ঢাকা     শনিবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১১ ১৪৩০

আইজেএসওতে লড়তে থাইল্যান্ড যাচ্ছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ২০:১৫, ২৮ নভেম্বর ২০২৩   আপডেট: ২০:১৯, ২৮ নভেম্বর ২০২৩
আইজেএসওতে লড়তে থাইল্যান্ড যাচ্ছে বাংলাদেশ

আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ২০তম আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড (আইজেএসও ২০২৩)।

অনূর্ধ্ব–১৬ বছর বয়সীদের মেধার এ লড়াইয়ে বিশ্বের ৫৫টি দেশের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। বিজ্ঞান-মেধার এ বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করবে আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক ৯ম বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে সারাদেশ থেকে বাছাইকৃত সেরা ছয়জন শিক্ষার্থী।

তারা হলেন- কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী তাসলিমা তাসনিম লামিয়া ও সিরাজুস সালেকিন সামীন, রাজশাহীর গভ. ল্যাবরেটরি হাইস্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফায়েজ আহমেদ, নটরডেম কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী শুভাশীষ হালদার, ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী মনামী জামান ও ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী সাবিল ইসলাম। 

বাংলাদেশ দলের প্রধান দলপতি হিসেবে আছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী। সহকারী দলনেতা হিসেবে আছেন আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জালাল আহমেদ ও বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের একাডেমিক সদস্য আবিদুর রহমান। আগামী ৩০ নভেম্বর থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা দেবে বাংলাদেশ দল। 

বাংলাদেশ দলের সদস্যদের সবার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৩টায়, বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের সদস্যদেরকে সবার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির সহ-সভাপতি মুনির হাসান।

তিনি বলেন, ‘আইজেএসও হচ্ছে নেটওয়ার্ক তৈরি করার জায়গা। সারাবিশ্ব থেকে বাছাই করা সেরা শিক্ষার্থীরা এখানে আসে। এরাই কিন্তু ১৫-২০ বছর পর বিশ্বে নেতৃত্ব দেবে। তোমরা সেখানে বন্ধুত্ব ও নেটওয়ার্কিং করার চেষ্টা করবে।’ 

বিডিজেএসও এর আরেক আয়োজক বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী বাংলাদেশ দলের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে বলেন, ‘আমাদের মনে হচ্ছে এবারের আইজেএসও টিমটি থাইল্যান্ডে ভালো ফলাফল করবে। আমরা আশা করি, দেশে ফিরলে তোমাদেরকে একটা বড় সংবর্ধনা দিতে পারব।’ 

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জালাল আহমেদ বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে এই আয়োজনের সাথে থাকতে পেরে আল আরাফাহ্ ব্যাংক গর্বিত। এবার আমরা আশাবাদী যে, আমাদের বাংলাদেশ দলের ছয় জনই পদক পাবে।’ 

এ বছর গত আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে শুরু হয় আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক ৯ম বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড। দীর্ঘ প্রচার-প্রচারণা পর ১৫ হাজারের অধিক শিক্ষার্থীদের নিয়ে বাছাই পর্ব, ৪টি আঞ্চলিক পর্ব, ১টি অনলাইনে আঞ্চলিক পর্ব, ১৪টি উপজেলা পর্যায়ে স্কুল অলিম্পিয়াড, ঢাকায় জাতীয় পর্ব ও ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। এরপর টিম সিলেকশন টেস্টের ফলাফল ও তাদের অন্যান্য পারফরম্যান্স বিবেচনা করে ঘোষণা করা হয় ছয় সদস্যের বাংলাদেশ দল।

উল্লেখ্য, প্রতি বছরের মত এবারও আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশ দল নির্বাচন করে যৌথভাবে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি, বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশন এবং জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর।

/ফিরোজ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়