ঢাকা     সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৯ ||  ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ৯ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:১৬, ২৪ নভেম্বর ২০২২  
পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ৯ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

ছবি: প্রতীকী

উজ্জ্বল মিয়া নামে কুড়িগ্রাম থানার এক কনস্টেবল এবং তার সহযোগী মামুন মাদবরের বিরুদ্ধে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৯ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কালার ভিশন, ৩ ডিআইটি এক্সটেনশন এভিনিউ, হক চেম্বারের অফিস সহকারী রাসেল আহমেদের কাছ থেকে গত ৬ নভেম্বর তারা এ টাকা ছিনিয়ে নেন। এ অভিযোগে বুধবার মতিঝিল থানায় মামলা করেন রাসেল। পরে উজ্জ্বল মিয়াকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মতিঝিল থানার সাব-ইন্সপেক্টর মুরাদ হুসাইন আসামিকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আসামির পক্ষে হাফিজুর রহমান তোতা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে এর বিরোধিতা করা হয়।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকার অ্যাডিশনাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেনের আদালত উজ্জ্বলের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী হাফিজুর রহমান রিমান্ডের তথ্য জানান।

শরীয়তপুরের ডামুড্যা থানার চর মালগাঁও গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে উজ্জ্বল মিয়া। একই থানার ইসলাম মাদবর বাড়ীর আব্দুল আলীম মাদবরের ছেলে মামুন মাদবর।

এদিকে মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ৬ নভেম্বর প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার শাহ আলম বাদী রাসেলকে ৯ লাখ টাকা দেয় মালিলের আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক মতিঝিল শাখার অ্যাকাউন্টে জমা দিতে। তিনি সকাল ১০টার দিকে টাকা নিয়ে মতিঝিল থানাধীন জনতা ব্যাংকের পাশে আসামাত্র মোটরসাইকেল নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা একজন নিজেকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে পরিচয় জানতে চাই। ব্যাগ চেক করে এবং টাকা দেখে বলে, সে অবৈধ ব্যবসা করে টাকা উপার্জন করেছে। তাকে মারধরও করে। মামলা আছে জানিয়ে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি-হুমকি দিতে থাকে। তার সাথে কথা বলার একপর্যায়ে আরেকজন এসে বলে, স্যার যা বলে তাই শোন, তোর ভালোর জন্য বলতেছি। তুই মোটরসাইকেলে ওঠ, না হলে স্যার কিন্তু তোর কঠিন ক্ষতি করবে। রাসেল ভয় পেয়ে মোটরসাইকেলে উঠে। 

তাকে হানিফ ফ্লাইওভারের সায়েদাবাদ ঢালে এনে নামিয়ে দেয় ওই ব্যক্তি। পুলিশ পরিচয় দেওয়া ওই ব্যক্তি ৯ লাখ টাকা নিয়ে যায়। রাসেলের পকেটে থাকা ২১০০ টাকাও জোর করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর রাসেল ওই দুই ব্যক্তিকে বিভিন্ন জায়গায় খুঁজতে থাকে। বুধবার সকাল ১১টার দিকে মতিঝিল সিটি জেন্স ব্যাংক লি. এর প্রধান শাখার সামনে ওই দুই ব্যক্তিকে দেখে রাসেল। উপস্থিত লোকজনের সহায়তা নিয়ে তাদের আটকানোর চেষ্টা করে। উজ্জ্বল মিয়াকে আটক করতে সক্ষম হলেও অপরজন পালিয়ে যায়।

ঢাকা/মামুন/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়