ঢাকা     সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৯ ১৪৩১

দুই ডাবল সেঞ্চুরিতে সেরার দৌড়ে জয়সওয়াল

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:১৯, ৪ মার্চ ২০২৪   আপডেট: ১৭:০২, ৪ মার্চ ২০২৪
দুই ডাবল সেঞ্চুরিতে সেরার দৌড়ে জয়সওয়াল

ফেব্রুয়ারি মাসটা দুর্দান্ত কেটেছে ভারতের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান যশস্বী জয়সওয়ালের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে পর পর দুই টেস্টে দুটি ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান তিনি। তাতে করে আইসিসির ফেব্রুয়ারি মাস সেরার তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন এই ব্যাটসম্যান।

জয়সওয়ালের পাশাপাশি মাস সেরার দৌড়ে জায়গা করে নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এক টেস্টে দুই সেঞ্চুরি হাঁকানো নিউ জিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন। আর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডেতে ডাবল সেঞ্চুরি ও সেঞ্চুরি হাঁকানো শ্রীলঙ্কার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান পাথুম নিসাঙ্কাও।

ঘরের মাঠে প্রথম টেস্টেই ইংল্যান্ডের কাছে হেরে বসে ভারত। দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ভারত সুবিধা করতে না পারলেও ডাবল সেঞ্চুরি (২০৯) হাঁকান জয়সওয়াল। শেষ পর্যন্ত জাসপ্রিত বুমরাহর দুর্দান্ত বোলিংয়ে ১০৬ রানে জয় পায় ভারত। ম্যাচসেরার দৌড়ে ডাবল সেঞ্চুরিয়ান জয়সওয়াল থাকলেও সেটা জিতেন বুমরাহ।

পরের টেস্টে প্রথম ইনিংসে জয়সওয়াল করেন মাত্র ১০ রান। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে আবারও হাঁকান ডাবল সেঞ্চুরি (২১৪)। কিন্তু রবীন্দ্র জাদেজার অলরাউন্ড নৈপূণ্যে ৪৩৪ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় পায় ভারত।

ফেব্রুয়ারি মাসে দুটি ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানো ছাড়াও বেশ কিছু রেকর্ড গড়েন জয়সওয়াল। তার মধ্যে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ১২ ছক্কা হাঁকানোর দীর্ঘদিনের রেকর্ড স্পর্শ করেন। এছাড়া মাত্র ২২ বছর ৪৯ দিন বয়সে ব্যাক টু ব্যাক ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েও রেকর্ড গড়েন। সবচেয়ে কম বয়সী তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে দুই ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানোর রেকর্ড গড়েন জয়সওয়াল। তার আগে স্যার ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান ও বিনোদ কাম্বলি গড়েছিলেন এই রেকর্ড। ফেব্রুয়ারি মাসে জয়সওয়াল তিন টেস্ট খেলে রান করেন ৫৬০টি। গড় ১১২। ছক্কা ২০টি!

এদিকে ফেব্রুয়ারি মাসে কেন উইলিয়ামসনের ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরিতে ভর করে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথমবার টেস্ট সিরিজ জিতে নিউ জিল্যান্ড। প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১১৮ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৯ রান করে দলকে ২৮১ রানের বড় জয় উপহার দেন। ক্যারিয়ারে এবারই প্রথম এক টেস্টে দুই সেঞ্চুরি হাঁকান উইলিয়ামসন।

এরপর দ্বিতীয় টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে অপরাজিত ১৩৩ রানের ইনিংস খেলে দলকে ৭ উইকেটের জয় উপহার দেন এবং প্রথমবার সিরিজ জেতান প্রোটিয়াদের বিপক্ষে। এটা ছিল উইলিয়ামসনের ক্যারিয়ারের ৩২তম টেস্ট সেঞ্চুরি। এর মধ্য দিয়ে খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন এমন ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরির কীর্তি গড়েন। এছাড়া স্টিভেন স্মিথকে পেছনে ফেলে সবচয়ে কম ইনিংস খেলে ৩২ সেঞ্চুরির রেকর্ডও গড়েন।

জয়সওয়াল ও উইলিয়ামসনের সঙ্গে সেরার দৌড়ে থাকা নিসাঙ্কার কীর্তিও ছোট নয়। আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ২১০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে প্রথম কোনো শ্রীলঙ্কান হিসেবে ওয়ানডেতে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানোর রেকর্ড গড়েন। এরপর তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে আরও একটি সেঞ্চুরি (১১৮) হাঁকিয়ে ৩-০ ব্যবধানের সিরিজ জয় নিশ্চিত করেন।

ঢাকা/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়