ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

‘ব্যক্তিগত চাওয়া নেই, দলের চাহিদা পূরণই একমাত্র লক্ষ্য’

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৫৬, ৩০ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ১৮:৫৯, ৩০ এপ্রিল ২০২২
‘ব্যক্তিগত চাওয়া নেই, দলের চাহিদা পূরণই একমাত্র লক্ষ্য’

আড়াই বছর পর টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে মেহেদি হাসান মিরাজের চোটে দলে প্রয়োজন হয় একজন ব্যাটিং অলরাউন্ডারের। তাতেই দরজা খুলে যায় মোসাদ্দেকের। লিস্ট এ ক্রিকেটে সম্প্রতি দারুণ ছন্দে থাকলেও লংগার ভার্সনে উল্লেখযোগ্য কিছু করেননি। তবুও তার ওপর আস্থা রেখেছেন নির্বাচকরা।

এক সময়ে জাতীয় দলে নিজের জায়গা পাকাপোক্ত থাকলেও পারফরম্যান্সের অধারাবাহিকতায় ছিটকে যান মোসাদ্দেক। এবার হুট করে পাওয়া সুযোগটি কোনোভাবেই হারাতে চান না মোসাদ্দেক। রাইজিংবিডির সঙ্গে খোলামেলা আলাপনে সেকথাই শোনালেন তিনি,

আড়াই বছর পর টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন। প্রত্যাশিত ছিল কিনা?

মোসাদ্দেক হোসেন: প্রত্যাশিত বলতে আমি গত কয়েকবছর ধরে ভালো খেলছিলাম ঘরোয়া ক্রিকেটে, ধারাবাহিক ছিলাম। ভালো খেলতে থাকলে যে কেউই আশা করে দলে সুযোগ পাওয়ার। সেই জায়গা থেকে আমিও আশা করছিলাম, প্রত্যাশা করছিলাম এমন কিছু। এটাই আর কী।

লিস্ট এ ক্রিকেটে আপনি দারুণ খেলছেন। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে, বিসিএলের ওয়ানডেতে আপনার পারফরম্যান্স দারুণ। কিন্তু ডাক পেয়েছেন টেস্টে…

মোসাদ্দেক হোসেন:  বিসিএলে আমি একটা চার দিনের ম্যাচ খেলেছি। এর আগে ফার্স্ট ক্লাসে লাস্ট একটা ফোর ডে খেলেছি। আমার একটা ফিফটিও আছে সেখানে। অন্য ফরম্যাট হলেও সম্প্রতি ভালোই ক্রিকেট খেলছি। এ ছাড়া ফার্স্ট ক্লাসে আমার আগের খেলার রেকর্ডও হয়তো বিবেচনা করেছেন নির্বাচকরা।

আপনি প্রস্তুত কিনা…

মোসাদ্দেক হোসেন:  এর আগেও আমি বলেছি এটা, নির্বাচকরা আমাকে যখন যেখানে, যে সংস্করণে মনে করবে আমি খেলার জন্য প্রস্তুত।

দীর্ঘদিন পর আবার টেস্ট দলে। নিশ্চয় আপনার প্রত্যাশা দারুণ কিছু করার…

মোসাদ্দেক হোসেন: দলের প্রয়োজনমতো অবশ্যই আমার সেরাটা দিয়ে খেলার ইচ্ছা থাকবে, প্রত্যাশা থাকবে। আমার কাছে সবার আগে দল। দল আমাকে যেটা করতে বলবে, যেভাবে করতে বলবে আমি সেটাই করার চেষ্টা করব।

এবারের পাওয়া সুযোগ কাজে লাগাতে চান কিনা?

মোসাদ্দেক হোসেন:  আমিতো অবশ্যই চেষ্টা করব আমার যে সুযোগ আসে সে সুযোগটা কাজে লাগানোর জন্য। আমি যেন দলের জন্য খেলতে পারি, দলের জন্য কিছু করতে পারি এটাই আমার প্রত্যাশা থাকবে। আমার এটা করতে হবে, সেটা করতে হবে এরকম কোনো লক্ষ্য আমার মধ্যে নেই। আমার অবশ্যই চেষ্টা থাকবে দলের প্রয়োজন মতো খেলার জন্য।

যে কারণে জাতীয় দলে জায়গা হারিয়েছেন, যে ঘাটতিগুলো ছিল সেগুলো কি পূরণ হয়েছে?

মোসাদ্দেক হোসেন:  দেখেন সুযোগগুলো আমার জন্য খুবই কঠিন ছিল। যে কারণে আমি যে জায়গায় সুযোগ পেয়েছি সে জায়গাতে দলের যে চাহিদা ছিল বা সুযোগ ছিল হয়তোবা ঐ সময় আমার ব্যক্তিগত কোনো লক্ষ্য অর্জনের জায়গা ছিল না। সবকিছু মিলিয়ে তখন আমি সুযোগ তেমন কাছে লাগাতে পারিনি। অবশ্যই আমি এবার চেষ্টা করবো সেটা যেন কাজে লাগাতে পারি।

ঢাকা/ইয়াসিন

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়