ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ১১ ১৪৩১

সাইফ-সৈকতের ফিফটি, রবিউলের ৪ উইকেট, কাছে গিয়ে সিটির হার

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৩৯, ২১ মার্চ ২০২৩  
সাইফ-সৈকতের ফিফটি, রবিউলের ৪ উইকেট, কাছে গিয়ে সিটির হার

সাইফ হাসান-সৈকত আলীর ফিফটিতে ভর করে বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। অধিনায়ক রবিউল হকের দুর্দান্ত বোলিংয়ের পরও ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় অল্পের জন্য হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে সিটি ক্লাবকে।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার টস জিতে আগে ব্যাটিং করে ৪৯.৪ ওভারে ২২৮ রানে অলআউট হয় শেখ জামাল। বৃষ্টির বাধার পর ম্যাচ শুরু হলে সিটির সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩২ ওভারে ১৬৮। ৮ উইকেটে তারা ১৬২ রানে থামে। ৫ রানের জয়ে শেষ হাসি হাসে সোহানের দল।

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকা সিটির হয়ে লড়াই করেছিলেন রাফসান আল মাহমুদ ও আসিফ আহমেদ রাতুল। রাফসান ৩৯ বলে ৩৬ রান করে সাজঘরে ফিরলেও অপরাজিত ছিলেন রাতুল। তিনি ২৭ বলে ২২ রান করে মাঠ ছাড়েন। সর্বোচ্চ ৪২ আসে ওপেনার তৈফক খান তুষারের ব্যাট থেকে।

জামালের হয়ে দারুণ বোলিং করেন শফিকুল ইসলাম। ৭ ওভারে ৩৭ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন পারভেজ রসুল, জিয়াউর রহমান ও তাইবুর রহমান।

এর আগে ব্যাটিং করতে নেমে দারুণ শুরু করে শেখ জামাল। দুই ওপেনার সাইফ-সৈকত ফিফটি করে দলের ভিত গড়ে দেন। ৭৯ বলে সর্বোচ্চ ৫৬ রান আসে সাইফের ব্যাট থেকে। আর ৬৩ বলে ৫২ রান করেন সৈকত। তার হাতে ওঠে ম্যাচসেরার পুরস্কার।

এ ছাড়া তাইবুর রহমান ৩৯ ও ফজলে মাহমুদ রাব্বি ৩৬ রান করেন। আজও রান পাননি সোহান। ১৮ বলে ৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন শেখ জামাল অধিনায়ক।

সিটির হয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন রবিউল। ৯ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে এই উইকেটগুলো নেন সিটির অধিনায়ক। এ ছাড়া তৌফিক আহমেদ নেন ২টি উইকেট।

এই জয়ে রান রেটে এগিয়ে থেকে প্রাইম ব্যাংককে টপকে শীর্ষে ওঠে শেখ জামাল। ৩ ম্যাচের প্রত্যেকটিতে জিতেছে তারা। অন্যদিকে সমান ম্যাচ খেলে সিটি হেরেছে প্রত্যেকটিতে।

রিয়াদ/আমিনুল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়