের অদ্ভুত বৈশিষ্ঠ্য এখানে সবাই যমজ। পুরো দুনিয়ার কাছেই এই গ্রামটি রহস্যময়। বিশ্বের কাছে এই গ্রামটি টুইন গ্রাম নামেও পরিচিত। সমগ্র বিশ্বে গড়ে এক হাজার মানুষে একজন যমজ হওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও ২০১৫ সালের একটি সমীক্ষা জানাচ্ছে যে, এই গ্রামের ২০০০ মানুষের মধ্যে ২২০ জোড়া যমজ। গ্রামে যমজের হার ৪২ শতাংশ যা দিনকে দিন বেড়েই চলছে। সমীক্ষা বলছে, ভারতে প্রতি হাজারে যমজের সংখ্যা ৯ জন এবং গোটা পৃথিবীতে সেই সংখ্যাটা প্রতি হাজারে ৬ জন আর সেই অনুযায়ী কোদিনহিতে প্রতি হাজারে যমজের সংখ্যা ৪৫ জন।  

কালিকট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরে এই গ্রামটি অবস্থিত। এই গ্রামের সবাইকে দেখতে প্রায় একই রকম। কেউ ভাই-বোন যমজ আবার কেউ ভাই-ভাই যমজ আবার কেউবা অন্য মায়ের সন্তান হলেও দেখতে একই রকম।

কেন এই গ্রামে এত যমজ শিশু জন্ম হয় এ নিয়ে ডাক্তার ও বিশেষজ্ঞরা অনেক গবেষণা করেছেন। তবে এর কোনো বিশেষ কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। ১৯৪৯ সালে এই গ্রামে প্রথম যমজ শিশুর জন্ম হয়, যা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। ২০১৫ সালে এখানে জন্ম নেয় ১৫ জোড়া যমজ শিশু।

অনেকের ধারণা, গ্রামের পরিবেশগত ও জিনগত নানা কারণে এখানে যমজ শিশু জন্মগ্রহণ করে। আবার অনেকেই মনে করেন, এসব ঈশ্বর প্রদত্ত। গ্রামটিতে বর্তমানে প্রায় ৪৫০-৫০০ জোড়া যমজ রয়েছে। আরো অবাক করা ব্যাপার হলো, এই গ্রামে যারা বউ হয়ে আসে এবং এই গ্রামের যেসব মেয়েরা অন্যত্র বউ হয়ে যায় তারাও যমজ শিশুর জন্ম দেয়।

২০০৮ সালের দিকে কোদিনহির একটি স্কুলে যমজ বোন সামিরা ও ফামিনা খেয়াল করে যে তারা ছাড়াও তাদের ক্লাসে ৮ জোড়া যমজ ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। এবং স্কুলের অন্য ক্লাসেও অনেকেই যমজ। একটি স্কুলেই মোট ২৪ জোড়া যমজের দেখা মিলেছিল।

চাইলে আপনিও ঘুরে আসতে পারেন এই গ্রাম থেকে। ঢাকা থেকে কলকাতা কিংবা দিল্লী গিয়ে ধরতে পারেন কালিকটের ফ্লাইট যা আপনাকে নামিয়ে দেবে কালিকট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। বিমানবন্দর থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরেই এই গ্রাম। সরাসরি গাড়িতেও যেতে পারবেন। ট্রেনেও যেতে পারবেন সেখানে। কোদিনহির নিকটতম রেলওয়ে স্টেশন তনুর এবং পরপনানগড়ি। কোঝিকর স্টেশনটি কোদিনহি থেকে মাত্র ৩৩ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। বেঙ্গালুরু থেকে বাসে চেপেও পৌঁছোনো যায় কোদিনহি।

শুধুমাত্র ভারতেই নয়, বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশেও বিশেষ অঞ্চলে যমজদের দেখা মেলে, তবে সেটা কোদিনহির মতো নয়। দক্ষিণ ভিয়েতনামের হাং হিয়েপ, ব্রাজিলের ক্যানডিডো গোডোই এবং নাইজেরিয়ার ইগবো-ওরা গ্রামেও দেখা মেলে অনেক যমজের। 

/ফিরোজ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়