ঢাকা     সোমবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৬ ১৪২৭ ||  ০৩ সফর ১৪৪২

এক সপ্তাহ বিশ্রাম শেষে অনুশীলনে ফিরেছি: জাহানারা

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:১১, ১০ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
এক সপ্তাহ বিশ্রাম শেষে অনুশীলনে ফিরেছি: জাহানারা

করোনার প্রাদুর্ভাবে সেই মধ্য মার্চ থেকে ক্রিকেট এবং ক্রিকেটার কিছুই নেই মাঠে। প্রায় চার মাসের মতো ঘরে ছিলেন ক্রিকেটাররা। তবে গত মাসের শেষে মাঠে ফিরতে শুরু করেছিলেন পুরুষ ক্রিকেটাররা।

পিছিয়ে নেই নারী ক্রিকেটাররা। তারাও মাঠে ফিরেছেন নিজেদের মতো করে। এবার বিসিবির অধীনে অনুশীলনে ফিরেছেন নারী ক্রিকেট দলের তারকা পেসার জাহানার আলম। আর অনুশীলনে ফিরে চনমনে জাহানারা জানালেন, লম্বা বিরতি শেষে ফিরেছেন তিনি, এমনটা নাকি মনেই হয়নি তার। বরং এক সপ্তাহ শেষে মাঠে ফিরেছেন, এমন অনুভূতি হচ্ছিল এ ক্রিকেটারের।

যদিও শুরুতে অন্যদের অনুশীলনে ফেরার বাজে অভিজ্ঞতা ভয় পাইয়ে দিয়েছিল জানিয়ে জাহানারা বলেন, ‘অনুশীলনে ফিরে শান্তি লাগছে। অনেক বেশি তৃপ্তি অনুভব করছি। সংবাদ মাধ্যমে দেখেছি অনেকেই প্রথম দিন অনুশীলনে অস্বস্তি অনুভব করেছে। কারো কারো মাথা ঘুরিয়েছে, দুটি করে বল দেখছিল। ওদের অবস্থা দেখে ভয় পেয়েছিলাম, ভাবছিলাম কী অবস্থা জানি হয়! তবে আমার তেমন কিছু হয়নি।’

১৫ জুন থেকে একাকী ফিটনেস ট্রেনিং করায় কোনো সমস্যা হয়নি বলে মনে করেন এই নারী ক্রিকেটার। তবে শুরুতে শারীরিক একটু ব্যাথা ছিল। এদিকে বোলিং অনুশীলনে ফিরতে পেরে ভালো অনুভব করছেন বলেও জানিয়েছেন জাহানারা। ভালো লাইনে বোলিং করতে পেরেছেন, সুইং পেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন এই নারী গতিতারকা।

তার ভাষ্যে, ‘আমাদের সপ্তাহে তিনদিন ১৮ বল করে করতে বলা হয়েছে। আমি আজ বোলিং শুরু করলাম। পাঁচ মাস পর বোলিং করায় লাইন-লেন্থে কিছুটা সমস্যা হয়েছে। তবে ১৮ বলের ১৪টা জায়গামতো করতে পেরেছি, সুইংও পেয়েছি। আমার বোলিংয়ে দারুন সন্তুষ্ট আমি।’

এদিকে লম্বা সময় পর অনুশীলনে ফিরেছেন বলে নিজের কাছে মনেই হয়নি জানিয়ে জাহানারা আরও যোগ করেন, ‘আমার কাছে মনে হচ্ছে মাত্র এক সপ্তাহ বিশ্রাম নিয়ে অনুশীলনে ফিরেছি আমি। ৬-৭ আগস্ট শ্যামলী ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং অনুশীলন করেছিলাম। ওখানকার কোচও আমাকে দেখে বললেন, তোমাকে দেখে মনেই হচ্ছে না ৫ মাস ধরে তুমি ক্রিকেটের বাইরে। মনে হচ্ছে হয়তো এক সপ্তাহ বাইরে ছিলে।’

এদিকে বিসিবি নারী ক্রিকেটারদেরও অনুশীলন করতে দেওয়ায় তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে সাবেক এই নারী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বলেন, ‘অনেকদিন পর মিরপুরের মাঠে হাঁটলাম। দীর্ঘদিন পর এমন অনুভূতি সত্যিই অসাধারণ। ছেলেদের মতো সুযোগ করে দেওয়ার জন্য বিসিবিকে ধন্যবাদ।’

ঢাকা/কামরুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়