Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ০৮ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৫ ১৪২৮ ||  ২৫ রমজান ১৪৪২

আইপিএল স্থগিতে বিসিসিআইর ক্ষতি ২ হাজার কোটির বেশি রুপি!

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫৩, ৪ মে ২০২১  
আইপিএল স্থগিতে বিসিসিআইর ক্ষতি ২ হাজার কোটির বেশি রুপি!

করোনাভাইরাসের ছোবলে মাঝপথে স্থগিত করা হয়েছে আইপিএল। আবার কবে শুরু হবে তার নিশ্চয়তা নেই। তবে এই সিদ্ধান্তের কারণে এ বছর ২ হাজার কোটির বেশি রুপি ক্ষতি হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের। ব্রডকাস্ট ও স্পন্সরশিপ থেকে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ পেতো বিসিসিআই।

বোর্ডে এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে পিটিআইকে বলেছেন, ‘এই মৌসুমের মাঝপথে আইপিএল স্থগিতের কারণে আমরা দুই হাজার থেকে আড়াই হাজার কোটি রুপির মতো হারাতে পারি। নির্দিষ্ট করে বলতে গেলে সেটা হতে পারে ২ হাজার ২০০ কোটি রুপি।’

৫২ দিন ও ৬০ ম্যাচের এই টুর্নামেন্ট আগামী ৩০ মে আহমেদাবাদে শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার সংক্রমণের কারণে ২৪ দিনে ২৯ ম্যাচ শেষে বন্ধ করতে হলো টুর্নামেন্ট।

বিসিসিআই সবচেয়ে বেশি অর্থ হারাচ্ছে টুর্নামেন্টের ব্রডকাস্ট রাইটস পাওয়া স্টার স্পোর্টসের কাছ থেকে। ১৬ হাজার ৩৪৭ কোটি রুপিতে স্টার পাঁচ বছরের চুক্তি করেছে, মানে প্রতি বছর ৩২৬৯.৪ কোটি রুপি। এক মৌসুমে যদি ৬০ ম্যাচ হয়, তাহলে প্রত্যেক ম্যাচের মূল্য সর্বোচ্চ ৫৪.৫ কোটি রুপি।

এই পরিমাণ অর্থ যদি স্টার দিয়ে থাকে, তাহলে ২৯ ম্যাচ শেষে তা দাঁড়ায় সর্বোচ্চ ১৫৮০ কোটি রুপি। আর পুরো টুর্নামেন্ট শেষে বোর্ড পেতো ৩২৭০ কোটি রুপি। মানে বোর্ড হারাচ্ছে ১৬৯০ কোটি রুপি।

একইভাবে মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ভিভো ছিল আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর। প্রত্যেক মৌসুমে তাদের দেওয়ার কথা ৪৪০ কোটি রুপি। টুর্নামেন্ট স্থগিতের কারণে এখন তার অর্ধেক পরিমাণ অর্থ পাবে বোর্ড।

এছাড়া ইউএনঅ্যাকাডেমি, ড্রিম ১১, সিরেড, উপসটক্স ও টাটা মটর্সের মতো প্রতিষ্ঠান আইপিএলের সহযোগী স্পন্সর। তাদের কাছ থেকে ১২০ কোটি রুপির মতো উপার্জনের কথা।

তবে টুর্নামেন্ট স্থগিতের কারণে প্রত্যেক ফ্র্যাঞ্চাইজি কী পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির মুখোমুখি হবে তা প্রকাশ করেননি বোর্ডের ওই কর্মকর্তা।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়