RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ৫ ১৪২৭ ||  ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

স্বপ্নের ক্লাব ছেড়ে আবার ইউরোপে ফিরতে চান আলভেজ

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৩৩, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০  
স্বপ্নের ক্লাব ছেড়ে আবার ইউরোপে ফিরতে চান আলভেজ

দেশের ক্লাব সাও পাওলোতে খেলার স্বপ্ন ছিল ব্রাজিলিয়ান ফুল ব্যাক দানি আলভেজের। সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে গত বছরের আগস্টে। কিন্তু মাঠের বাইরের নানা ঘটনা তাকে এতটাই হতাশ করছে যে, চুক্তির ১৩ মাস পরই স্বদেশী ক্লাব ছাড়তে চাইছেন তিনি।

প্যারিস সেন্ত জার্মেই নতুন চুক্তি না করলে ফ্রি এজেন্ট আলভেজ বলেছিলেন, সাও পাওলোর জন্য খেলার স্বপ্ন দেখেন। তখনই তার স্বপ্ন পূরণ হয়, দেশের ছেলের সঙ্গে ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত চুক্তি করে সাও পাওলো। তাকে সম্মান করে দেওয়া হয় ১০ নম্বর জার্সিও। অভিষেকটা স্মরণীয় করে রাখেন সেয়ারার বিপক্ষে ১-০ গোলের জয়ে একমাত্র গোলটি করে।

কিন্তু ক্লাবটির সঙ্গে এক বছর পর হতেই দম বন্ধ হয়ে আসছে আলভেজের। বার্সা ও পিএসজির সাবেক ডিফেন্ডার এজন্য দায়ী করছেন ক্লাবের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিকে। ক্লাব ভক্তদের একাংশের তীব্র সমালোচনাও ভোগাচ্ছে তাকে।

সম্প্রতি আলভেজকে লক্ষ্য করে কড়া সমালোচনা করে ভক্তরা। কারণটা ছিল করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে বন্ধুদের সঙ্গে একটি পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন। ভক্তরা আরেকবার তার প্রতি ক্ষোভ উগড়ে দেয় চোটে আক্রান্ত হাত নিয়ে সঙ্গীত যন্ত্র বাজানোর জন্য।

এত সমালোচনা আর রাজনৈতিক সমস্যায় মন টিকছে না ক্লাবটির হয়ে ৩৮ ম্যাচে ৯ গোল করা আলভেজের। সাও পাওলো ছাড়া অবশ্যম্ভাবী মনে করছেন। এখন তার একটা চাওয়া, ক্লাব ছাড়া যেন বিতর্কিত না হয়।

দক্ষিণ আমেরিকায় ফেরার আগে পিএসজিতে দুই বছর খেলেন আলভেজ। ২০১৭ সালে লিগ ওয়ান ক্লাবে নেইমারের সতীর্থ হওয়ার আগে মাত্র এক বছর ছিলেন জুভেন্টাসে। প্যারিসে যাওয়ার আগে ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি তাকে পাওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছিল।

ব্রাজিলের হয়ে ১১৮ ম্যাচ খেলা আলভেস তার খ্যাতি অর্জন করেন বার্সেলোনার জার্সিতে। ২০০৮ সালে ন্যু ক্যাম্পে যোগ দেওয়ার পর কাতালানদের হয়ে ৩৯১ ম্যাচ খেলে ২১ গোল করেন এবং ছয়টি লা লিগা ও তিনবার চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জেতেন। অন্যতম সেরা ফুল ব্যাক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হলেও বয়স ৩৭ হওয়ায় ইউরোপের কোন দলে তার ঠাঁই হয়, এখন সেটাই দেখার বিষয়।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়