ঢাকা     রোববার   ০৩ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৯ ১৪৩০

বিশ্বকাপ অভিষেকে হেডের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড রান 

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:০১, ২৮ অক্টোবর ২০২৩   আপডেট: ১৮:১৩, ২৮ অক্টোবর ২০২৩
বিশ্বকাপ অভিষেকে হেডের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড রান 

ট্রাভিস হেড যেন এলেন আর ঝড় তুললেন। শুরুতেই ডেভিড ওয়ার্নারকে সঙ্গে নিয়ে নিউ জিল্যান্ড বোলারদের তুলোধুনো করে অস্ট্রেলিয়াকে এনে দেন উড়ন্ত শুরু। চার-ছয়ের ঝড় তুলে বিশ্বকাপ অভিষেকে তুলে নেন সেঞ্চুরি। সেই সঙ্গে অজি স্কোরবোর্ডে জমা হয় রেকর্ড রান। 

ধর্মশালায় শনিবার (২৮ অক্টোবর) সকালে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ৩৮৮ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপে কিউইদের বিপক্ষে এটি অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ রান। সব মিলিয়ে বিশ্বকাপের আসরে অস্ট্রেলিয়ার এটি তৃতীয় সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলা হেড থামেন ১০৯ রানে। সেঞ্চুরি তোলেন মাত্র ৫৯ বলে! অজিদের হয়ে বিশ্বকাপে এটি চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি। চলতি বিশ্বকাপেই মাত্র ৪০ বল শতক হাঁকিয়ে রেকর্ড গড়েন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। হেডের ৬৭ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১০টি চার ও ৭টি ছয়ের মারে। 

ওয়ার্নারের আউটে ১৭৫ রানে ভাঙে ওপেনিং জুটি। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডেতে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ওপেনিং জুটি। সর্বোচ্চ ১৮৯ রান অ্যাডাম গিলক্রিস্ট-মার্ক ওয়াহর। আর বিশ্বকাপে যে কোনো দলের বিপক্ষে এটি চতুর্থ সর্বোচ্চ ওপেনিং জুটি।  ওয়ার্নার ৬৫ বলে ৫টি চার ও ৬টি ছক্কায় ৮১ রান করেন।  

দুজন সাজঘরে ফিরলে রানের চাকা ধীর হয়ে যায় কিছুটা। সঙ্গে নিয়মিত বিরতিতে হারাতে থাকে উইকেট। মিচেল মার্শ ৫১ বলে ৩৬ রানে সাজঘরে ফেরেন। স্টিভেন স্মিথ-মার্নাস লাবুশানে ১৮ রানের বেশি করতে পারেননি। 

এই তিন ব্যাটার ফেরার পর অবশ্য রানের গতি বেড়ে যায়। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল মাত্র ২৪ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন। ২৮ বলে ৩৮ রানের ইনিংস আসে জস ইংলিশের ব্যাট থেকে। আর অধিনায়ক প্যাট কামিন্স যেন আরও এক কাঠি সরেস। মাত্র ১৪ বলে খেলেন ৩৭ রানের ইনিংস। 

কিউইদের হয়ে সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট ও গ্লেন ফিলিপস। বোল্ট ৭৭ রান দিলেও ফিলিপস দেন মাত্র ৩৭ রান! সবচেয়ে বেশি ৮০ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন স্যান্টনার।

ঢাকা/রিয়াদ/বিজয়

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়