ঢাকা     শনিবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১১ ১৪৩০

শেষ ওভারের রোমাঞ্চে জিতে সিরিজ শেষ করলো ভারত

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১৮, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩  
শেষ ওভারের রোমাঞ্চে জিতে সিরিজ শেষ করলো ভারত

সিরিজ জয় আগেই নিশ্চিত হয়েছিল। শেষ ম্যাচ ছিল কেবল আনুষ্ঠানিকতা। তাতেও জিতলো ভারত। রোববার (৩ ডিসেম্বর) বেঙ্গালুরুতে পঞ্চম ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬ রানের জয়ে সিরিজ শেষ করলো সুর্যকুমার যাদবের দল। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ স্বাগতিকরা জিতে নিল ৪-১ ব্যবধানে।

ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে শ্রেয়াস আইয়ারের ফিফটিতে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৬০ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় ভারত। জবাব দিতে নেমে বেন ম্যাকডারমটের ঝড়ো ফিফটির পরও ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রানে থামে অস্ট্রেলিয়া।

এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামের মন্থর টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে চার-ছক্কা হাঁকিয়ে ঝড়ের ইঙ্গিত দেন যশস্বী জয়সওয়াল। তবে পরের বলেই আউট হয়ে যান তিনি ১৫ বলে ২১ রান করে। টিকতে পারেননি রুতুরাজ গায়কোয়াড়ও। সূর্যকুমার ও রিঙ্কু সিংয়ের বিদায়ে ৫৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে ভারত।

পরের পথটা পাড়ি দেন শ্রেয়াস আইয়ার, জিতেশ শার্মা ও অক্ষর প্যাটেল। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অবদান আইয়ারের। শ্রেয়াস শেষ ওভারে থামেন ৩৭ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৫৩ রান করে। জিতেশ ১৬ বলে করেন ২৪ রান। ভারত শেষ ৪ ওভারে তোলে ৪৫ রান, শেষ ২ ওভারে ২৬।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শুরুতেই জশ ফিলিপকে হারায় অস্ট্রেলিয়া। আগ্রাসী হয়ে ওঠা ট্রাভিস হেডকে (১৮ বলে ২৮) থামান রবি বিষ্ণই। পরের ওভারে হার্ডিকেও বিদায় করেন এই স্পিনার। ৫৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর অস্ট্রেলিয়াকে এগিয়ে নেন ম্যাকডারমট ও টিম ডেভিড। 

এই দুজন ৪৭ রানের জুটি গড়ে বিচ্ছিন্ন হন। পরপর দুই ওভারে বিদায় নেন দুজন। ম্যাকডারমট ৩৬ বলে ৫ ছক্কায় করেন ৫৪ রান। শেষ ৩ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার দরকার ছিল ৩২ রান। অষ্টাদশ ওভারে আভেশ খানকে টানা তিনটি চার মেরে সফরকারীদের আশা বাঁচিয়ে রাখেন অধিনায়ক ওয়েড। এই ওভারে আসে ১৫ রান। তবে পরের ওভারে মুকেশ কুমার দেন ৭ রান।

শেষ ওভারে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১০ রান। আর্শদিপের প্রথম দুই বলে কোনো রান নিতে পারেননি ওয়েড। তৃতীয় বলে লং অনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। পরের বলে আসে ১ রান। শেষ ২ বলে দরকার ছিল ৯। পঞ্চম বলে ১ রানের বেশি হয়নি। শেষ বলেও আসে ১ রানই।

ঢাকা/বিজয়

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়