Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ৬ ১৪২৮ ||  ০৬ রমজান ১৪৪২

শীতে বন্ধ নাক খোলার ৬ উপায়

এস এম গল্প ইকবাল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:২১, ১২ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১০:৫১, ১২ নভেম্বর ২০২০
শীতে বন্ধ নাক খোলার ৬ উপায়

শীতকালে ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়ার কারণে নাক বন্ধ হয়ে যেতে পারে। নাক বন্ধ হওয়া স্বস্তিকর কিছু নয়। এতে শ্বাসকার্য চালাতে অসুবিধা হয়। বন্ধ নাক খুলতে প্রথমেই ওষুধ ব্যবহারের প্রয়োজন নাও হতে পারে, কারণ কিছু ঘরোয়া উপায় অনুসরণে নাক খুলে যেতে পারে।

নাকের দুই পাশই বন্ধ হলে ঘরোয়া চিকিৎসা শুরু করতে পারেন, কিন্তু নাকের একপাশ বন্ধ হলে চিকিৎসকের কাছে চলে যান। টিউমার, ফাঙ্গাল ইনফেকশন ও অন্যকোনো মারাত্মক রোগে নাকের একপাশ বন্ধ হতে পারে। এখানে নাকের উভয় পাশের প্রতিবন্ধকতা দূর করতে ছয়টি ঘরোয়া উপায় দেয়া হলো।

ঝাল মরিচের গুঁড়া: ঝাল মরিচের গুঁড়ায় বিদ্যমান ক্যাপসাইসিন সাইনাসকে পরিষ্কার ও শ্বাসক্রিয়াকে সহজতর করতে সহায়তা করে। এটা ব্যথাও কমিয়ে থাকে।শীতকালে আপনার বন্ধ হয়ে যাওয়া নাক খুলতে ঝাল মরিচের চা পান করতে পারেন। এককাপ ফুটানো পানিতে এক-চতুর্থাংশ চা-চামচ ঝাল মরিচের গুঁড়া মিশিয়ে পান করে দেখতে পারেন।

রসুনের ভাপ: রসুনকে কুচিকুচি করে কাটলে অথবা ছেঁচলে অ্যালিসিন নামক নিরাময়কারী উপাদান নিঃসরিত হয়। ডা. ট্রেটনার বলেন, ‘রসুনে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রয়েছে এবং এটা প্রাকৃতিক ঘাতক কোষ শ্বেত রক্তকণিকার সংখ্যা বাড়াতে ও অ্যান্টিবডি উৎপাদনে উদ্দীপনা যোগায়।’ নাক বন্ধ হয়ে গেলে রসুনের ব্যবহারে খুলতে পারে, কারণ এই মসলার অ্যালিসিন শ্লেষ্মাকে পাতলা করতে পারে। এটা শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহও কমায়। রসুনকে ছেঁচে গরম পানিতে মিশিয়ে ভাপ নিতে পারেন অথবা পান করতে পারেন।

পুদিনার চা: আপনার বন্ধ নাক খোলার একটি সুস্বাদু উপায় হলো, পুদিনার চা (পিপারমিন্ট টি) পান করা। পুদিনা চায়ের উষ্ণতা ও প্রশান্তিদায়ক উপাদান (মেনথল) দ্রুত আপনার শ্বাসপ্রশ্বাস সহজতর করতে পারে। এই চায়ে কাজ না হলে অথবা উপসর্গ আরো খারাপ হলে সাইনাসের ইনফেকশন আছে কিনা দেখুন, যেটার চিকিৎসা নিতে চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে।

শরীরকে হাইড্রেটেড রাখুন: শ্লেষ্মায় নাক বা সাইনাস বন্ধ হয়ে গেলে প্রচুর পানি পান করুন অথবা তরল জাতীয় খাবার খান। শরীর হাইড্রেটেড থাকলে নাকের শ্লেষ্মা পাতলা হয়ে সহজেই সাইনাস পরিষ্কার হবে। কুসুম গরম পানি দ্রুত বন্ধ সাইনাসকে খুলতে পারে, তাই সাধারণ পানির পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণে উষ্ণ চা পান করতে পারেন।

ফিঙার ম্যাসাজ: ডা. ট্রেটনার বলেন, ‘এটা শুনতে অদ্ভুত মনে হতে পারে, কিন্তু সাইনাসকে আঙুল দিয়ে ম্যাসাজ করলে পরিষ্করণ প্রক্রিয়া উদ্দীপ্ত হবে ও ব্যথা কমবে।’ নাকের ম্যাক্সিলারি সাইনাসকে তর্জনি দিয়ে ৩০ সেকেন্ড ম্যাসাজ করে ছেড়ে দিন। তিন থেকে চার বার রিপিট করুন।

হিউমিডিফাইয়ার ব্যবহার: আটলান্টার চিকিৎসক অ্যাশলে উড বলেন, ‘শুষ্ক বাতাস নাকের প্যাসেজ ও সাইনাসকে শুষ্ক করে, যা প্রদাহ বাড়ায় ও নাকে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। বন্ধ নাক খোলার একটি চমৎকার উপায় হলো- রুমে হিউমিডিফাইয়ার ব্যবহার করা, কারণ এটা বাতাসে আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনে।’ উষ্ণ পানিতে গোসলও সহায়ক হতে পারে।

ঢাকা/ফিরোজ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়