ঢাকা     বুধবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৮ ১৪২৭ ||  ০৫ সফর ১৪৪২

জাপানের নাগরিক হত্যা : চারজনের সাক্ষ্য

মামুন খান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:৩৪, ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
জাপানের নাগরিক হত্যা : চারজনের সাক্ষ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর উত্তরায় জাপানের নাগরিক হিরোই মিয়াতা হত্যা মামলায় চারজনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত।

রোববার ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মাকছুদা পারভীন তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর পরবর্তী সাক্ষ্যের তারিখ ধার্য করেন।

সাক্ষীরা হলেন- উত্তরা সিটি হোমস আবাসিক হোটেলের পরিচালক শাহদাত ফিরোজ শিকদার, নিপরাত্তারক্ষী মো. বোরহান, মো. আব্দুল খালেক ও মো. শাহজাহান। এ নিয়ে মামলাটিতে সাতজনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হলো।

মামলার আসামিরা হলেন- এইচ এম জাকির হোসেন পাটোয়ারী ওরফে রতন,  মারুফুল ইসলাম, রাশিদুল ইসলাম বাপ্পি, ফখরুল ইসলাম, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন পাটোয়ারী ও ডা. বিমল চন্দ্র শীল। আসামিরা সবাই জামিনে আছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২৬ অক্টোবর আসামিরা কৌশলে হিরোই মিয়াতাকে অপহরণ করে আটকে রাখে। ২৯ অক্টোবর তাকে হত্যা করে গোপনে উত্তরার একটি কবরস্থানে দাফন করে আসামিরা।

জানা যায়, ডা. বিমল চন্দ্র শীল ওই নারীর চিকিৎসা করছিলেন। জাপানের ওই নারী ২০০৬ সাল থেকে বাংলাদেশে বাস করছিলেন। পোশাক ব্যবসায়ীদের গাইড হিসেবে কাজ করতেন তিনি। ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও তিনি বাংলাদেশে ছিলেন। উত্তরার ৬ নম্বর সেক্টরের ১৩/বি নম্বর সড়কের ৮ নম্বর হোল্ডিংয়ের সিটি হোমসে থাকতেন। ওই বছরের আগস্টে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় যান তিনি। ২৬ অক্টোবর থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ পায় তার পরিবার। এরপর তার মা ঢাকার জাপানি দূতাবাসকে জানান।  ১৯ নভেম্বর জাপানের এক কর্মকর্তা উত্তরা পূর্ব থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

আরো জানা যায়, ২৫ অক্টোবর থেকে ওই নারী অসুস্থ ছিলেন। তাকে দোকান থেকে ওষুধপত্র এনে খাওয়ানো হয়। ২৯ অক্টোবর তাকে হত্যা করা হয়। ওই দিনই আসামি মারুফুল ইসলাম হালিমা খাতুন পরিচয়ে উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টরের খালেরপাড় কবরস্থানে হিরোই মিয়াতাকে দাফন করেন।

ওই ঘটনায় উত্তরা-পূর্ব থানার পুলিশ পরিদর্শক মিজানুর রহমান হাওলাদার বাদী হয়ে ঘটনার প্রায় এক মাস পর ২২ নভেম্বর মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত করে সংশ্লিষ্ট থানার অফিসার ইনচার্জ আবু বকর মিয়া ২০১৬ সালের ৩০ জুন ওই ছয়জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন।  একই আদালত ওই বছরের ৩ নভেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ সেপ্টেম্বর ২০১৯/মামুন খান/রফিক

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়