ঢাকা, রবিবার, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পদত্যাগ করছেন থেরেসা মে

সাইফ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-২৪ ৪:৪৪:৪৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-২৬ ৪:৩৬:৪২ পিএম
Walton AC 10% Discount

রাইজিংবিডি ডেস্ক : যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। আগামী ৭ জুন তিনি পদত্যাগ করবেন।

শুক্রবার লন্ডনে দশ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনের সামনে এক আবেগপূর্ণ বিবৃতিতে মে তার বিদায়ের কথা ঘোষণা করেন। সংক্ষিপ্ত বিবৃতির শেষে তার গলা ভেঙে আসে। চোখ অশ্রুসজল হয়ে ওঠে।

থেরেসা মে বলেন, ‘এমপিদের বোঝাতে আমি চেষ্টা করেছি। দুঃখজনক হলো, আমি তাদের বোঝাতে ব্যর্থ হয়েছি।’

তিনি বলেন,  ‘শিগগিরই চাকরি ছেড়ে দিচ্ছি এবং আমার জীবনে এটি বড় সম্মানের বিষয়।’

ব্রেক্সিট অর্থাৎ ব্রিটেনের ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ত্যাগের ব্যাপারে তার নতুন পরিকল্পনা তার মন্ত্রিসভায় ও পার্লামেন্টে অনুমোদিত হবে না এটা স্পষ্ট হবার পরই তার পদত্যাগের ঘোষণা এলো।

ব্রিটেনের বিরোধীদল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করে ‘সঠিক সিদ্ধান্ত’ নিয়েছেন।

যেদিন তিনি বিদায় নেবেন সেদিন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার দুবছর ৩২৭ দিন পূর্ণ হবে।

থেরেসা মে বলেছেন, তিনি আশা করেন তার উত্তরসূরী যিনি হবেন তিনি ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন করতে পারবেন, যার পক্ষে ২০১৬ সালের গণভোটে ৫২ শতাংশ ভোট পড়েছিল।

ব্রেক্সিট কিভাবে বাস্তবায়ন হবে তা নিয়ে মে’র পরিকল্পনাটি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নেতাদের অনুমোদন পেয়েছিল, কিন্তু ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে এটি পর পর তিন বার তুলেও তা পাস করাতে ব্যর্থ হন তিনি।

এরপর তিনি বিরোধীদল লেবার পার্টির সাথে আলোচনা করে আরেকটি সংশোধিত পরিকল্পনা উপস্থাপন করেন, কিন্তু এর যে তীব্র বিরূপ সমালোচনা হয় তাতে এটা স্পষ্ট হয়ে যায় যে ক্ষমতাসীন কনসারভেটিভ পার্টি ও পার্লামেন্ট-কোথাও এটা পাস করানো যাবে না। এরপরই মে'কে অবিলম্বে পদত্যাগের জন্য পার্টি চাপ দিতে থাকে। অবশেষে আজ সকালে প্রধানমন্ত্রী মে পদত্যাগের কথা ঘোষণা করলেন।

 

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের জুলাইয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করেন থেরেসা মে।

সূত্র: বিবিসি



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ মে ২০১৯/সাইফ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge