ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ৩০ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪৩১

হাত-পা বেঁধে গৃহবধূর গায়ে আগুন দিলো দুর্বৃত্তরা

পটুয়াখালী (উপকূল) প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:০০, ৮ জুন ২০২৩   আপডেট: ২২:০৪, ৮ জুন ২০২৩
হাত-পা বেঁধে গৃহবধূর গায়ে আগুন দিলো দুর্বৃত্তরা

পটুয়াখালীর দুমকিতে হালিমা আক্তার মীম (২০) নামের এক গৃহবধূর হাত-পা ও মুখ বেধে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে ওই গৃহবধূর শরীরের ৮০ শতাংশ ও তার শিশুসন্তানের শরীরের আংশিক পুড়ে যায়।

বৃহস্পতিবার (৮ জুন) বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার নতুনবাজার সংলগ্ন শাহজাহান মুন্সির (দারোগা) বাসায় এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ ও তার শিশু ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুমকি সাতানী গ্রামের বাসিন্দা প্রিন্স ও মীম দম্পতি চলতি মাসে শাহজাহান দারোগার বাসা ভাড়া নেন। আজ দুপুরে খাবার খেয়ে সবাই যে যার রুমে বিশ্রাম করছিল। হঠাৎ প্রতিবেশীরা নতুন ভাড়াটিয়ার বাসায় চিৎকার ও গোঙানির শব্দে শুনতে পান। ছুটে গিয়ে দেখেন বাইরে থেকে দরজার ছিটকানি বন্ধ। ভেতরে ঢুকে অগ্নিদগ্ধ মীমকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় গড়াগড়ি করতে দেখেন। পরে তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসকর জন্য তাদের ঢাকায় রেফার্ড করা হয়।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাসার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘দুপুরে খাবার খাওয়ার পর ওই নারীর স্বামী ঘরের বাইরে যান। এর কিছুক্ষণ পর দুই ব্যক্তি ঘরে ঢুকে গৃহবধূর হাত-পা বেধে ফেলেন। পরে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে পালিয়ে যান। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে।’

ইমরান/কেআই

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়