ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ১১ ১৪৩১

ওড়িশায় এক দিনের শোক, তদন্ত কমিটি গঠন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:২৬, ৩ জুন ২০২৩   আপডেট: ১১:৪৭, ৩ জুন ২০২৩
ওড়িশায় এক দিনের শোক, তদন্ত কমিটি গঠন

ভারতের ওড়িশা রাজ্যে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় দুই শতাধিক মানুষ মারা গেছেন। এ দুর্ঘটনার কারণ জানতে উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া, রাজ্যে একদিনের শোক ঘোষণা করা হয়েছে। 

শনিবার (৩ জুন) সকালে দেশটির কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বলেন, এটা একটা  ভয়ঙ্কর মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। রেল, এনডিআরএফ, এসডিআরএফ এবং রাজ্য সরকার একযোগে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। আহতদের সর্বোত্তম স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হবে। শুক্রবারই (২ জুন) ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্তের জন্য একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ২৩৩

এর আগে শুক্রবার রাতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবার এবং আহতদের জন্য ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছে ভারতের রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। 
এক টুইটে রেলমন্ত্রী বৈষ্ণব লেখেন, ওড়িশায় মর্মান্তিক এই রেল দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবার পিছু ১০ লাখ রুপি ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করা হয়েছে। গুরুতর আহতদের ২ লাখ এবং কম আঘাত পেয়েছেন যারা, তাদের ৫০ হাজার রুপি করে সহায়তা দেওয়া হবে।

এক দিনের শোক ঘোষণা করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক বলেন, শনিবার রাজ্যে কোনো উৎসব পালন করা হবে না, পালিত হবে শোক।

আরও পড়ুন: প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ণনায় ভারতের ট্রেন দুর্ঘটনা

রেলওয়ের মুখপাত্র অমিতাভ শর্মা বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ শালিমার থেকে চেন্নাইগামী করমণ্ডল এক্সপ্রেসের ১০-১২টি বগি বালেশ্বরের কাছে লাইনচ্যুত হয়। দুর্ঘটনায় করমণ্ডল এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুত বগিগুলো ছিটকে পড়ে উল্টো দিকের লাইনে। কিছুক্ষণ পর উল্টো দিকের লাইন দিয়ে আসে হাওড়াগামী যশবন্তপুর এক্সপ্রেস। সেই ট্রেনটি করমণ্ডল এক্সপ্রেসের ছিটকে পড়া বগির ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে যশবন্তপুর এক্সপ্রেসেরও ৩ থেকে ৪টি বগি লাইনচ্যুত হয়। 

এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৩৩ জন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন ৯০০। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চলছে।

ঢাকা/ইভা 

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়