Breaking News
রাজধানী সুপার মার্কেটে আগুন
X
ঢাকা, বুধবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

এপসম সল্টের বিস্ময়কর উপকারিতা

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৯ ১০:৫০:৪৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১৯ ১০:৫০:৪৯ এএম

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে নানান সমস্যা লেগেই আছে। ছোটখাটো অসুখ বা রোগের জন্যে আমরা অনেক সময়েই ঘরোয়া টোটকা কাজে লাগিয়ে থাকি যার সুফল আমরা হাতেনাতে পাই। এরকমই একটা ঘরোয়া টোটকা হলো এপসম সল্ট।

শতশত বছর ধরে কোষ্ঠকাঠিন্য, একজিমা ও ফাইব্রোমায়ালজিয়া বা সারা শরীরে ব্যথার চিকিৎসা হিসেবে এ লবণ ব্যবহার করা হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে এপসম সল্ট কোনো লবণ নয়, এটি দেখতে লবণের মতো বলে এরকম নামকরণ হয়েছে। এপসম সল্ট হচ্ছে একটি রাসায়নিক যৌগ যেখানে ম্যাগনেসিয়াম, সালফার ও অক্সিজেন রয়েছে। যখন এ লবণকে পানিতে মেশানো হয় তখন এটি থেকে ম্যাগনেসিয়াম ও সালফেট আয়ন নির্গত হয়, যা ত্বকের মাধ্যমে শোষিত হয়ে গুরুত্বপূর্ণ শারীরিক কাজে অবদান রাখে। এখানে এপসম সল্টকে পানিতে মিশিয়ে ব্যবহারের কিছু বিস্ময়কর উপকারিতা আলোচনা করা হলো।

পেশির ব্যথা কমায় : বাথটাবে এপসম সল্ট মিশিয়ে বসে/শুয়ে থাকা জনপ্রিয়তা পাওয়ার একটি কারণ হচ্ছে, এটি কঠোর পরিশ্রম বা ব্যায়ামের পর মাংসপেশিতে যে ব্যথা অনুভূত হয় তা উপশমে সহায়তা করতে পারে। কিছু বিশেষজ্ঞ বিশ্বাস করেন যে, এ লবণের কেমিক্যাল কম্পোজিশন (ম্যাগনেসিয়াম সালফেট) ত্বকে শোষিত হয়ে পেইন রিসেপ্টরকে বাধা দিয়ে ব্যথার অনুভূতি হ্রাস করতে পারে। এটা সত্য যে ম্যাগনেসিয়াম গ্রহণে পেইন রিসেপ্টর বাধাপ্রাপ্ত হয়, কিন্তু এপসম সল্টের বাথে বসলেই যে পেশি ব্যথা নিরাময় হবে এমনটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না, বলেন এমএমজে ল্যাবসের প্রতিষ্ঠাতা/সিইও ও মেডিক্যাল কলেজ অব জর্জিয়ার সহযোগী অধ্যাপক অ্যামি বাক্সটার। তাই এপসম সল্ট বাথ আপনার পেশি ব্যথা দূর করুক কিংবা না করুক, আপনি অন্তত রিলাক্স হতে পারবেন।

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা হ্রাস করে : জয়েন্টের ব্যথা কমাতেও এপসম সল্ট ব্যবহার করতে পারেন। রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিসের যেসব লোক তাদের জয়েন্টকে কুসুম গরম পানির এপসম সল্ট বাথে ডুবিয়েছিল তাদের আর্থ্রাইটিসের ব্যথা উল্লেখযোগ্য মাত্রায় হ্রাস পেয়েছিল, কিন্তু যারা এ কাজে সাধারণ লবণ ব্যবহার করেছিল তারা এ ধরনের সুফল পাননি, ক্লিনিক্যাল অ্যান্ড এক্সপেরিমেন্টাল রিউম্যাটলজিতে প্রকাশিত গবেষণা অনুসারে। এক গ্যালন বা পাঁচ লিটার পানিতে দুই কাপ এপসম সল্ট মিশিয়ে তাপ দিন- লবণ মিশ্রিত এ পানি কুসুম গরম পানিতে রূপ নিলে আক্রান্ত জয়েন্টকে ভেজান অথবা সেখানে গরম সেঁক দিন।

একজিমা উপশম করে : যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল একজিমা অ্যাসোসিয়েশন শুষ্ক, খসখসে ও চুলকানিযুক্ত লাল ত্বক অথবা একজিমার ঘরোয়া চিকিৎসা হিসেবে এপসম সল্ট বাথের পরামর্শ দিচ্ছে। আপনার একজিমা থাকলে ত্বককে আরাম দিতে এপসম সল্ট লবণ মিশ্রিত পানিতে কিছুসময়ের জন্য বসে থাকতে পারেন।

স্প্লিন্টার বা হুল অপসারণ সহজতর করে : আপনার শরীরে স্প্লিন্টার বা কঠিন বস্তুর তীক্ষ্ম টুকরো ঢুকলে ওই স্থানকে এপসম সল্ট মিশ্রিত পানিতে ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখলে এটি সহজে অপসারণ করা যেতে পারে, যুক্তরাষ্ট্রের এপসম সল্ট কাউন্সিল অনুসারে। এ সংস্থার প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ আছে, এপসম সল্ট ত্বকের ওপর ওসমোটিক প্রেশার বৃদ্ধি করে, যা শরীরে বিদ্ধ হওয়া কোনো বস্তুকে ত্বকের বাইরের দিকে টানে।

ত্বকের মৃতকোষ দূরীকরণে সাহায্য করে : অন্যান্য দানাদার লবণের মতো এপসম সল্টও এক্সফোলিয়্যান্ট হিসেবে কাজ করতে পারে, অর্থাৎ এ লবণ ত্বকের মৃতকোষ তুলে ফেলতে সহায়তা করে, এপসম সল্ট কাউন্সিলের প্রতিবেদন অনুযায়ী। ১/৪ কাপ নারকেল তেলে দুই টেবিল চামচ এপসম সল্ট মিশিয়ে ঠোঁট থেকে পায়ের আঙুল পর্যন্ত ত্বকের যেকোনো স্থানের মৃতকোষ দূর করতে ঘষতে পারেন।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে : যারা কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগছেন তাদের ক্ষেত্রে এপসম সল্ট ল্যাক্সাটিভ (মল নিঃসারক) হিসেবে কাজ করতে পারে, অর্থাৎ এপসম সল্ট ও পানির দ্রবণ কোষ্ঠকাঠিন্যে মলত্যাগে সহায়তা করে। একটি গবেষণা বলছে যে এপসম সল্ট মিশ্রিত পানি পানে শক্তিশালী ল্যাক্সাটিভ ইফেক্ট পাওয়া যায়। আট আউন্স পানিতে দুই চা-চামচ এপসম সল্ট মিশিয়ে পান করতে পারেন। এ পানীয়তে স্বাদ আনতে লেবুর রস যোগ করতে পারেন।

সাইনাসের সমস্যা দূর করে : ইন্টিগ্রেটিভ মেডিসিনের ডাক্তার তাজ ভাটিয়া বলেন, সাইনাস খুলতে অথবা নাকবদ্ধতা দূর করতে এপসম সল্ট, রোজমেরির নির্যাস ও ইউক্যালিপটাসের নির্যাস মিশ্রিত সিদ্ধ পানির বাষ্প শ্বাস টেনে গ্রহণ করলে কার্যকর ফল পাওয়া যেতে পারে। কিন্তু এ প্রক্রিয়ার সময় নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন, যেন দুর্ঘটনাক্রমে আপনার সাইনাস ক্ষতিগ্রস্ত হতে না পারে।

পায়ের ছত্রাক ঘটিত সমস্যা দূর করে : এপসম সল্টের মেশানো পানিতে পা ভিজালে পায়ের ছত্রাকজনিত সমস্যা প্রতিরোধ ও প্রতিকার হতে পারে, বলেন পুষ্টি বিশেষজ্ঞ রায় সাহেলিয়ান। তিনি আরো বলেন, ‘এপসম সল্ট ড্রাইং এজেন্ট (ত্বক শুষ্ককারী) হিসেবে কাজ করে।’

সোরিয়াসিসে আরাম দেয় : যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সোরিয়াসিস অ্যাসোসিয়েশন যন্ত্রণাদায়ক, চুলকানিযুক্ত প্লেকের চিকিৎসা ও সোরিয়াসিসের আঁইশ দূর করতে এপসম সল্টকে ঘরোয়া চিকিৎসা হিসেবে ব্যবহার করতে পরামর্শ দিচ্ছে। এ সংস্থার প্রতিবেদনে আরো আছে, কিন্তু নিশ্চিত হোন যে সোরিয়াসিস আক্রান্ত স্থানকে এপসম ও পানির দ্রবণে ভেজানোর পর আর্দ্র করেছেন, কারণ এ লবণ ত্বককে খুব শুষ্ক করতে পারে আর শুষ্ক ত্বকের সোরিয়াসিস আরো খারাপ হতে পারে।



ঢাকা/ফিরোজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন