ঢাকা     শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ১৭ ১৪২৯ ||  ০১ জিলহজ ১৪৪৩

ইডেনে গাঙ্গুলির সান্নিধ্যে উচ্ছ্বসিত প্রান্তিক

আব্দুল্লাহ এম রুবেল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:২৬, ৮ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১২:৩৩, ৮ ডিসেম্বর ২০২১
ইডেনে গাঙ্গুলির সান্নিধ্যে উচ্ছ্বসিত প্রান্তিক

ক্রিকেটের নন্দনকানন ইডেন গার্ডেন্সে খেলার স্বপ্ন যে কোনো ক্রিকেটারই লালন করেন। অনেকের ভাগ্যে সেই সুযোগ আসে, অনেকের পূরণ হয় না। আর যদি সেখানেই খেলে ‘প্রিন্স অব কলকাতার’ সান্নিধ্য পাওয়া যায় তাহলে তো কথাই নেই! একেবারে সোনায় সোহাগা। বাংলাদেশের যুব ক্রিকেটার প্রান্তিক নওরোজ নাবিল মঙ্গলবার তেমনই একটি দিনের দেখা পেলেন।  

কলকাতায় তিন দলের প্রতিযোগিতায় ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯ বি দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। দলকে চ্যাম্পিয়ন করাতে বড় ভূমিকা ছিল প্রান্তিকের। ৪ ম্যাচে ৫৬.৫০ গড়ে করেছেন ২২৬ রান। হাঁকিয়েছেন একটি দারুণ শতকও। তাতে সিরিজসেরার পুরস্কারটা উঠেছে তার হাতে। 

সেই পুরস্কার গ্রহণ করেছেন বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলির হাত থেকে। ইডেনে গাঙ্গুলির সান্নিধ্যে উচ্ছ্বসিত প্রান্তিক। মুঠোফোনে রাইজিংবিডির সঙ্গে ছোট্ট আলাপনে সেই কথা শুনিয়েছেন যুবা ক্রিকেটার। সঙ্গে বিশ্বকাপ ও ভারত সফর নিয়েও কথা হয়েছে।   

রাইজিংবিডি: দারুণ অর্জনের জন্য আপনাদের অভিনন্দন। 

প্রান্তিক: ধন্যবাদ। 

ভারতের দুটি দলের সঙ্গে খেললেন, কেমন ছিল সিরিজটা?

প্রান্তিক: নিঃসন্দেহে আমরা খুব ভালো একটা সিরিজ খেলেছি, ওরাও অনেক ভালো দল। তবে আমরা মনে হয় ওদের থেকে আমরা প্রস্তুতিটা আগে শুরু করেছি, এই জায়গায় আমরা এগিয়ে ছিলাম। তবে ওরা অনেক ভালো দল। পুরো সিরিজ নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট।

নিজের ব্যাক্তিগত পারফরম্যান্স নিয়ে কতটা তৃপ্ত?

প্রান্তিক: আমরা তিনজন যারা আগের দলের (বিশ্বকাপজয়ী দল) সঙ্গে ছিলাম, এই দলের সঙ্গেও আছি। আমাদের কাছে প্রত্যাশাটাও বেশি থাকে। আমি চেষ্টা করেছি, ভালো করেছি। আলহামদুলিল্লাহ, ভালো লাগছে। ভালো খেলতে পেরেছি বলে। আমার পারফরম্যান্স নিয়েও সন্তুষ্ট। তবে এটা নিয়েই বসে থাকতে চাই না। সামনে আমাদের এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপ আছে। আমার মূল ফোকাসটা থাকবে ওই টুর্নামেন্টগুলোর দিকেই। ওখানেও ভালো করতে হবে। সেটাই মূল লক্ষ্য।

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপে যাবেন। দলটার লক্ষ্যও তো বড় হবার কথা…

প্রান্তিক: আমরা তো বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। তবে আমরা এখনই ঘোষণা দিব না, আমরা বিশ্বকাপ জিতব বা বিশ্বকাপ জিততে চাই। গতবার আমরা প্রতিটি ম্যাচ ধরে চিন্তা করেছি, যেহেতু আমরা ওই প্রক্রিয়াতে সফল হয়েছি, এবারো একইভাবে এগোতে চাই। এবারো আমরা দল নিয়ে অবশ্যই আশাবাদী।

ম্যান অব দ্য সিরিজ হওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলির কাছ থেকে পুরস্কার নিয়েছেন। তার সঙ্গে বিশেষ কোনো কথা হয়েছে?

প্রান্তিক: নাহ বিশেষ কিছু না (হাসি)। আমার ঘাড়ে হাত রেখে অভিনন্দন জানালেন। ভবিষ্যতের জন্য আশীর্বাদ করেছেন। তার আচরণ অতি সাধারণ ছিল। একদম স্বাভাবিক। এত বড় ক্রিকেটের কিংবদন্তির সান্নিধ্য সত্যিই দারুণ। আমি রীতিমতো মুগ্ধ।

ঢাকা/রিয়াদ/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়