ঢাকা     বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৯ ||  ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

‘আ.লীগ’র রাজনীতি করে বিএনপির ব্যানারে ফটোসেশন, ভিডিও করায় হুমকি!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:১০, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ২১:৫৫, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২
‘আ.লীগ’র রাজনীতি করে বিএনপির ব্যানারে ফটোসেশন, ভিডিও করায় হুমকি!

ছবিতে ভুয়া ফটোসেশন, গোল বৃত্তে সাংবাদিক রাফি

ভুয়া বিক্ষোভ মিছিলের ফটোসেশনের ভিডিও ফেসবুকে দেওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্থানীয় সাংবাদিক আবুল হাসনাত মো. রাফিকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রাফি অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম’র ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে এই হুমকি দেন নিপুন মিয়াজি নামের এক নারী। ওই নারী ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন বলেও এসময় নিজের পরিচয় দেন। এ ঘটনায় দুপুরে সদর মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন সাংবাদিক রাফি।

রাফি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘‘গত ৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে পেশাগত কাজে বাসা থেকে বের হয়। দক্ষিণ পৈরতলা মাইক্রো স্ট্যান্ডে আসার পর দেখি গলির ভেতরে ৫-৬ জন ছেলে ও একজন নারী অটোরিকশা থেকে নেমে একটি ব্যানার হাতে নিয়ে ফটোসেশনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। ব্যানারে লেখা ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবদল’। ব্যানারটি নিয়ে যুবকরা দাঁড়িয়েছেন, এসময় কয়েকটি ছবি তুলেন সাথে থাকা নারী। ছবি তোলার পর সবাই দ্রুত অটোরিকশা নিয়ে চলে যান। বিষয়টি আমি ভিডিও করে ফেসবুকে পোস্ট করি।’’

তিনি বলেন, এদিন রাতে অপরিচিত নম্বর থেকে একজন ফোন দিয়ে নিজেকে নিপুন মিয়াজি পরিচয় দেন। তিনি ঢাকায় বেসরকারি একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন বলে জানান। 

নিপুন মিয়াজি পরিচয় দেওয়া নারী রাফিকে বলেন, ‘আমার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। বিশেষ কাজে ছবিগুলো তুলেছি। ভিডিও ডিলিট করেন দেন’। 

এসময় ওই সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেন, একটি নিবন্ধিত দলের ব্যানার ও দলীয় প্রধানের ছবি ব্যবহার করে ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ফটোসেশন করতে পারেন কিনা। এর কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি ওই নারী। পরবর্তীতে শনিবার মোবাইলে ফোন করে ভিডিও ডিলিট না করায় বাড়াবাড়ি হচ্ছে এবং সে কে তার পরিচয় খুঁজে বের করার হুমকি দেয়। এরপরই এ ঘটনায় থানায় জিডি দায়ের করেন রাফি।

এদিকে, নিপুন মিয়াজি নিজেকে স্বদেশ-বিদেশ পত্রিকার বিনোদন প্রতিবেদক পরিচয় দিয়ে বলেন, ‘আমি তাকে কোনও হুমকি দিইনি। ফোনে ভিডিও কাটতে অনুরোধ করেছিলাম। থানায় জিডি করেছে? এসব কিছু না। জিডি করতে হলে নাম, বাবার নাম ও ঠিকানা লাগবে। সে (রাফি) তো আমার এসব কিছুই জানে না। আমি কী করি এখন দেখবে। আমি ওর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করব। স্বদেশ-বিদেশ পত্রিকার সম্পাদক আমার ভাই। আমার ভাই আওয়ামী লীগ করেন। আমি বিনোদন শাখাটা দেখি। সে যদি আজকের মধ্যে এসব ঠিক না করে, আমি আইনগত ব্যবস্থা নেব’।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক রাফি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেছেন। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। তদন্ত করে আইননুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মাইনুদ্দীন রুবেল/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়