ঢাকা     রোববার   ১৪ জুলাই ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

রাশিয়ান প্রেমিকার ১১৩ ডলার চুরি করায় মার্কিন সেনার ৪ বছরের জেল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:২২, ১৯ জুন ২০২৪   আপডেট: ১৬:২৫, ১৯ জুন ২০২৪
রাশিয়ান প্রেমিকার ১১৩ ডলার চুরি করায় মার্কিন সেনার ৪ বছরের জেল

রুশ প্রেমিকার কাছ থেকে ১১৩ মার্কিন ডলার চুরি এবং তাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার দায়ে যুক্তরাষ্ট্রের একজন সেনাকে প্রায় চার বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন রাশিয়ার একটি আদালত। বুধবার (১৯ জুন) এই দুই অপরাধে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে এই সাজা দিয়েছেন আদালত। রুশ আদালত কক্ষে থাকা একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

আদালতের এই রায় যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর একজন বিবাহিত স্টাফ সার্জেন্ট ও একজন রাশিয়ান নারীর আলোচিত সম্পর্কের সমাপ্তি টানলো, যা দক্ষিণ কোরিয়া থেকে শুরু হয়ে রাশিয়া পর্যন্ত পৌঁছেছিল। 

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ৩৪ বছর বয়সী গর্ডন ব্ল্যাক যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর একজন স্টাফ সার্জেন্ট। গত ২ মে রাশিয়ার সুদূর পূর্বাঞ্চলীয় শহর ভ্লাদিভোস্টক থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে রুশ পুলিশ। প্রেমিকা আলেকজান্দ্রা ভাসচুকের সঙ্গে বিবাদের পর তাকে আটক করা হয়। তারা দুজন দক্ষিণ কোরিয়ায় চাকরিকালীন সময়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন।

আজ বুধবার রাশিয়ার ভ্লাদিভোস্টকের পারভোমাইস্কি ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে গর্ডন ব্ল্যাকের বিচার হয়। আদালতের বিচারক ইয়েলেনা স্টেপানকোভা রুশ প্রেমিকার পার্স থেকে ১০ হাজার রুবেল (১১৩ ডলার) চুরি এবং তাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার জন্য দোষী সাব্যস্ত করে তিন বছর ৯ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। একই সঙ্গে চুরি করা ১০ হাজার রুবেল ফেরত দেওয়ার আদেশ দিয়েছেন। 

রায় ঘোষণার সময় গর্ডন ব্ল্যাক আদালত রুমে কাঁচঘেরা একটি কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে ছিলেন। তার প্রেমিকা ভাসচুক আদালতে আসেননি। 

গর্ডন ব্ল্যাক হত্যার হুমকির অভিযোগ অস্বীকার করলেও অর্থ নেওয়ার অভিযোগ আংশিক স্বীকার করেছেন। প্রসিকিউটররা চার বছর আট মাসের কারাদণ্ড চেয়েছিলেন, আর গর্ডনের আইনজীবীরা সব অভিযোগ থেকে তার খালাস চেয়েছিলেন।

গর্ডনের আইনজীবীরা রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন। 

গর্ডন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীতে স্টাফ সার্জেন্ট পদে দক্ষিণ কোরিয়ায় কর্মরত ছিলেন। তবে তার স্ত্রী-সন্তান থাকে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে। গর্ডনের রুশ বান্ধবীও দক্ষিণ কোরিয়ায় কর্মরত ছিলেন। তবে কলহের জেরে তিনি নিজ দেশ রাশিয়ায় ফিরে যান। 

গত এপ্রিল মাসে দক্ষিণ কোরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের সামরিক ঘাঁটিতে ফিরে যাওয়ার কথা ছিল গর্ডনের। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে ফেরার পরিবর্তে বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করতে তিনি প্রথম চীনে এবং তারপর রাশিয়ায় যান।

এ ঘটনা সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবহিত করে মস্কো। পরে মার্কিন সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তার পরিবারকে বিষয়টি জানানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা সদর দপ্তর পেন্টগন জানিয়েছে, গর্ডন অনুমতি ছাড়াই চীন ও রাশিয়া ভ্রমণ করে সেনাবাহিনীর নিয়ম ভঙ্গ করেছেন।

গর্ডনের স্ত্রী মেগান গত মাসে রয়টার্সকে বলেছিলেন, গর্ডন ও ভাসচুকের মধ্যে একটি উত্তেজনাপূর্ণ সম্পর্ক ছিল।

গর্ডনের মা মেলোডি জোন্স রয়টার্সকে বলেছেন, গর্ডন ভাসচুকের সঙ্গে দেখা করতেই রাশিয়ায় গিয়েছিল, তবে তারা ‘বিড়াল ও কুকুরের মতো লড়াই করেছিল’।

/ফিরোজ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়