ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৭ ||  ১১ সফর ১৪৪২

ভোলায় ঐক্য পরিষদের দাবি মেনে নিয়েছে প্রশাসন

জেলা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:৩৬, ২১ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
ভোলায় ঐক্য পরিষদের দাবি মেনে নিয়েছে প্রশাসন

ভোলার বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদের’ ছয় দফা দাবি মেনে নিয়েছে প্রশাসন।

এর ফলে সোমবার ভোলা সরকারি স্কুল মাঠে যে প্রতিবাদ সমাবেশ করার কথা ছিল তা বাতিল করেছে ঐক্য পরিষদ।

ঐক্য পরিষদের দাবিগুলো হলো-

১. অনতিবিলম্বে ভোলা জেলা পুলি সুপার ও বোরহানউদ্দিনের ওসিকে প্রত্যাহার করতে হবে এবং তদন্ত সাপেক্ষে গুলির হুকুমদাতা ও গুলিবর্ষণকারীদেরকে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দিতে হবে।

২. আমাদের মহানবী (স.) ও মহান আল্লাহ তায়ালা এবং ইসলাম নিয়ে ব্যঙ্গ ও কটুক্তিকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির আইন করতে হবে।

৩. মহানবী (স.) ও আল্লাহ তায়ালাকে নিয়ে ব্যঙ্গ ও কটুক্তিকারী ‘বিপ্লব চন্দ্র শুভ’কে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি দিতে হবে।

৪. ভোলার বোরহানউদ্দিনে গতকালের সংঘর্ষে যারা শাহাদাত বরণ করেছেন, তাদের পরিবারকে সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

৫. সরকারি খরচে আহতদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।

৬. গতকালের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে এবং কোনো হয়রানিমূলক মামলা বা কাউকেই গ্রেপ্তার করা যাবে না।

গতকাল রোববার ভোলার বোরহানউদ্দিনে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে আয়োজিত প্রতিবাদ বিক্ষোভকালে পুলিশের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এক যুবকের হ্যাক হওয়া আইডি থেকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার বক্তব্য ছড়ানোর ঘটনা থেকে এ পরিস্থিতির উদ্ভব হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। সংঘর্ষকালে চারজন নিহত ও শতাধিক আহত হয়।

ওই সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা অজ্ঞাত ৫ হাজার ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা  হয়েছে। রোববার রাতে বোরহানউদ্দিন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবিদ হোসেন বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

পড়ুন :

ভোলা/সাইফ

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়