ঢাকা     সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২০ ১৪২৯ ||  ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

বৃষ্টির বাগড়ার দিনে আলোচনায় সাকিবের মায়াবী ঘূর্ণি 

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:০৯, ২৫ মে ২০২২   আপডেট: ২০:৩৯, ২৫ মে ২০২২
বৃষ্টির বাগড়ার দিনে আলোচনায় সাকিবের মায়াবী ঘূর্ণি 

এজন্যই তো তিনি সাকিব আল হাসান! সংবাদ সম্মেলনে এসে তাকে নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অ্যালান ডোনাল্ড। বাংলাদেশ বোলিং কোচের ভাষ্য, ‘সাকিবের মতো ক্রিকেটার টিমে পাওয়া সৌভাগ্য। তার অভিজ্ঞতা, তার নেতৃত্ব মূল্যহীন। খোদ এবি ডি ভিলিয়ার্সও বলেছেন, সাকিবকে খেলা কঠিন।’ এ ছাড়াও তুলোনা করেছেন প্রয়াত কিংবদন্তী স্পিনার শেন ওয়ার্নের সঙ্গে। একটু পরেই আসা শ্রীলঙ্কান সহকারী কোচ নাভেদ নেওয়াজের কণ্ঠেও সাকিবকে নিয়ে প্রশংসার ফুলঝুরি। 

সাকিব কখন কী করবেন, হয়তো নিজেই জানেন না; বাইরের মানুষ তো দূরের কথা। চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার স্বভাববিরুদ্ধ বোলিংয়ে খোদ অবাক হয়েছিলেন লঙ্কান অভিজ্ঞ অলআউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজও। সেই বোলিংয়ের ধার অটুট রেখেছেন বুধবার ঢাকা টেস্টের তৃতীয় দিনও। অসাধারণ ড্রিফটে লঙ্কান অধিনায়ককে ফেরানোর পর শেষ বিকালে যখন বাংলাদেশ উইকেটের জন্য মরিয়া, তখনও ত্রাতা হয়ে আসেন। 

তৃতীয় দিন ৩ ঘণ্টা চলে গেছে বৃষ্টির পেটে। ১২টা ১ মিনিটে বন্ধ হয় খেলা, শুরু হয় বিকাল ৪টায়। মধ্যাহ্ন ও চা-বিরতিতে যায় ১ ঘণ্টা। ২ উইকেটে ১৪৩ রানে দিন শুরু করে শ্রীলঙ্কা। দিন শেষে তাদের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৮২। বাংলাদেশের থেকে এখনও পিছিয়ে আছে ৮৩ রানে। আজ দিনে খেলা হয়েছে ৫১ ওভার। বৃষ্টির বাগড়ায় খেলা হয়নি ৩৯ ওভার। আগামীকাল আধঘণ্টা আগে খেলা শুরু হবে। 

দ্বিতীয় দিন শেষ বিকালে উইকেট নিয়ে লড়াইয়ে ফেরার আভাস দিয়েছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। বৃষ্টিময় শের-ই-বাংলায় বাংলাদেশের সফল বোলারও যে তিনি। আজ দিনে পড়া ৩টি উইকেটে মধ্যে দুটিই যে তার পকেটে। যদিও দিনের শুরুটা হয়েছিল কাসুন রাজিথার আউটে। দ্বিতীয় বলেই তাকে বোল্ড করে ফেরান ইবাদত। 

এরপর খেলার হাল ধরে প্রতিরোধের আভাস দেন করুণারত্নে-ম্যাথুজ। সুযোগ দিচ্ছিলেন না স্বাগতিক বোলারদের। এক প্রান্তে টানা আঁটসাঁট বোলিং করে যাচ্ছিলেন সাকিব।  তখনই যেন ত্রাতা হয়ে আসেন সাকিব। সেই পুরস্কারও পেয়েছেন হাতেনাতে। নিজের পঞ্চম ওভারে অসাধারণ এক ড্রিফটে (যেখানে বল পড়বে বলে মনে হয়, তার আগেই পড়ে যাওয়া) বোল্ড করে ফেরান করুণারত্নেকে। হাওয়ায় ভাসানো এই ড্রিফটেই যেন পরাস্ত ক্রিজে ঘাঁটি গড়া করুণারত্নে।

বলের ফ্লাইট দেখে পায়ের ব্যবহার করে সামনে খেলতে চেয়েছিলেন লঙ্কান অধিনায়ক। তাতেই বিপদ ডেকে আনেন। ৮০ রানে সাজঘরে ফিরেছেন করুণারত্নে। সাকিব পেয়ে গেলেন নিজের দ্বিতীয় উইকেট। 

করুণারত্নে ফিরলেও লঙ্কান প্রতিরোধ থামেনি। নতুন ব্যাটসম্যান ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে সঙ্গে নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত কাটিয়ে দেন ম্যাথুজ। সাকিবের ১টি ডেলিভারির পরই বৃষ্টি আসে, তখনই মধ্যাহ্ন বিরতি শুরু হয়। বৃষ্টি থামার পর সাকিব যথারীতি শুরু করেন বল। এই ৫ বলের পর অবশ্য আর বোলিং আসেননি। ম্যাথুজ-ধনঞ্জয়া ততক্ষণে থিতু হয়ে গেছেন। তখনও আবার ত্রাতা যে সাকিবই। 

বৃষ্টিতে খেলা থেমে থাকার পর প্রথম উইকেটের জন্য হাহাকার করছিল বাংলাদেশ। ম্যাথুজ-ধনঞ্জয়াকে কোনোভাবেই পরাস্ত করা যাচ্ছিল না। ততক্ষণে তারা শতরানের জুটি গড়ে নিয়েছেন। দুজনেই তুলে নিয়েছিলেন হাফ সেঞ্চুরি। তখনি সাকিবের হাওয়ায় ভাসানো এক বলে বাংলাদেশ শিবির উল্লাসে ভাসে। 

সাকিবের হাওয়ায় ভাসানো বল ফরোয়ার্ড ডিফেন্স করেছিলেন ধনঞ্জয়া। বল ব্যাটে লেগে যায় উইকেটের পেছনে। সাকিব উইকেটের আবেদন করেননি। কিন্তু উইকেটের পেছন থেকে লিটন, শান্ত এবং ফরোয়ার্ডে থাকা জয় আবেদন করে যান। সতীর্থদের আত্মবিশ্বাসী আবেদনে মুমিনুল রিভিউ নেন। রিপ্লেতে দেখা যায় বল ধনঞ্জয়ার ব্যাটে স্পর্শ করে লিটনের গ্লাভসবন্দী হয়েছে। ৯৫ বলে ৫৮ রান করে ধনঞ্জয়া ফেরেন সাজঘরে

এই সাকিবে পাওয়া যাচ্ছে পুরোনো সাকিবের গন্ধ। ধার কমে যাওয়া আর্ম বল যেন হয়েছে আরও নিখুঁত। ব্যাটসম্যানের মন, ম্যাচের পরিস্থিতি বুঝে কার্যকর বোলিংয়ে সাকিবের জুড়ি নেই। এখন যেন আরও ধার বাড়ছে তার। ২৬ ওভারে ৫৯ রান দিয়ে সাকিব চলতি ইনিংসে ৩ উইকেট নেন। অ্যালান ডোনাল্ডের চাওয়া আগামীকাল ‘ফাইফার’, মানে ইনিংসে পাঁচ উইকেট হয়ে যাবে সাকিবের। 

শুধু ডোনাল্ডের না; এটাতো সবারই চাওয়া। তিনি ফাইফার পেলে লাভ তো বাংলাদেশেরই!

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়