ঢাকা     বুধবার   ২২ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

‘নিজের টাকা নিজে কামিয়েছি, কোনও স্বামীর সঙ্গে সংসার করিনি’

নিউজ ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:২৫, ২৪ মে ২০২৩  
‘নিজের টাকা নিজে কামিয়েছি, কোনও স্বামীর সঙ্গে সংসার করিনি’

তসলিমা নাসরিন। ছবি: ফেসবুক

তার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টগুলোর জন্য প্রায়ই বিতর্কের শিরোনামে উঠে আসেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। লেখিকার আরও এক ফেসবুক পোস্ট নজর কাড়লো সবার। কী উপায়ে তিনি নিজের মতো করে বেঁচে থাকেন, তা ব্যাখ্যা করেছেন তসলিমা। বলাবাহুল্য, নিজের জীবনের এক ‘ফর্মুলা’ ফাঁস করলেন তিনি।

তসলিমার সিক্রেট
তসলিমার সাম্প্রতিক ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘দুটো কারণে আমি আমার মতো বেঁচে থাকতে পেরেছি। এক. নিজের টাকা নিজে কামিয়েছি। দুই. কোনও স্বামীর সঙ্গে সংসার করিনি।’

নেটিজেন এবং লেখিকার ভক্তরা বলছেন, বরাবরই সাহসী তসলিমা। তাই সোজা কথাগুলো সোজাভাবেই লিখেছেন তিনি। কারও মনে আবার পুরুষতান্ত্রিক সমাজে একজন নারী একলা নিজের মতো করে সফল হতে পারে, তার অনন্য নজির তিনি।

তসলিমা নাসরিনের ফেসবুক পোস্ট

কী বলছেন লেখিকার ভক্তরা?
জনৈক ভক্ত আবার লিখেছেন, ‘আরও একটা হলো, বাচ্চা নেননি।’ উত্তরে ‘একজাক্টলি’ লিখেছেন তসলিমা। কেউ আবার লিখেছেন, ‘ভালো থাকার বিষয় নয় নিজের মতো থাকা। স্বাধীন থাকা।’ একজনের মতে, ‘নিজের উপার্জন আর সুস্থ শরীর ...এই দুটো থাকলেই জীবন এক উদযাপনের অভিযাত্রা। আপনার জন্যে শুভেচ্ছা রইল।’ কারও আবার কমেন্ট, ‘কোনও অপছন্দের সমঝোতা করতে হয় না, জীবন নদীতে নিজের নৌকোর দাঁড় নিজের হাতে, এর থেকে আনন্দের আর কী হতে পারে!’ কেউ আবার সহমত জানিয়ে সেলাম ঠুকেছেন লেখিকাকে।

কী প্রতিক্রিয়া তসলিমার সমালোচকদের?
সমালোচকদের সংখ্যাও কম নয় তার। তসলিমার এই পোস্টে অনেক বিরুদ্ধ মনোভাবপন্ন ব্যক্তিরও কমেন্ট দেখা গেছে। লেখিকার কাছে একজনের প্রশ্ন, ‘ভয়ঙ্কর চিন্তাভাবনা, তাহলে তো সারা পৃথিবীর মানুষ স্বাধীন থাকতে চায়। এই ভাবনা যদি আপনার বাবা মা করতো ?’

অপর একজন নেটিজেনের পরামর্শ, ‘সম্পর্ক ছাড়া জীবন অর্থহীন। আমাকে কেউ ভালোবাসলে আমি আমি হই। আমি তো নিজেকে নিজে দেখতে পাই না।’

তবে নেটিজেনদের বিরূপ মন্তব্য নিয়ে কখনই মাথা ঘামান না তসলিমা নাসরিন। নিজের মনের ভাব স্পষ্টভাবেই ব্যক্ত করেন তিনি। আরও এক ফেসবুক পোস্টে তসলিমা লিখেছেন, ‘এ জীবনে আমি যাদের খুব ভালোবেসেছি, তারা আমাকে কেউই ভালোবাসেনি। হয়তো খানিকটা বেসেছে, তবে আমার মতো উজাড় করে নয়। যারা আমার বাঁধন ছেড়ে যেতে চেয়েছে, তাদের আমি চিরকালই নির্বিঘ্নে যেতে দিয়েছি।’

সূত্র: এই সময়, তসলিমা নাসরিনের ফেসবুক পোস্ট

/এসবি/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়