ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||  আশ্বিন ২১ ১৪২৯ ||  ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪১৪

সূর্যের আলো দিয়ে ছবি আঁকেন তিনি

মো. মেহেদী হাসান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪৬, ৮ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ১৭:১১, ৮ আগস্ট ২০২২
সূর্যের আলো দিয়ে ছবি আঁকেন তিনি

‘ছবি আঁকা’র কথা শুনলেই আমরা কাগজ, কলম, পেন্সিল, সাইনপেন, বিভিন্ন প্রকার রং, তুলি, ক্যানভাস, ইরেজার, বোর্ড, ক্লিপ ইত্যাদি ব্যবহারের কথা ভাবি। অথবা এই জিনিসগুলো ছাড়া আমরা ছবি আঁকার কথা ভাবতে পারি না। কিন্তু কখনও কি শুনেছেন- সূর্যের আলো দিয়ে ছবি আঁকার কথা? 

অবাক হলেও সূর্যের আলো দিয়ে ছবি আঁকেন ৩০ বছর বয়সী ভারতীয় শিল্পী ভিগনেশ।

ভিগনেশের এই শিল্পকর্মের নাম ‘পাইরোগ্রাফি’। এটি একটি মুক্ত হস্তশিল্প, যা সূর্যের আলোকে নিয়ন্ত্রিত প্রয়োগের মাধ্যমে কাঠ বা অন্য কোনো বস্তু পুড়িয়ে ছবি আঁকা হয়। এই চিত্রকর্মের জন্য প্রয়োজন কাঠ, আতশ কাচ ও সূর্যের আলো। 

জানা যায়, ভিগনেশ প্রতিদিন সকাল ৯ টায় কাঠের ফলক, ম্যাগনিফাইং গ্লাস, প্রতিরক্ষামূলক গ্লাভস এবং একটি বড় টুপি নিয়ে বের হন। এরপর সূর্যের আলোকরশ্মিকে ম্যাগনিফাইং গ্লাসের মাধ্যমে ফোকাস করে কাঠের ফলক পুড়িয়ে বিভিন্ন ধরনের নকশা তৈরি করেন। এক একটি নকশা সম্পন্ন করতে তার দুই থেকে আড়াই দিন সময় লাগে। কিন্তু যদি আকাশ মেঘলা থাকে তাহলে সময় আরও বেশি লাগে।

ভিগনেশ ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে ডিপ্লোমা সম্পন্ন করেছেন। পূর্বে তিনি চেন্নাইতে অবস্থান করলেও আর্থিক সমস্যা ও পারিবারিক দায়বদ্ধতার কারণে এখন জন্মভূমি মালিয়াদুথুরাইতে ফিরে এসে সেখানেই বাস করছেন। 

২০১৭ সালে তিনি যখন পিঠের সমস্যায় শয্যাশায়ী ছিলেন তখন ছবি আঁকার প্রতি তার আগ্রহ জন্মে। বিশেষ করে প্রতিকৃতি আঁকার চেষ্টা করেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে এই শিল্প দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে এ কাজ শুরু করেন। আমার কাছে সমস্যা ভুলে যাওয়া এবং সামান্য কিছু অর্থ উপার্জনের জন্য আঁকাআঁকির এই মাধ্যমটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়- বলেন ভিগনেশ। 

তিনি আরো বলেন, শুরুতেই আমি এটি থেকে কোনো অর্থ উপার্জন করতে পারিনি। আমি প্রথমে বিভিন্ন বিখ্যাত ব্যক্তি, বিশেষ করে দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমার তারকাদের প্রতিকৃতি অঙ্কন করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করি। সেখানে ভালো সাড়া পাই। লকডাউনের সময় একটি ক্যাবল কোম্পানি শিশুদের জন্য ২৫টি ভিডিও টিউটোরিয়াল করিয়েছিল। সেখান থেকে আমি প্রথম আমার শিল্পকর্মের জন্য ১২ হাজার ৫০০ রুপি আয় করি। তারপর মানুষ আমাকে জন্মদিনের উপহার হিসেবে প্রতিকৃতি তৈরির জন্য বলে। এতে অনুপ্রেরণা পাই আমি। আমার কাছে অনেকেই এই কৌশল শিখতে চাচ্ছেন। এখন আমি চারজন শিক্ষার্থীকে এটি শেখাচ্ছি। 

উল্লেখ্য অরুণ মাথেশ্বরণ পরিচালিত তামিল সিনেমা 'রকি'র জন্য এনএফটি (Non-fungible token) আকারে প্রচারমূলক কিছু জিনিস তৈরি করার জন্য ১১জন শিল্পীকে বেছে নিয়েছেন। এদের মধ্যে ভিগনেশ একজন। 

তথ্যসূত্র: দ্য হিন্দু ও বিবিসি

 

/তারা/ 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়